সরকারি হাসপাতালে চালু হচ্ছে ন্যায্যমূল্যের প্যাথোলজিক্যাল ল্যাব সরকারি হাসপাতালে চালু হচ্ছে ন্যায্যমূল্যের প্যাথোলজিক্যাল ল্যাব

সরকারি হাসপাতালের পরিষেবায়  নয়া সংযোজন। চালু হতে চলেছে ন্যায্যমূল্যের প্যাথোলজিক্যাল ল্যাবরেটরি। কম খরচে রোগীদের বিভিন্ন শারীরিক পরীক্ষা করানোর সুযোগ করে দিতেই স্বাস্থ্য দফতরের এই নয়া পরিকল্পনা। খসড়া তৈরি। এখন শুধু চূড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষা।পরিকল্পনাটা ছিল খোদ মুখ্যমন্ত্রীর। তাঁর নির্দেশেই এসএসকেএম হাসপাতালে প্রথম চালু হয় ন্যায্যমূল্যের ওষুধের দোকান। এই প্রকল্পে জীবনদায়ী নানা ওষুধ রোগীদের হাতে পৌছে যায় কম দামে।  বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে ন্যায্যমূল্যের ওষুধের দোকান এখন রীতিমতো জনপ্রিয়। সেই ভাবনা অনুসরণে এবার সরকারি হাসপাতালে  ন্যায্যমূল্যের প্যাথোলজিক্যাল ল্যাবরেটরি খোলার কথা ভাবছেন স্বাস্থ্য কর্তারা।

২৪ ঘণ্টার খবরের জের, স্থগিত এসএসকেএমের পরীক্ষা

এসএসকেএমে এমবিবিএসের পঞ্চম বর্ষের সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষায় প্রহসন। ইনভিজিলেটরের সামনেই পরীক্ষা হলে গার্ড-এর ভূমিকায় তৃণমূল ছাত্র পরিষদ নেতারা। চব্বিশ ঘণ্টার স্টিং অপারেশনের জেরে স্থগিত হয়ে গেল বিতর্কিত পরীক্ষার ফলপ্রকাশ। পনেরোই মে শেষ হয় পঞ্চম বর্ষের সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা। তেরোই জুনের মধ্যে ফল প্রকাশের কথা ছিল। কিন্তু পরীক্ষা নিয়ে তৈরি হওয়া বিতর্কের জেরে আপাতত বিশ বাঁও জলে ফলপ্রকাশ। স্বাস্থ্য বিশ্ব বিদ্যালয়ের উপাচার্য জানিয়েছেন, আগে পরীক্ষা বিতর্কের নিষ্পত্তি হবে, ঘটনার তদন্ত হবে, নতুন করে পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। তারপর ফলপ্রকাশের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বিশ্ববিদ্যালয়।

এসএসকেএমের হোস্টেলে মাদক ঢুকল কী করে? সুপারকে ডেকে পাঠল হাসপাতাল কতৃপক্ষ

এসএসকেএমে মাদককাণ্ডে এক ইন্টার্নের মৃত্যুর পর হস্টেল সুপারকে ডেকে পাঠাল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কীভাবে হস্টেলে মাদক পৌঁছল তার জবাবও চাওয়া হয়েছে সুপারের কাছে। এই ঘটনা নিয়ে রোগী কল্যান সমিতির জরুরি মিটিং ডাকা হয়েছে আগামিকাল। বৈঠকে থাকতে পারেন মন্ত্রী মদন মিত্র এবং ফিরহাদ হাকিম। হস্টেলে মাদক ঢোকা বন্ধ করতে ওয়ার্ডেন ও নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ সহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নিতে চলেছে এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ। তবে এরজন্য স্বাস্থ্য দফতরের অনুমোদন প্রয়োজন। তাই এবিষয়ে স্বাস্থ্য দফতরে আবেদন জানাচ্ছে এসএসকেএম। এই ব্যবস্থা যাতে রাজ্যের সব মেডিক্যাল করা যায় তা নিয়েও এসএসকেএমের তরফে প্রস্তাব পাঠানো হচ্ছে।