সেক্সি এবং আকর্ষণীয় শরীরের ব্যাখ্যা দিলেন সানিয়া

সেক্সি এবং আকর্ষণীয় শরীরের ব্যাখ্যা দিলেন সানিয়া

ট্রেন্ড চলছে জিরো ফিগারের। যাঁর সঙ্গেই কথা বলবেন, তাঁকেই এখন ফিটনেসের কথা বলতে শুনবেন। কীভাবে নিজের স্লিম ফিগার ধরে রাখবেন সেই প্রতিযোগিতায় নেমে পড়েছে ৮ থেকে ৮০। খাওয়া দাওয়া শিকেয় তুলে শুধুমাত্র তরল জাতীয় বস্তু খেয়ে আর ঘণ্টার পর ঘণ্টা জিমে কাটিয়ে নিজেদের শরীরকে ফিট থেকে 'ফিটতম' করে তুলতে লেগে পড়েছে সবাই। কিন্তু টেনিস সুন্দরী সানিয়া মির্জার কাছে সৌন্দর্যের সংজ্ঞাটা একটু আলাদা।

মোদীকে হারিয়ে জিতে গেলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া মোদীকে হারিয়ে জিতে গেলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

লড়াইটা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে। অবশেষে মোদীকে হারিয়ে জিতে গেলেন তিনি। তাঁর নাম প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। টাইমসের সবথেকে প্রভাবশালী ১০০ ব্যক্তির তালিকায় ঢুকে গেলেন বলিউড তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। কিন্তু ঠাঁই হল না মোদীর।

'সানিয়া-শোয়েবের ঝগড়া', বিবাদ মিটল চা খেয়ে, দেখুন পাকিস্তানে সানিয়ার জনপ্রিয়তা 'সানিয়া-শোয়েবের ঝগড়া', বিবাদ মিটল চা খেয়ে, দেখুন পাকিস্তানে সানিয়ার জনপ্রিয়তা

সানিয়া মির্জা। বর্তমান সময়ে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ তেনিস তারকা। ভারতের মহিলা টেনিস খেলোয়াড়দের মধ্যে সানিয়া 'All time Great'।

গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের হ্যাটট্রিক স্যান্টিনার, একটানা জিতলেন ৩৬ ম্যাচ   গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের হ্যাটট্রিক স্যান্টিনার, একটানা জিতলেন ৩৬ ম্যাচ

ব্যুরো: অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে মহিলাদের ডাবলস খেতাব জিতল সানিয়া মির্জা-মার্টিনা হিঙ্গিস জুটি। গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের হ্যাটট্রিকের পাশাপাশি টানা ৮টি খেতাব জিতল ইন্দো-সুইস জুটি।

একশো কোটি জনসংখ্যার শিরদাঁড়ায় দেশপ্রেমের ঢেউ  তুললেন সচিন-সানিয়া-সুশীলরা একশো কোটি জনসংখ্যার শিরদাঁড়ায় দেশপ্রেমের ঢেউ তুললেন সচিন-সানিয়া-সুশীলরা

সাধারণতন্ত্র দিবসে জনসাধারণের কাছে এর থেকে ভাল বার্তা কী হতে পারে? জীবনের দৌড় যখন এক বৃত্তে ঘটতে থাকে, সেই বৃত্তই সময়ের সঙ্গে এগিয়ে নিয়ে যায় দেশকে। দেশের স্পোর্ট হিরোরা এক ছাদের তলায় দাঁড়িয়ে এই বার্তাটাই দিলেন। তারই সঙ্গে জাতীয় সঙ্গীতে গলা মেলালেন সানিয়া মির্জা, সুশীল কুমার, সুনীল গাভাস্কার, ধনরাজ পিল্লাই, সচিন তেন্ডুলকার, মহেশ ভূপতি, শ্যুটার গগন নারাঙ ও প্রাক্তন ফুটবল অধিনায়ক বাইচুঙ ভুটিয়া।

৩১-এ সান্টিনা, মেজাজে শুরু অসি ওপেন ৩১-এ সান্টিনা, মেজাজে শুরু অসি ওপেন

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রথম রাউন্ডে জিতে একটানা ৩১টা ম্যাচ জয়ের রেকর্ড গড়লেন সানিয়া মির্জা-মার্টিনা হিঙ্গিস। বৃহস্পতিবার মহিলার ডবলসের প্রথম রাউন্ডে  ইন্দো-সুইস জুটি ৬-২, ৬-৩ হারান মারিয়ানা দুগে- তেলিয়ানা পেরেইরাকে।

টানা ২৮ ম্যাচ জেতার রেকর্ড ভেঙে 'সান্টিনা' ২৯*, সামনে লক্ষ্য ৪৪ টানা ২৮ ম্যাচ জেতার রেকর্ড ভেঙে 'সান্টিনা' ২৯*, সামনে লক্ষ্য ৪৪

দৌড় প্রতিযোগিতায় নাম লিখিয়েছেন, জিতবেন বলেই দৌড় শুরুও করেছেন। হেরে যাচ্ছেন হেরে যাচ্ছেন করেও চ্যাম্পিয়ন আপনি। ১০০ মিটার। ২০০ মিটার। ৪০০ মিটার। ১৬০০ মিটার কিংবা ম্যারাথন দৌড়। প্রতিবার জয় করে করে, জয়টা যদি ২৯ বার হয়, সেটা কতটা আনন্দের আর কতটা কঠিন পেরিয়ে সোজা হয়েছে, তা আশা করি আন্দাজ করাই যাচ্ছে। যে কোনও ফরম্যাট, যে কোনও খেলায় একটানা ২৯ ম্যাচ অপরাজিত থাকার কৃতিত্ব হাতে গোনা। টেনিস কোর্টে ডাবলসে এই অবিশ্বাস্য নজির ২ বার হয়েছে। একটা সংখ্যা ২৮। অন্যটি ৪৪। প্রথমটি ভেঙে ফেলেছেন সানিয়া মির্জা ও মার্টিনা হিঙ্গিস। ইন্দো-সুইস জুটি WTA-এ প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠেছেন ২৯ তম ম্যাচ জিতে। নভোতনা ও সুকোভা ১৯৯০ থেকে ১৯৯৪ সাল-এই সময়ের শ্রেষ্ঠ উওমেন ডাবলস জুটি একটানা জিতেছিল ৪৪ ম্যাচ। ইন্দো-সুইস জুটি এই রেকর্ড ভাঙার থেকে মাত্র ১৬ ম্যাচ দূরে। একথা স্মরণ করতেই হয়, এই কৃতিত্ব প্রথমবার অর্জন করছেন প্রথম ভারতীয়। ভারতের বিশ্বকাপ জয়ের সঙ্গে তুলনা না করলেও, কোনও ভাবেই এর কৃতিত্ব কম নয়। কারণ একটাই, এখনও পর্যন্ত বিশ্বের সবথেকে প্রচলিত খেলা, সেটা ফুটবল, ক্রিকেট, হকি কিংবা যেকোনও দলগত খেলায় ভারতের কেউ কখনও একটানা ২৯ ম্যাচ জেতার কৃতিত্ব গড়তে পারেননি।   

   চার্টার্ড ফ্লাইট, ৭৫ হাজার টাকার মেক আপ কিট না পেয়ে সরকারি অনুষ্ঠানে গেলেন না সানিয়া! চার্টার্ড ফ্লাইট, ৭৫ হাজার টাকার মেক আপ কিট না পেয়ে সরকারি অনুষ্ঠানে গেলেন না সানিয়া!

ফের খবরের শিরোনামে সানিয়া মির্জা। কিন্তু বছরে ১০টি ট্রফির জন্য কিংবা আরও একটা ট্রফি জয়ের জন্য নয়। এবার সানিয়া মির্জা খবরের শিরোনামে তার কারণ, তিনি মধ্যপ্রদেশ সরকারের বার্ষিক ক্রীড়া পুরস্কার অনুষ্ঠানে যাননি।

সেরাদের সেরায় খেতাব সানিয়া-মার্টিনার সেরাদের সেরায় খেতাব সানিয়া-মার্টিনার

পেশাদার টেনিসে বছরের সেরা আট ডাবলস খেলোয়াড়ের নিয়ে হওয়া টুর্নামেন্টে সব কটা ম্যাচ জিতে চ্যাম্পিয়ন হলেন সানিয়া মির্জা-মার্টিনা হিঙ্গিস। সেই সঙ্গে সানিয়া-মার্টিনার স্বপ্নের বছরটা শেষ হল জয় দিয়েই।

চিনও জয় করে ফেললেন সানিয়া-মার্টিনা চিনও জয় করে ফেললেন সানিয়া-মার্টিনা

তরতর করে গড়িয়ে চলেছে সানিয়া মির্জা ও মার্টিনা হিঙ্গিস জুটির বিজয়রথ। একের পর এক ট্রফি জয়। মরশুমের অষ্টম ট্রফিটা এল সানিয়া-হিঙ্গিসের ঝুলিতে। যদিও চায়না ওপেন জিততে বেশ কিছুটা বেগ পেতে হল। শীর্ষ বাছাই সানিয়া ও মার্টিনা হিঙ্গিসকে বেকায়দায় ফেলে দেন ষষ্ঠ বাছাই তাইপেইয়ের হাও-চিং চান ও য়ুং-জান চান। শেষ পর্যন্ত সানিয়া-হিঙ্গিস ম্যাচ বের করে নেন ৬-৭ (৯), ৬-১, ১০-৮ গেমে। সময় লাগে এক ঘণ্টা চল্লিশ মিনিট।

সানিয়া-হিঙ্গিস জিতেই চলেছেন, উইম্বলডন-ইউএস ওপেনের পর এবার চিনেও মির্জা-মার্টিনা ঝলক সানিয়া-হিঙ্গিস জিতেই চলেছেন, উইম্বলডন-ইউএস ওপেনের পর এবার চিনেও মির্জা-মার্টিনা ঝলক

মরশুমের ৬ নম্বর খেতাব জিতে নিজের কেরিয়ারের চূড়ান্ত ফর্মে ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। চিনের টেনিস প্রতিযোগিতায় জুটি বেঁধেছিলেন সানিয়া মির্জা এবং মার্টিনা হিঙ্গিস। ইন্ডিয়ান ওয়েলস, মিয়ামি, চার্লসন, উইম্বলডন, ইউএস ওপেন জয়ী এই জুটি চিনের গুয়াঞ্জো টেনিস প্রতিযোগিতায়ও জয় হাসিল করে। ফাইনালে জু শিলিন ও ইয়ু জিওয়াদি জুটিকে ৬-৩, ৬-১ সেটে পরাজিত করেন সানিয়া-হিঙ্গিস জুটি।

সানিয়া, লিয়েন্ডারের দেখানো স্বপ্নে টেনিস জ্বরে ভুগছে দেশ, মুগ্ধ দ্রাবিড় সানিয়া, লিয়েন্ডারের দেখানো স্বপ্নে টেনিস জ্বরে ভুগছে দেশ, মুগ্ধ দ্রাবিড়

লিয়েন্ডার পেজ ও সানিয়া মির্জার হাত ধরে এগিয়ে চলেছে ভারতীয় টেনিসের বিজয়রথ। বিশেষ করে ৪৩ বছর বয়সে গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের হ্যাটট্রিক করে ভারতীয় ক্রীড়া আঙিনায় যে নজির গড়েছেন

পেজের পর সানিয়া, হিঙ্গিসের সঙ্গে জুটি বেঁধে ইউএস ওপেন জয় পেজের পর সানিয়া, হিঙ্গিসের সঙ্গে জুটি বেঁধে ইউএস ওপেন জয়

ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন হলেন সানিয়া-হিঙ্গিস জুটি।  হারালেন কাজকাস্থান-অস্ট্রলিয়া জুটিকে। সানিয়া-হিঙ্গিস ইউএস ওপেন ফাইনাল জিতলেন ৬-৩, ৬-৩ সেটে। ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন হয়ে ২০১৫ মরসুমের দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতলেন সানিয়ারা। এর আগে উইম্বলডন ডাবলস জিতেছিলেন সানিয়া-হিঙ্গিস জুটি।

জোড়া খুশির খবর-ডাবলসের ফাইনালে সানিয়ারা, মিক্সড ডাবলসে লিয়েন্ডাররা জোড়া খুশির খবর-ডাবলসের ফাইনালে সানিয়ারা, মিক্সড ডাবলসে লিয়েন্ডাররা

উইম্বলডনের পর ইউএস ওপেনেও দুটি বিভাগের ফাইনালে খেলতে দেখা যাবে দুই ভারতীয়কে। মানে দুজন ভারতীয়র হাতে উঠতে পারে বছরের শেষ গ্র্যান্ডস্লাম। ঘটনাচক্রে দুজনের পার্টনার মার্টিনা হিঙ্গিস। মহিলাদের ডাবলসের ফাইনালে উঠলেন সানিয়া মির্জা-মার্টিনা হিঙ্গিস। আর মিক্সড ডাবলসের খেতাবি লড়াইয়ে উঠলেন লিয়েন্ডার পেজ-মার্টনা হিঙ্গিস। অবশ্য মিক্সড ডাবলসের ফাইনালে একজন ভারতীয়কে দেখা যেতো সেটাই নিশ্চিতই ছিল। কারণ সেমিফাইনালে মুখোমুখি ছিলেন লিয়েন্ডার পেজ ও রোহন বোপান্না। শেষ অবধি সেমিতে শেষ হাসি হাসলেন লিয়েন্ডাররা। শেষ চারের ম্যাচে লিয়েন্ডার-হিঙ্গিস জুটি ৬-২,৭-৫ হারালেন রোহন বোপান্না-ইয়াং ঝান চেংকে। ফাইনালে লিয়েন্ডারদের সামনে এবার স্যাম ক্যুরি-বেথানি মাটেক জুটি। প্রসঙ্গত,  এবারের উইম্বলডনে মার্টিনা হিঙ্গিসকে সঙ্গী করে মিক্সড ডাবলস ও মহিলাদের ডাবলসে খেতাব জিতেছিলেন লিয়েন্ডার, সানিয়া।

ট্রফি আর দু ধাপ দূরে সানিয়া-হিঙ্গিসদের ট্রফি আর দু ধাপ দূরে সানিয়া-হিঙ্গিসদের

উইম্বলডনের পর এবার ইউএস ওপেনেও ছুটছে সানিয়া মির্জা-মার্টিনা হিঙ্গিস জুটির দৌড়। মহিলাদের ডাবলসের কোয়ার্টার ফাইনালে চাইনিজ তাইপের ইয়ং চ্যাং-চিং চ্যাং জুটিকে স্ট্রেট সেটে হারিয়ে দিলেন সানিয়া-হিঙ্গিস। ৮৫ মিনিটের মধ্যেই এই ম্যাচ জিতে নিয়ে সেমিফাইনালে উঠল ইন্দো-সুইস জুটি। সানিয়ারা জিতলেন  ৭-৬, ৬-১। প্রথমে সেটে সানিয়াদের বেগ দিলেও তাইপের মেয়েরা দ্বিতীয় সেটে খেলা থেকে হারিয়ে যায়। বছরের শেষ গ্র্যান্ডস্লামের সেমিফাইনালে ওঠার পর সানিয়া বললেন, 'আমরা দারুণ খেলছি। তবে দু একটা জায়গায় আমাদের খেলায় উন্নতির দরকার আছে।'

রাজীব খেলরত্ন পুরস্কার পেলেন সানিয়া মির্জা রাজীব খেলরত্ন পুরস্কার পেলেন সানিয়া মির্জা

ভারতে ক্রীড়া জগতের সর্বোচ্চ সম্মান রাজীব গান্ধী খেলরত্ন পুরস্কার পেলেন টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। রাষ্ট্রপতি ভবনে জাতীয় ক্রীড়া দিবসে তাঁর হাতে এই পুরস্কার তুলে দিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়।