সাপের রক্ত পান করা বক্সারকে বিজেন্দর বোঝালেন সিং ইজ কিং সাপের রক্ত পান করা বক্সারকে বিজেন্দর বোঝালেন সিং ইজ কিং

পার্থক্য শুধু অপেশাদার আর পেশাদার শব্দটার মধ্যে। কিন্তু বিজেন্দর সিংয়ের পারফরম্যান্সের কোনও পার্থক্য নেই। রিংয়ে একের পর এক গৌরব অর্জন করে চলেছেন ভারতীয় বক্সার বিজেন্দর সিং।

পেশাদারা বক্সিংয়ে টানা তৃতীয় ম্যাচে জয় বিজেন্দরের পেশাদারা বক্সিংয়ে টানা তৃতীয় ম্যাচে জয় বিজেন্দরের

পেশাদার বক্সিংয়ের জগতে ভারতের কেউ নামাটাই যখন কল্পনার বিষয় ছিল কদিন আগেও, সেখানে একের পর এক রূপকথা লিখেই চলেছেন বিজেন্দর সিং। কেরিয়ারের প্রথম তিনটে লড়াইতেই জিতলেন হরিয়ানার এই বক্সার।

২০১৫ সালে ক্রীড়াক্ষেত্রে ভারতকে গর্বিত করলেন যে ৫ ক্রীড়াবিদ ২০১৫ সালে ক্রীড়াক্ষেত্রে ভারতকে গর্বিত করলেন যে ৫ ক্রীড়াবিদ

২০১৫ সালটা ক্রীড়াক্ষেত্রে ভারতীয়দের কাছে বেশ ভালোই গেল। ব্যক্তিগত সাফল্যে অনেক খেলোয়াড়ই এ বছর দেশকে অনেকটা গর্বিত করেছেন। তবে, আমরা আলোচনা করছি, সেরা ৫ জনকে নিয়েই।

 পেশাদার বক্সিংয়ের দুনিয়ায় নাম লিখিয়ে বিপাকে বিজেন্দর সিং, জুটল হাইকোর্টের নোটিস পেশাদার বক্সিংয়ের দুনিয়ায় নাম লিখিয়ে বিপাকে বিজেন্দর সিং, জুটল হাইকোর্টের নোটিস

পেশাদার বক্সিংয়ের দুনিয়ায় নাম লিখিয়ে বিপাকে পড়লেন অলিম্পিক পদকজয়ী ভারতীয় বক্সার বিজেন্দর সিং। আজ তাঁর বিরুদ্ধে নোটিস জারি করল পঞ্জাব ও হরিয়াণা হাইকোর্ট।

বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা রুপো ব্রোঞ্জে ছয়লাপ ভারত বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা রুপো ব্রোঞ্জে ছয়লাপ ভারত

দোহায় বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতীয়দের জয়জয়কার। চ্যাম্পিয়নশিপে চারটি সোনা জিতেছে ভারত। এরই পাশাপাশি একটি রুপো এবং দুটি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছে ভারতীয় বক্সাররা। ভারতের হয়ে সোনা জিতেছেন দেবেন্দ্রো সিং, শিবা থাপা, মনিশ কৌশিক এবং মনোজ কুমার। রুপো জিতেছেন গৌরব ভিদুরি। দেশের হয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন মনদীপ জাঙ্গড়া এবং বিকাশ কৃষাণ। অক্টোবরে দোহাতেই হবে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ। তার আগে দেবেন্দ্রো সিং, মনিশ কৌশিক, মনোজ কুমার, গৌরব ভিদুরি, মনদীপ জাঙ্গড়া, বিকাশ কৃষাণ এবং শিবা থাপাদের নজর কাড়া পারফরম্যান্সে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে পদক পাওয়ার আশা উজ্জ্বল হল ভারতের।

বক্সিংয়ে কালো দিনের শতক পেরিয়ে আজও চ্যাম্পিয়ন  জ্যাক জনসন বক্সিংয়ে কালো দিনের শতক পেরিয়ে আজও চ্যাম্পিয়ন জ্যাক জনসন

প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ হেভিওয়েট বক্সিং চ্যাম্পিয়নের কাছ থেকে খেতাব ছিনিয়ে নেওয়ার চক্রান্তের শতবর্ষে পা। কী চক্রান্ত? কেন চক্রান্ত? কার বিরুদ্ধে চক্রান্ত? তা জানতে হলে চলে যেতে হবে ফ্ল্যাশব্যাকে। ১৯০৮ সাল। টমি বার্নসকে হারিয়ে প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ হিসাবে বিশ্ব হেভিওয়েট বক্সিং চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন জ্যাক জনসন। সেই সময় বর্ণবিদ্বেষ তুঙ্গে ছিল আমেরিকায়। জনসনের খেতাব জয়ের ব্যাপারটি কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না সেদেশের সাদা বর্ণের মানুষ। ফলে দাঙ্গা বাঁধে আমেরিকায়। ২৬ জন কৃষ্ণাঙ্গ মারা যান এই দাঙ্গায়। কৃষ্ণাঙ্গ হয়ে বিশ্ব খেতাব জয়ের অপরাধে বক্সিং থেকে নির্বাসিত করে দেওয়া জনসনকে। কিন্তু তাতেও শান্ত হয়নি আমেরিকার বাসিন্দারা। বর্ণবৈষম্যের তীব্রতা আরও ঝাঁঝালো হয় জনসনের বিশ্ব খেতাব জয়ের ৭ বছর পর।  চক্রান্তের  জাল বুনে ১৯১৫  সালে আরেকটি বিশ্ব হেভিওয়েট বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজন করে শ্বেতাঙ্গরা। সেই লড়াইয়ে মুখোমুখি হয়েছিলেন জনসন এবং জেস উইলফ্রেড। কিন্তু বক্সিংয়ের সঙ্গে ৭ বছর কোনও যোগাযোগ ছিল না জনসনের। পাশাপাশি জনসনের খেতাব কেড়ে নেওয়ার জন্য কিউবার প্রচন্ড গরমকে হাতিয়ার করা হয়েছিল। তরুণ উইলফ্রেডের কাছে সহজেই হেরে যান ৩৭ বছরের জনসন। ছিনিয়ে নেওয়া হয় তাঁর থেকে খেতাব। কৃষ্ণাঙ্গ হওয়ার অপরাধে জ্যাক জনসনের বিরুদ্ধে ৭ বছর ধরে যে চক্রান্তের জাল বোনা হয়েছিল তার শতক পার করল গোটা বিশ্ব।

 সরিতা দেবীর মেডেল প্রত্যাখান সমর্থন যোগ্য নয়: রাহুল দ্রাবিড় সরিতা দেবীর মেডেল প্রত্যাখান সমর্থন যোগ্য নয়: রাহুল দ্রাবিড়

এশিয়াডে মেডেল ফিরিয়ে দিয়ে মোটেও ঠিক করেননি সরিতা দেবী। এমনটাই মনে করছেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেট ক্যাপ্টেন রাহুল দ্রাবিড়।

সাইনার পর এবার পদ্মভূষণের জন্য আবেদন করলেন বক্সার বিজেন্দর সিং সাইনার পর এবার পদ্মভূষণের জন্য আবেদন করলেন বক্সার বিজেন্দর সিং

শাটলার সাইনা নেহওয়ালের পর এবার নিজের জন্য পদ্মভূষণ পুরস্কারের আবেদন জানিয়েছেন বিশ্বের প্রাক্তন পয়লা নম্বর মিডলওয়েট বক্সার বিজেন্দর সিং।

বক্সিং ইন্ডিয়ার গাফিলতির জেরে প্রশ্নের মুখে বিজেন্দরদের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার বক্সিং ইন্ডিয়ার গাফিলতির জেরে প্রশ্নের মুখে বিজেন্দরদের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার

সদ্য সমাপ্ত কমনওয়েলথে বক্সিং থেকে ভারতের ঝুলিতে এসেছে পাঁচটি পদক। তবুও ভবিষ্যত অন্ধকার ভারতীয় বক্সারদের। আগামী দিনে বিজেন্দরদের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টগুলিতে অংশগ্রহণ প্রশ্নের মুখে। তার কারণ বক্সিং ইন্ডিয়ার গাফিলতি।

মেরি কমের আত্মজীবনী উদ্বোধন করলেন বিগ বি

অলিম্পিকে সোনা হারিয়ে দেশবাসীর চোখে জল এনে দিয়েছিলেন মেরি কম। ব্রোঞ্জ পদকের সাক্ষী ছিল শত বঞ্চনার ইতিহাস। সেই সব বঞ্চনার কাহিনিই এবার বইয়ের পাতায়। মেরি কমের আত্মজীবনীর উদ্বোধন করলেন অমিতাভ বচ্চন।

ক্রীড়ামন্ত্রকের অনুরোধ সত্ত্বেও বিজেন্দরের ড্রাগ পরীক্ষায় নারাজ নাডা

কেন্দ্রীয় ক্রীড়া মন্ত্রকের অনুরোধ সত্বেও অলিম্পিক ব্রোঞ্জ পদক জয়ী বক্সার বিজেন্দর সিংয়ের হেরোইন টেস্ট নিতে অস্বীকার করল জাতীয় ড্রাগ বিরোধী সংস্থা (নাডা)। যদিও কিছুদিন আগে নাডার ডিরেক্টর জেনেরাল মুকুল চ্যাটার্জী জানিয়েছিলেন হেরোইন পারফর্মেন্স বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। বিজেন্দর যদি দোষী সবস্ত হন সেক্ষেত্রে তিনি শাস্তি পাবেন বলেও জানিয়েছিলেন মুকুল বাবু। কিন্তু তার পর নাডা নিজের দের এই অবস্থান থেকে সরে আসায় পুরো ব্যাপারটা নিয়েই ধোঁয়াশা তৈরী হয়েছে।

বিজেন্দরের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ ক্রীড়ামন্ত্রকের

কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রক জাতীয় মাদক প্রতিরোধকারী সংস্থাকে বিজেন্দর সিংয়ের বিরুদ্ধে তদন্ত চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিল। ড্রাগ বিতর্কে গুরুতর বিপাকে পড়লেন অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ জয়ী বক্সার বিজেন্দর সিং। পাঞ্জাব পুলিস দাবি করেছে কানাডার ড্রাগ বিক্রেতা অনুপ সিং কাহলনের সঙ্গে বিজেন্দরের নিয়মিত যোগাযোগের প্রামাণ্য তথ্য তাদের কাছে আছে। 

আইএবিএফের সঙ্গেই কেন্দ্র নির্বাসিত করল তীরন্দাজি কমিটিকেও

চৌতলার পদত্যাগেও চিঁড়ে ভিজল না। ভারতীয় অপেশাদার বক্সিং অ্যাসোসিয়েশনকে নির্বাসিত করল কেন্দ্রীয় সরকার।এর সঙ্গেই নির্বাসিত হল ভারতীয় তীরন্দাজি সংস্থাও। আক্ষরিক অর্থেই ভারতীয় ক্রীড়া জগতের অন্যতম কালো দিন হিসাবে চিহ্নিত হয়ে রইল আজকের দিনটা।কিছুক্ষণ আগেই  ভারতীয় অপেশাদার বক্সিং ফেডারেশনের চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেন  অভয় সিং চৌতলা। তিনি জানান ''আইএবিএফ পুনঃনির্বাচনের জন্য প্রস্তুত, আমিও আমার পদ থেকে সরে দাঁড়াতে রাজি আছি।'' 

সোনা অধরা, ব্রোঞ্জ জিতে মালেশ্বরীর সঙ্গে ইতিহাসের পাতায় মেরি

সোনার দৌড় থেমে গেল মেরি কমের। লন্ডন অলিম্পিকে মহিলাদের বক্সিংয়ে ৫১ কেজি(ফ্লাইওয়েট) বিভাগের সেমিফাইনালে ব্রিটেনের নিকোলা অ্যাডামসের কাছে হেরে গেলেন মণিপুরের মেয়ে। অলিম্পিকে এবারই চালু হয়েছে মহিলাদের বক্সিং ইভেন্টে। প্রথমবারেই পদকজয়ীদের তালিকায় নাম তুলে কর্ণম মালেশ্বরীর সঙ্গে ইতিহাসের পাতায় ঢুকে গেলেন মেরি।

কঠিন সংগ্রাম পেরিয়ে ইতিহাস মেরির

মণিপুরের অখ্যাত গ্রাম থেকে শুরু হয়েছিল যে যাত্রা, তা আজ পূর্ণতা পেল। সোনাজয়ের লক্ষ্যে পেরোতে পারলেন না ঠিকই, কিন্তু অলিম্পিকের ইতিহাসে সোনার অক্ষরেই লেখা থাকবে মেরি কমের নাম। অলিম্পিকের প্রথম মহিলাদের বক্সিংয়ে ব্রোঞ্জ জিতলেন তিনি।