সিল্ক থেকে বিদ্যা এবার সুচিত্রা

সিল্ক থেকে বিদ্যা এবার সুচিত্রা

অখ্যাত সিল্ক স্মিতার চরিত্রে অভিনয় জাতীয় পুরস্কার এনে দিয়েছিল তাকে। আর এবার ভারতের সর্বকালের অন্যতম অভিনেত্রীর সুচিত্রা সেনের বায়োপিকে অভিনয়ের সুযোগ পেলেন বিদ্যা।

বেলভিউ ক্লিনিকের আইটি ২০৭ ঘরটাতে এখনও সম্পৃক্ত মহানায়িকা বেলভিউ ক্লিনিকের আইটি ২০৭ ঘরটাতে এখনও সম্পৃক্ত মহানায়িকা

বেলভিউ ক্লিনিকের আইটি ২০৭। এক বছর আগে ঠিক এই দিনটায় ওই কেবিন ঘিরে তৈরি হয়েছিল এক আশ্চর্য বিষণ্ণতা। যা থেকে আজও বেরোতে পারেন না নার্সিংহোমের ডাক্তারবাবু আর নার্সরা। চোখ বন্ধ করলেই ছবির মতো ভেসে ওঠে একটার পর একটা দৃশ্য।

প্রদর্শনী, ছবি, সুচিত্রায় আচ্ছন্ন কলকাতা চলচ্চিত্র উত্‍সব প্রদর্শনী, ছবি, সুচিত্রায় আচ্ছন্ন কলকাতা চলচ্চিত্র উত্‍সব

কলকাতা চলচ্চিত্র উত্‍সব আচ্ছন্ন সুচিত্রা ম্যাজিকে। প্রয়াত মহানায়িকাকে সম্মান জানিয়ে তাঁর অভিনীত সিনেমার পাশাপাশি চলছে তাঁর ছবির প্রদর্শনীও। নন্দনে মহানায়িকার ছবি  দেখার  ভিড় ফের একবার প্রমাণ করছে

কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে এবারের বিষয় উইমেন সাবটেন্স ইন সিনেমা কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে এবারের বিষয় উইমেন সাবটেন্স ইন সিনেমা

উইমেন সাবটেন্স ইন সিনেমা।  এবারের আন্তর্জাতিক কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে এটাই প্রধান আকর্ষনীয় বিষয়। উত্সব শুরু হচ্ছে  দশই নভেম্বর। শুরু হচ্ছে বিশতম আন্তর্জাতিক কলকাতা চলচ্চিত্র উতসব। এবারের চলচ্চিত্র উতসবে মহিলা পরিচালকদের সিনেমা নিয়ে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন বিগ বি অমিতাভ বচ্চন। উপস্থিত থাকবেন শাহরুখ খান, দীপিকা পাডুকোন, ইরফান খানসহ একঝাঁক বলিউড তারকা। বিশ্বের একশো সাঁইত্রিশটি ছবি দেখানো হবে এবারের চলচ্চিত্র উত্সবে। সাত দিন ধরে চলবে ফেস্টিভ্যাল। মোট বারোটি প্রেক্ষাগৃহে দেখানো হবে ছবিগুলি। একত্রিশটি ভারতীয় ছবি স্থান পেয়েছে এবারের ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে। ইতালির পরিচালক ALACIA SARCO-র ছবি ITALO BAROCCO ছবিটি দিয়েই শুরু হবে এবারের চলচ্চিত্র উতসব।

তিনদশক পর পাবনায় জামাতের দখল মুক্ত সুচিত্রা সেনের বাড়ি তিনদশক পর পাবনায় জামাতের দখল মুক্ত সুচিত্রা সেনের বাড়ি

তিনদশক পর অবশেষে দখলমুক্ত সুচিত্রা সেনের পাবনার বাড়ি। চলতি সপ্তাহে জামাতে এ ইসলামির কবল থেকে মুক্ত হয়েছে এই বাড়ি। মহানায়িকার ভিটেতে সুচিত্রা সেন স্মৃতি সংগ্রহশালা গড়ে তুলবে বাংলাদেশ সরকার।  মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের ছোটবেলার বাড়িকে জঙ্গি কবল থেকে মুক্ত করার নির্দেশ এসেছিল গতবছরের দশই জুলাই। বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিয়েছিল, পাবনার ভিটে দখলমুক্ত করতে হবে। তারপর থেকেই সরকারি তত্পরতার শেষ ছিল না।

সুচিত্রার পারলৌকিক ক্রিয়াতেও বজায় রইল আড়াল

একান্তে মায়ের পারলৌকিক কাজ সারলেন মুনমুন সেন। যে মিথ, যে কৌতূহল ছিল মহানায়িকাকে ঘিরে, শেষ কাজেও সেই অপার আগ্রহ ও কৌতূহল রয়ে গেল সুচিত্রা ভক্তদের মধ্যে। শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে একান্ত পরিচিত ছাড়া আর কারও ঢোকার অনুমতি মিলল না।

পারোকে স্মরণ করলেন দেবদাস

সেটা ১ ৯৫৫ সাল. দীলিপকুমার দেবদাসের পারো হয়েছিলেন বাঙালির স্বপ্নসুন্দরী সুচিত্রা সেন. শুক্রবার সকালে সেই স্বপ্নসুন্দরীকে হারিয়েছে ভারতীয় চলচ্চিত্র. তবে মাঝে প্রায় ষাট বছর অতিক্রান্ত হলেও সুচিত্রা সেনের স্মৃতি আজও উজ্জ্বল কিংবদন্তী অভিনেতার মনে.

হাইপ্রোফাইল আম্মির কাগজ কাটিং দিয়ে অ্যালবাম বানাচ্ছে রিয়া, রাইমা

সকলের চোখে তিনি মহানায়িকা। কিন্তু রিয়া, রাইমার দিদা। দুই নাতনি এখন ব্যস্ত খবরের কাগজের কাটিং নিয়ে। সব কাটিং জড়ো করে সুচিত্রা সেনের শুধু মৃত্যুদিনটির ঘটনাবলী নিয়ে একটি অ্যালবাম বানাচ্ছেন তাঁরা।

দেশের গন্ডী ছাড়িয়ে বিদেশেও সুচিত্রা স্মরণ

সুচিত্রা সেনের মৃত্যুর খবরই এই মুহুর্তে বাংলার সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে। শুধু দেশের মিডিয়াতেই নয়, মহানায়িকার মৃত্যুর খবর বড় করে ছাপা হয়েছে পৃথিবীর সব বড় কাগজেই। মার্কিন সংবাদপত্র ওয়াশিংটন পোস্ট, নিউইয়র্ক টাইমস, বৃটিশ সংবাদপত্র দ্য গার্ডিয়ান, ফঁরাসি সংবাদপত্র ল্যু মন্দ সর্বত্রই ছাপা হয়েছে সুচিত্রা সেনের মৃত্যু সংবাদ।

মহানায়িকা চলে গেলেন, শৈশবের স্মৃতি রয়ে গেল বোলপুরে

বোলপুরের ভূবনডাঙার খোলা মাঠে অনেক স্মৃতি ছোট্ট রমার। বোলপুরের এই গাঁয়েই শৈশব একটা অংশ কেটেছে মহানায়িকার। এখানেই বাড়ি কেনেন তাঁর বাবা করুণাময় দাশগুপ্ত। মহানায়িকার প্রয়ানের পর সেই ছোট্ট রমার স্মৃতিই ফিরে ফিরে আসছে তার সাথীদের মনে।

আইনি জটিলতার গেরোয় রমার শৈশবের ভিটে

সুচিত্রা সেনের পাবনার বাড়িটি এখন জামাতের দখলে। বাড়িটি দখলমুক্ত করে সংগ্রহশালা তৈরির দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। দেশভাগের পর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে এপার বাংলায় চলে আসেন সুচিত্রা সেন। এরপরই অধিগ্রহণ করা হয় পৈত্রিক বাড়িটি।

জীবনের `লাস্ট টেকেও` কৃত্রিমতা চাননি সুচিত্রা

কথা ছিল, শনিবার হয়ত হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হতে পারে সুচিত্রা সেনকে। নিজেও মনে-প্রাণে চাইছিলেন বাড়ি ফিরতে। হল না। ২৬ দিনের লড়াই শেষ হয়ে গেল এক মুহূর্তে। প্রায় সাড়ে তিন দশক নিজেকে লোকচক্ষুর অন্তরালে রাখার পর চির অন্তরালে চলে গেলেন মহানায়িকা।

সুচিত্রার মৃত্যুতে শোকবার্তা প্রধানমন্ত্রীর, ফেসবুকে শোক প্রকাশ মমতার

সুচিত্রা সেনের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। প্রধানমন্ত্রী নিজের বার্তায় জানিয়েছেন, চলচ্চিত্রে নিজের অবদানের মধ্যে দিয়ে লক্ষ লক্ষ ভারতবাসীর হৃদয়ে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছেন সুচিত্রা সেন। দেশের হয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক পুরস্কার জেতে ভারতীয় অভিনেতাদের মধ্যে তাঁকে অন্যতম বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর মতে নিজের বহুমুখী প্রতিভা ও অভিনয়ের ব্যাপ্তির মাধ্যমে সুচিত্রা সেন ভারতীয় তথা বাংলা চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদান রেখে গেছেন।

সুচিত্রা সেনের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ বলিউড, চোখে জল টলিউডের

সুচিত্রা সেনের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করলেন টলিউড- বলিউডের শিল্পী, কলাকুশলীরা। একনজরে দেখে নেব কে কী বললেন--

গানে স্মরণে সুচিত্রা

তিন দশক ধরে বাঙালিকে মোহিত করে রেখেছিল সুচিত্রা সেনের লিপে অসংখ্য রোম্যান্টিক গান। তেমনই কিছু গান নিয়ে ২৪ ঘণ্টার শ্রদ্ধার্ঘ।

মিসেস সেন -উত্তম কুমার জুটি, ম্যাজিক-সম্মোহনের রুপোলি রূপকথা

শুরুটা হয়েছিল ১৯৫২ সালে। নির্মল দের পরিচালনায় সাড়ে চুয়াত্তরের হাত ধরে। বাংলা সিনেমায় এক অবিস্মরণীয় রোম্যান্টিক জুটির উত্থানের সাক্ষী থেকেছিলেন দর্শকরা। উত্তম-সুচিত্রা জুটি। রুপোলী পর্দায় চির প্রেমিক বাঙালির রোম্যান্টিসিজম ভাষা খুঁজে পেল এই জুড়ির হাত ধরে। আর তারপর? তারপরটা ইতিহাস। সোনায় মোড়া সেই ইতিহাস। `৫০, `৬০-এর দশকে পর্দা জুড়ে থাকা সেই জুটির আবেদন কয়েক প্রজন্ম পড়ে একই রকম। এই জুটির জনপ্রিয়তার তুলনা শুধু তাঁরা দু`জনেই। এখনও পর্যন্ত যে জনপ্রিয়তা আর স্টারডাম-এর এই জুটিকে কেন্দ্র করে তৈরি হয়েছিল তার আসে পাশেও পৌঁছাতে পারেনি কেউই।