ব্রেনের মৃত্যু ঘটার ৭ সপ্তাহ পর শিশুর জন্ম দিলেন মা

ব্রেনের মৃত্যু ঘটার ৭ সপ্তাহ পর শিশুর জন্ম দিলেন মা

কোমা। ডাক্তারি পরিভাষায় এক গভীর ঘুম। এই ঘুমের মধ্যে মানুষের কোনওরকম অনুভূতি থাকে না। শরীরে প্রাণ থাকলেও সাময়িক ভাবে মস্তিষ্কের মৃত্যু ঘটে। কোমায় আচ্ছন্ন মানুষ মৃত মানুষের সমতুল্যই হয়। এই অবস্থায় মিরাকেল ঘটিয়ে এক মা জন্ম দিলেন সন্তানের। ডাক্তারি বিদ্যার এ এক আসাধারণ সাফল্য।

সন্তানের স্পর্শ, কান্নায় কোমা থেকে ফিরে এলেন মা সন্তানের স্পর্শ, কান্নায় কোমা থেকে ফিরে এলেন মা

দিনটা ছিল গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম শনিবার। ভোর হওয়ারও আগে নর্থ ক্যারোলিনা হাসপাতালে ছুটে এসেছিলেন জেরেমি কলে। সন্তানের জন্ম দিতে দিয়ে কোমায় চলে গিয়েছেন স্ত্রী শেলি।

প্রতিবাদ নয়, সাধারণ মারপিটে মৃত্যু হয়েছে অরূপ ভান্ডারির! তত্ত্ব পুলিসের প্রতিবাদ নয়, সাধারণ মারপিটে মৃত্যু হয়েছে অরূপ ভান্ডারির! তত্ত্ব পুলিসের

অপরাধীদের কি আড়াল করতে শুরু করে দিল পুলিস? সালকিয়ার পাড়ায় সবাই যখন বলছেন, অরূপ ভাণ্ডারিকে মরতে হল শ্লীলতাহানির প্রতিবাদ করতে গিয়ে, তখন আচমকাই উল্টো সুর পুলিসের গলায়। পাড়ায় সাধারণ মারপিটে মৃত্যু হয়েছে অরূপের। এই তত্ত্বই এখন খাড়া করার চেষ্টায় পুলিস।  

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদে কোমায় থাকা হাওড়ার যুবক অত্যন্ত সঙ্কটজনক ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদে কোমায় থাকা হাওড়ার যুবক অত্যন্ত সঙ্কটজনক

হাওড়ার সালকিয়ার প্রতিবাদী যুবক অরূপ ভান্ডারির শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক। বুধবার সরস্বতী পুজোর বিসর্জনের সময় তাঁকে নির্মমভাবে মারধর করেন স্থানীয় একটি ক্লাবের সদস্যরা। ওই ক্লাবের সদস্যরা মেয়েদ

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করে কোমায় মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন হাওড়ার যুবক ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করে কোমায় মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন হাওড়ার যুবক

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করেছিলেন। মাশুল হিসেবে এখন হাসপাতালের বিছানায় মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন সেই যুবক। এখন তিনি কোমায় আচ্ছন্ন। যুবকের নাম অরূপ ভাণ্ডারি।  

কোমায় জসনবন্ত সিং, অবস্থা সংকটজনক কোমায় জসনবন্ত সিং, অবস্থা সংকটজনক

প্রাক্তন বিজেপি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জসবন্ত সিংয়ের অবস্থা ক্রমশ সংকটজনক হয়ে উঠছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন কোমায় রয়েছেন জসবন্ত সিং। দিল্লির আর্মি হাসপাতালের আই সি ইউ তে রাখা হয়েছে তাঁকে। গতকাল রাতে বাড়িতে পড়ে গিয়ে মাথায় গভীর চোট পান তিনি। তাঁকে দেখতে হাসপাতালে যান কংগ্রেস সহসভাপতি রাহুল গান্ধী।

মাথায় চোট পেয়ে কোমায় জসবন্ত সিং, অবস্থা সঙ্কটজনক মাথায় চোট পেয়ে কোমায় জসবন্ত সিং, অবস্থা সঙ্কটজনক

গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি প্রাক্তন বিজেপি নেতা জসবন্ত সিং। পড়ে গিয়ে মাথায় চোট পান তিনি। তারপর থেকেই কোমায় রয়েছেন জসবন্ত সিং। আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফারাল হাসপাতালের আইসিইউতে রাখা হয়েছ

বিপদমুক্ত না হলেও সাড়া মিলছে শুম্যাখার

নীরবে লড়াই করছেন নিজের সঙ্গে। গতি যার কাছে হার মানে, কিংবদন্তী ফর্মুলা ওয়ান চ্যাম্পিয়ন মাইকেল শুম্যাখার কিভাবে হার মানবে জীবনের কাছে! প্রশ্ন হয়ত সবার কাছে। আর সেই প্রশ্নের ক্ষীণ উত্তরে দিশা শোনা গেল শুম্যাখার ম্যানেজার স্যাবাইন কেহমের মুখে। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর শারীরিক অবস্থা খুব সামান্য উন্নতি হয়েছে।

এখনও জীবনের জন্য যুদ্ধ করছেন কোমাচ্ছন্ন কিংবদন্তী শুমাখার, ডাক্তাররা ৪৮ ঘণ্টার সময়সীমা দিলেন

ফর্মুলা ওয়ান কিংবদন্তী মাইকেল শুমাখারের অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক। ডাক্তাররা জানিয়েছেন পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা তাঁর ভবিষ্যৎ নির্ধারিত করে দেবে। শুমাখারের মস্তিষ্কে জরুরি অবস্থায় অস্ত্রপচার করা হবে। এই অপরেশন তাঁর জীবন বাঁচাতে পারে নাকি এই প্রবাদপ্রতিম ক্রীড়াবিদের মস্তিষ্কে দীর্ঘস্থায়ী ক্ষত তৈরি হবে তা নিয়েই আশঙ্কার প্রহর গুনছে গোটা বিশ্ব। প্রতি ঘণ্টায় তাঁর অবস্থার পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

স্কি করতে গিয়ে মস্তিষ্কে গুরুতর আঘাত পেলেন মাইকেল শুমাখার, ফ্রান্সের হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে যুদ্ধ করছেন জার্মান এই ফর্মুলাওয়ান কিংবদন্তী

সাতবারের ফর্মুলা ওয়ান চ্যাম্পিয়ন মাইকেল শুমাখার এখন যুদ্ধ করছেন মৃত্যুর সঙ্গে। রবিবার ফ্রেঞ্চ আলপস-এ স্কাই ড্রাইভিং করার সময় মারাত্মক দুর্ঘটনার সম্মুখীন হন এই প্রবাদপ্রতিম ক্রীড়াবিদ। হাসপাতাল সূত্রে খবর বর্তমানে কোমাতে রয়েছেন শুমাখার। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সরবজিতের শেষকৃত্য সম্পন্ন

পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন হল সরবজিৎ সিংয়ের শেষকৃত্য। নিজের গ্রামে তাঁর অন্ত্যেষ্টিতে সামিল হয়েছিলেন রাহুল গান্ধী, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী প্রকাশ সিং বাদল। তাঁর শেষ যাত্রায় সরবজিতকে গার্ড অফ অনার দেওয়া হয়।

জীবনযুদ্ধে হেরে দেশে ফিরল সরবজিতের নিথর দেহ

ছদিনের লড়াই শেষ। নৃশংসতার কাছে শেষ পর্যন্ত হার মানলেন সরবজিত্ সিং। ভারতীয় সময় রাত দেড়টা নাগাদ লাহোরের জিন্না হাসপাতালে মৃত্যু হয় সরবজিত্ সিংয়ের। তাঁর দেহ জিন্না হাসপাতালের মর্গে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য তৈরি হয়েছে বিশেষ মেডিক্যাল টিম। সরবজিত সিংয়ের দেহ তাঁদের হাতে তুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে তাঁর পরিবার। সরবজিতকে শহীদের স্বীকৃতি দেওয়ারও দাবি জানিয়েছে তাঁরা। একইসঙ্গে তাঁদের দাবি, পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সরবজিত সিংয়ের শেষকৃত্য হোক। 

সরবজিতের মৃত্যুতে দুঃখপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর, ক্ষোভে ফুটছে দেশ

পাকিস্তানে সরবজিত সিংয়ের মৃত্যুর ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। একইসঙ্গে এই ঘটনায় পাকিস্তানের ভূমিকার কড়া সমালোচনা করেছেন তিনি। অন্যদিকে, লাহোরের হাসপাতালে সরবজিতের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ক্ষোভে ফুঁসছে সারা দেশ। সাধারণ মানুষের বিক্ষোভের নিশানায় পাকিস্তানের সঙ্গে সঙ্গেই ভারত সরকারও।

সারবজিতের দেশে ফেরাতে চাইল ভারত

পাকিস্তানের জেলে আক্রান্ত বন্দি সরবজিত সিংকে চিকিত্সার জন্য বিদেশে নিয়ে যাওয়া হবে না। জিন্না হাসপাতালে ভর্তি সরবজিতের সিংয়ের অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক হওয়ায়, তাঁর পরিবারের তরফে চিকিত্সার জন্য তাঁকে ভারতে নিয়ে আসার আবেদন জানানো হয়। পরিবারের আবেদন খতিয়ে দেখতে এরপরই চার সদস্যের বিশেষজ্ঞ চিকিত্সককে নিয়ে প্যানেল গড়ে পাক সরকার। চিকিত্সাকর জন্য পাকিস্তানের বাইরে সরবজিত সিংকে নিয়ে যাওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই বলেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ওই প্যানেল।

কোমাচ্ছন্ন সরবজিতের সঙ্গে দেখা করলেন পরিবারের সদস্যরা

এখনও সঙ্কট কাটেনি সরবজিত সিংয়ের। গভীর কোমায় আচ্ছন্ন রয়েছেন তিনি। লাহোরের জিন্না হাসপাতালে ভর্তি সরবজিতকে দেখতে আজ রওনা দিচ্ছে তাঁর পরিবার।