ইশরাত জাহান মামলায় বিতর্কে জড়ালেন পি চিদম্বরম

ইশরাত জাহান মামলায় বিতর্কে জড়ালেন পি চিদম্বরম

ইশরাত জাহান মামলায় বিতর্কে জড়ালেন পি চিদম্বরম। তাঁকে বিপাকে ফেললেন তাঁর আমলেরই স্বরাষ্ট্রসচিব জে কে পিল্লাই। পিল্লাইয়ের চাঞ্চল্যকর অভিযোগ, তাঁকে এড়িয়ে মামলার হলফনামার বয়ান বদলেছিলেন তত্‍কালীন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পি চিদম্বরম।  

 তসলিমার প্রশ্নে বিদ্ধ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য থেকে বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তসলিমার প্রশ্নে বিদ্ধ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য থেকে বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

স্যাটানিক ভার্সেস নিষিদ্ধ করা নিয়ে চিদম্বরম ভুল স্বীকারের পরেই এবার মুখ খুললেন তসলিমা নাসরিন। ‘দ্বিখণ্ডিত’ নিষিদ্ধকরণ নিয়ে এবার টুইটে তত্কালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে সরাসরি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন তসলিমা। প্রায় ১২ বছর আগে পশ্চিমবঙ্গে নিষিদ্ধ করা হয় তসলিমার লেখা বই ‘দ্বিখণ্ডিত।’ সেই স্মৃতি উস্কে টুইটারে তসলিমার প্রশ্ন: ‘‘পি চিদম্বরম বলেছেন, ‘স্যাটানিক ভার্সেস’ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত ভুল ছিল। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য কবে বলবেন আমার বই ‘দ্বিখণ্ডিত’ নিষিদ্ধ করাও ভুল ছিল?’’

''আজ রাজনীতির দিন নয়,  আগামিকাল এই নিয়ে কথা বলবো '' মোদীর কটাক্ষের জবাবে উত্তর রাহুলের ''আজ রাজনীতির দিন নয়, আগামিকাল এই নিয়ে কথা বলবো '' মোদীর কটাক্ষের জবাবে উত্তর রাহুলের

আজ ৬৯তম স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লায় জাতীর উদ্দেশ্যে ভাষণে দেশে বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্যের প্রসঙ্গ বারবার টেনে এনেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। জানিয়েছেন এ দেশে সাম্প্রদায়িকতা আর জাতিভেদ প্রথার ঠাঁই নেই। তাঁর শাসনকালে ১৫ মাস সরকার দুর্নীতির ঘুণপোকা তাড়িয়েছে সরকার। দাবি করেছেন মোদী।

সারদাকাণ্ডে মমতাকে একযোগে আক্রমণ চিদম্বরম, অভিষেক মনু সিংভির

সারদাকাণ্ডে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে তুলোধনা করল কংগ্রেস। দিল্লিতে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম প্রশ্ন তুললেন, কেন সারদায় ক্ষতিগ্রস্তদের থেকে অভিযুক্তদের নিয়ে বেশি চিন্তিত মুখ্যমন্ত্রী? আর কংগ্রেস মুখপাত্র অভিষেক মনু সিংভির মতে, এখন টিএমসি মানে তৃণমূল মডেল চিট।

`খাঁচা বন্দি তোতা`-র ৫০ বছরের জন্মদিনে নীতিবার্তা অর্থমন্ত্রীর, সিবিআইকে পরিষ্কার বললেন সরকারের কাজে নাক গলিও না

প্রধানমন্ত্রীর পর এবার অর্থমন্ত্রীর নিশানায় সিবিআই। সিবিআইকে কাজের লক্ষ্মণরেখা নিয়ে সতর্ক করলেন অর্থমন্ত্রী। সরকারের নীতির সমালোচনা নয়, তদন্তই যে সিবিআইয়ের প্রধান কাজ তা স্মরণ করিয়ে দিলেন পি চিদম্বরম। প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রী সিবিআইকে নিশানা করায় সরকারকে তোপ দেগেছে বিজেপি। বিজেপির দাবি, সিবিআইয়ের কাজে সরকারের নাক না গলানোই উচিত। চিদম্বরমের আরও বললেন, সিবিআই খাঁচাবন্দি তোতা বা কংগ্রেস ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন নয়৷

মোদীই আসল চ্যালেঞ্জার, প্রকাশ্যেই মেনে নিলেন চিদাম্বরম, সঙ্গে রাহুল গান্ধীকে দিলেন পরামর্শ

রাজনীতিতে অনেক কিছুই সামনে বলার উপায় থাকে না, কিন্তু চাপ বাড়লে কোনও কোনও সময় বলতে বাধ্য হতে হয়। সেই রকমই কি কিছু হল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের। রবিবার গোয়ার `থিঙ্ক ফেস্ট`নামের অনুষ্ঠানে চিদম্বরম বললেন, "মানতে বাধা নেই যে রাজনৈতিক দল হিসাবে আমাদের কাছে মোদী চ্যালেঞ্জার। আমার ওনাকে অগ্রাহ্য করতে পারি না। ওনাকে দেশের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি প্রধান নেতা হিসাবে তুলে ধরেছে, সুতরাং উনি যাই বলুন না কেন মোদীকে আমাদের গুরুত্ব দিতেই হবে।"

বৈমাত্রিক আচরণের অভিযোগ নস্যাৎ চিদম্বরমের, পাল্টা আক্রমণ ডেরেকের

পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে বৈমাত্রিক আচরণ করছে না কেন্দ্রীয় সরকার। রাজ্যের অভিযোগ উড়িয়ে আজ একথা বলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। তিনি জানিয়েছেন, ঋণ মকুবের যে আর্জি কেন্দ্রের কাছে জানিয়েছে রাজ্য, তা বিবেচনা করার জন্য বলা হয়েছে অর্থ কমিশনকে। অন্যদিকে, ঋণগ্রস্ত রাজ্যগুলিকে সাহায্যের ইস্যুতে রাজনৈতিক খেলা খেলছেন চিদম্বরম। এভাবেই পাল্টা আক্রমণে গেলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন। তিনি বলেন, দ্বাদশ অর্থ কমিশনের রিপোর্টে ঋণগ্রস্ত রাজ্যগুলির জন্য বিশেষ ব্যবস্থার কথা উল্লেখ করা রয়েছে। অথচ সেই সবের উল্লেখ না করে অহেতুক বিতর্ক তৈরি করছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

সংশোধনী আনতে ব্যর্থ হওয়ায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ ডিএমকের

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রস্তাবে সংশোধনী আনতে ব্যর্থ হওয়ায় কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছে ডিএমকে। তাদের অভিযোগ, ভারত যে প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে তা লঘু ও দুর্বল। ভারতের কড়া অবস্থানের দাবিতে বিক্ষোভের আঁচ ছড়িয়েছে তামিলনাড়ুর বিভিন্ন এলাকায়। শ্রীলঙ্কা বিরোধী তামিল ক্ষোভের আঁচ দিল্লির দরবারে পৌঁছেছিল আগেই। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রসঙ্ঘে যখন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রস্তাব পেশ হচ্ছে তখন সেই ক্ষোভেরই বহিঃপ্রকাশ দেখা গিয়েছে চেন্নাইয়ের রাজপথে।

আজই রাষ্ট্রসংঘে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি

হাতে মাত্র কয়েকটা ঘণ্টা। আজই রাষ্ট্রসংঘে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি। তার আগেই ভারতীয় সংসদে পাস করিয়ে নিতে হবে সেই প্রস্তাবের সংশোধনী। যদিও এ নিয়ে সর্বদল বৈঠকে ঐকমত্য হয়নি। মতানৈক্য রয়েছে সরকারের অন্দরেও। ডিএমকে সমর্থন প্রত্যাহার করার পর অভূতপূর্ব সঙ্কটে কেন্দ্রীয় সরকার।

শ্রীলঙ্কা গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার সেনাপ্রধানের

এলটিটিই নির্মূল অপারেশনের সময় শ্রীলঙ্কা সেনার বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার করলেন তত্কালীন সেনাপ্রধান শরথ ফনসেকা। বিষয়টি নিয়ে তদন্তের মুখোমুখি হতেও প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন তিনি। এ দিকে, আজই রাষ্ট্রসংঘে পেশ হচ্ছে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রস্তাব।

দলগুলির আপত্তিতে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাব পাস করানো যাবে না: চিদাম্বরম

অধিকাংশ রাজনৈতিক দলের আপত্তি থাকায় সংসদে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাব পাস করানো যাবে না। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম আজ এই কথা জানিয়েছেন। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, ডিএমকে সমর্থন প্রত্যাহারের পরেও, তাদের দাবি মেনে সংসদে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাব পাসে উদ্যোগী হয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার।

ভর্তুকির অর্থ সরাসরি গরীবদের হাতে, ঘোষণা চিদম্বরমের

জনবিরোধী তকমা ঝেড়ে ফেলে জনমোহিনী হয়ে ওঠার কৌশল শুরু করে দিল কেন্দ্র সরকার। আর কেন্দ্র সরকারের এই ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াইয়ে নেওয়া হল গরিবদের হাতে সরাসরি ভর্তুকির অর্থ তুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করল। খাদ্য,জ্বালানি, সারে ভর্তুকির নিয়ম বদলাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। আগামী বছরের প্রথম দিন থেকেই এই ভর্তুকি নগদে পাবেন গরিব মানুষ। আধার কার্ডের মাধ্যমে সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে জমা পড়বে  টাকা।  ২৯টি কেন্দ্রীয় প্রকল্পে চালু হচ্ছে এই ব্যবস্থা।

মমতাকে আক্রমণের পথে এবার চিদাম্বরম

নাম না করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। সোমবার চিদম্বরম বলেন, কোনও রাজ্যে খুচরো ব্যবসায় বিদেশি বিনিয়োগ চালু হবে কিনা

তা অন্য রাজ্য ঠিক করে দিতে পারে না। এফডিআইয়ের বিরোধিতাকে অর্থহীন বলে মন্তব্য করেন চিদম্বরম।

রাজ্যের জন্য সাহায্য চেয়ে ফের কেন্দ্রের দ্বারস্থ হচ্ছেন অমিত মিত্র

রাজ্যের জন্য বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ আদায়ে আরও একবার কেন্দ্রের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছে রাজ্য। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের সঙ্গে দেখা করতে দিল্লি যাচ্ছেন অমিত মিত্র। আগামী ৬ এবং ৭সেপ্টেম্বর

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন তিনি। গত মাসে দিল্লি গিয়ে প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেসময়ই অমিত মিত্রের সঙ্গে কেন্দ্রীয়

অর্থমন্ত্রীর বৈঠকের কথা ঠিক হয়।

কয়লা দুর্নীতি কাণ্ডে সর্বদলের দাবি মুখ্যমন্ত্রীর

অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে জাতীয় সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়েছে, রাজ্যের সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়নি। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরমের সঙ্গে বৈঠকের একথা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে এসেছিলেন বলে এদিন জানান মুখ্যমন্ত্রী।

কলকাতায় দাঁড়িয়েই রাজ্যকে আক্রমণ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

খোদ কলকাতায় দাঁড়িয়ে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পি চিদম্বরম। বৃহস্পতিবার বণিকসভার এক অনুষ্ঠানে রাজ্যের কড়া সমালোচনা করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বলেন, রাজ্যে যে হারে রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা বেড়ে চলেছে, তা কখনই সুস্থ গণতন্ত্রের পরিচয় নয়।