অবশেষে মুক্তি, আগামিকাল ভারতে ফিরছেন ইরাকে অপহৃত ৪৬জন ভারতীয় নার্স

অবশেষে ইরাকে জঙ্গি কবল থেকে মুক্ত ছেচল্লিশজন ভারতীয় নার্স। গত কয়েকদিন ইরাকের তিকরিত শহরে তাঁদের আটকে রাখা হয়েছিল। বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে দেখা করার পর একথা জানিয়েছেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী ওমেন চান্ডি। ওই নার্সদের ভারতে ফিরিয়ে আনতে আজই ইরাকের এরবিল বিমানবন্দরে বিশেষ বিমান পাঠাচ্ছে ভারত। দিল্লি থেকে বিশেষ বিমানে এরবিল উড়ে যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় ও কেরল সরকারের দুই প্রতিনিধি। জঙ্গিকবল থেকে মুক্ত নার্সদেরও আজ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে এরবিল বিমানবন্দরে। আগামিকাল বিশেষ বিমানে সকাল সাতটা নাগাদ কোচিতে পৌছবেন ওই নার্সরা। গতকালই আইসিস জঙ্গিরা আটকে রাখা ভারতীয় নার্সদের তিকরিত থেকে মসুল শহরে নিয়ে যায়। ইতিমধ্যেই মুক্তি পাওয়া একজন নার্স ফোনে কথা বলেছেন তাঁর মায়ের সঙ্গে। তিনি জানিয়েছেন, মুক্তিপ্রাপ্তরা নিরাপদেই রয়েছেন।

টিম মোদীতে থাকছেন কে কে? সরকার গঠন নিয়ে তৎপরতা তুঙ্গে বিজেপি শিবিরে

সরকার গঠন নিয়ে তত্‍পরতা তুঙ্গে বিজেপি শিবিরে। দলীয় নেতাদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করছেন নরেন্দ্র মোদী। আজ তিনি বৈঠকে বসেছিলেন অরুণ জেটলির সঙ্গে। গতকালই আডবাণীর বাড়িতে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করেন নরেন্দ্র মোদী। সম্ভবত মন্ত্রিসভা গঠন নিয়ে আডবাণীর মতামত নিতে গিয়েছিলেন তিনি। মন্ত্রিসভা গঠনে যে তিনি আডবাণীর মতকে গুরুত্ব দিচ্ছেন, সম্ভবত সেই বার্তাটাও দিতে চেয়েছেন ভাবী প্রধানমন্ত্রী। নতুন সরকার নিয়ে দফায় দফায় আলোচনায় বসছেন অন্য বিজেপি নেতারাও। আজ সকালে দফায় দফায় রাজনাথ সিংয়ের বাড়িতে যান সুষমা স্বরাজ, বরুণ গান্ধী, উমা ভারতীরা।

সাইকেল চালাচ্ছে দাদা, সওয়ারি দু`বছরের সুষমা স্বরাজ

জাতীয় রাজনীতিতে তিনি পরিচিত ব্যক্তিত্ব। সংসদীয় রাজনীতিতেও যথেষ্টই সুনাম তাঁর। দক্ষ হাতে সামলেছেন বিরোধী দলনেত্রীর গুরুদায়িত্ব। সংসদে তাঁর চোখা বাক্যবাণে প্রায়শই বিপর্যস্ত হতে দেখা গিয়েছে ইউপিএ-টুর বিভিন্ন নেতা-মন্ত্রীকে। তিনি বিজেপি নেত্রী সুষমা স্বরাজ। এহেন দাপুটে রাজনীতিকও যে মাঝে মাঝে রাজনীতির গম্ভীর জগতের বাইরে বেরিয়ে স্মৃতিমেদুরতায় আক্রান্ত হন তা বোঝা গেল সুষমা স্বরাজের সদ্য করা টুইটে। টুইটারে একটি ছবি আপলোড করেছেন সুষমা। সাদা-কালো ছবিটি তাঁর দুবছর বয়েসে তোলা। ছবিতে দেখা যাচ্ছে একটি তিনচাকার সাইকেলে তাঁর চেয়ে সামান্য বড় দাদার পিছনে বসে ছোট্ট সুষমা স্বরাজ। আর ছবির সঙ্গে বিজেপি নেত্রীর মন্তব্য, দাদার সঙ্গে---সাইকেলের পিছনে বসে দুবছরের আমি।