প্রাক্তনদের নিয়ে টিটোয়েন্টি লিগের কথা ভাবছেন সচিন-ওয়ার্নার!

প্রাক্তনদের নিয়ে টিটোয়েন্টি লিগের কথা ভাবছেন সচিন-ওয়ার্নার!

  প্রাক্তন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের নিয়ে শুরু হতে চলেছে নতুন টি টোয়েন্টি লিগ? হ্যাঁ। তেমনটাই ভাবছেন বিশ্ব ক্রিকেটের দুই কিংবদন্তি ক্রিকেটার। দ্য লিটিল মাষ্টার সচিন রমেশ তেন্ডুলকার এবং ম্যাজিকাল ম্যান শেন ওয়ার্ন উদ্যোগ নিতে চলেছেন এমনই এক আন্তর্জাতিক টি টোয়েন্টি লিগের। সংবাদ সূত্রের প্রতিবেদন অনুযায়ী অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন লেগ স্পিনার ওয়ার্ন এবং বিশ্বের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে অন্যতম স্যার সচিন তেন্ডুলকার ইতিমধ্যেই ২৮ জন প্রাক্তন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের নাম এই লিগের জন্য প্রস্তাব করেছেন। প্রত্যেক খেলোয়াড় ম্যাচ প্রতি পাবেন ২৫ হাজার মার্কিন ডলার। ১৫ টি ম্যাচ হবে এই লিগে। ৪২ মাস ধরে চলবে এই লিগ। নাম দেওয়া হয়েছে অল স্টারস লিগ।

ভারতীয় ড্রেসিং রুমের সঙ্গে টুইটারেও এখনও বিরাট রাজ ভারতীয় ড্রেসিং রুমের সঙ্গে টুইটারেও এখনও বিরাট রাজ

ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি এখন বিবিধ কারণে মহাব্যস্ত। সময়টা তাঁর ব্যক্তিগত ভাবে ভালই চলছে। চলতি অস্ট্রেলিয়া সিরিজে দল যতই নাকানি চোবানি খাক না কেন তিন টেস্টে তাঁর ৪৯৯ রান করা হয়ে গেছে। ধোনির হঠাৎ অবসরে মিলেছে টেস্ট দলে পাকাপাকি অধিনায়কত্বের সুযোগও। ভাল-খারাপ সব কারণেই মিডিয়ার ক্যামেরা সর্বক্ষণ এই এই মুহূর্তে ভারতীয় ক্রিকেটের মহাতারকার পিছনে ঘুরে বেরায়। ক্রিকেট থেকে প্রেম, খবরের শিরোনামে তিনি থাকবেনই। আরও একবার বিরাট হইচই শুরু হল মেন ইন ব্লু-এর নয়া ক্যাপ্টেনকে নিয়ে। তবে একে বারে ভিন্ন এক কারণে।

'রিং মাস্টার'কে 'চাবুক' মারলেন ভাজ্জি, জাহির, লক্ষ্ণণ। সচিনের পাশে মুরলিথরন 'রিং মাস্টার'কে 'চাবুক' মারলেন ভাজ্জি, জাহির, লক্ষ্ণণ। সচিনের পাশে মুরলিথরন

'রিং মাস্টার' ক্রমশ কোণঠাসা হয়ে পড়ছেন। ভারতীয়রা তো বটেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ক্রিকেটাররাও সচিনের পাশেই দাঁড়াচ্ছেন।  সচিন তেন্ডুলকরের সুরেই গ্রেগ চ্যাপলকে আক্রমণ করলেন তাঁর পুরনো তিন শিষ্য হরভজন সিং, জাহির খান, ভিভিএস লক্ষ্মণ। হরভজন সিং তো বলেই ফেললেন, তিন বছর কোচিংয়ের দায়িত্ব নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটকে ৬ বছর পিছিয়ে দিয়েছিলেন গ্রেগ। জাহির খান আবার অভিযোগ করলেন, গুরু গ্রেগ তাঁর কেরিয়ার শেষ করে দিতে চেয়েছিলন। জাহির বলেন, কোচ থাকাকালীন গ্রেগ চ্যাপেল তাঁকে বলেছিলেন , "আমি থাকাকালীন তুমি আর ভারতের হয়ে খেলতে পারবে না।"ভিভিএস লক্ষ্ণণ আবার এ বিষয়ে বললেন, গ্রেগের অধীনে খেলার অভিজ্ঞতা দুঃস্বপ্নের মত।