রত্নাচল এক্সপ্রেসে আগুন, অশান্তির ভ্রুকুটিকে মাথায় নিয়েই ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে অন্ধ্রপ্রদেশ

রত্নাচল এক্সপ্রেসে আগুন, অশান্তির ভ্রুকুটিকে মাথায় নিয়েই ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে অন্ধ্রপ্রদেশ

অশান্তির ভ্রুকুটিকে মাথায় নিয়েই ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে অন্ধ্রপ্রদেশ। সংরক্ষণের দাবিতে কাপু সম্প্রদায়ের বিক্ষোভে গতকাল রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় অন্ধ্রের তুনি শহর। কয়েকঘণ্টার মধ্যেই গোটা পূর্ব গোদাবরী জেলায় ছড়িয়ে পড়ে বিক্ষোভের আগুন। রত্নাচল এক্সপ্রেসে আগুন ধরিয়ে দেন বিক্ষোভকারীরা। বন্ধ করে দেওয়া হয় ১৬ নম্বর জাতীয় সড়ক। পুলিসের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। আক্রান্ত হয় পুলিস থানাও। বিক্ষোভ মোকাবিলায় আহত হয় পনেরোজন পুলিসকর্মী। স্তব্ধ হয়ে যায় যোগাযোগ ব্যবস্থা। রবিবারই অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডু জানান, কাপু সম্প্রদায়কে সংরক্ষণের আওতায় আনতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ তাঁর সরকার। এরপর বিক্ষোভ উঠলেও, চরম হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন আন্দোলনকারীরা। কাপু নেতা পদ্মনাভন জানিয়েছেন আজকের মধ্যে সরকার এ নিয়ে কোনও ঘোষণা না করলে আমরণ অনশনে বসবেন তিনি।