এক স্বপ্নের বাস্তবায়ন, এক স্বপ্নের অপমৃত্যু

একটি স্বপ্নের বাস্তবায়ন। আরেকটির অপমৃত্যু। একইসঙ্গে দুটি চরম বিপরীত অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হলেন উত্তরবঙ্গের মানুষ। একদিকে, রাজ্যের কুড়িতম জেলা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করল আলিপুরদুয়ার। অন্যদিকে, রায়গঞ্জের আশা-আকাঙ্খায় ইতি টেনে প্রস্তাবিত এইমস পাড়ি দিল কল্যাণীতে।

গার্ডেনরিচ কাণ্ডে সিবিআই তদন্তের দাবি কংগ্রেসের

গার্ডেনরিচ কাণ্ডে সিবিআই তদন্তের দাবি জানাল প্রদেশ কংগ্রেস। আজ নিহত এসআই তাপস চৌধুরীর বাড়িতে গিয়ে এই দাবি জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দীপা দাশমুন্সি। একইসঙ্গে গোটা ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রীর ভূমিকারও তীব্র সমালোচনা করেন তিনি। প্রাক্তন নগরপাল আরকে পচনন্দাকে অপসারণ করে আসলে তৃণমূলের নেতা-মন্ত্রীকে আড়াল করার চেষ্টা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন দীপা দাশমুন্সি। এবিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীও তাঁর দায়িত্ব এড়াতে পারেন না বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

অসৌজন্যের রাজনীতি এবার চন্দ্রিমার

রাজনীতির আঙিনায় ফের অসৌজন্যের নজির। বিরোধীদের কড়াভাষায় আক্রমণ করতে গিয়ে আবারও শালীনতার গণ্ডি

পেরিয়ে গেলেন তৃণমূলের মন্ত্রী সাংসদরা। বিরোধী দলনেতাকে কটাক্ষ করতে গিয়ে তাঁকে ঘুঙুর পরিয়ে নাচানোর কথা

বললেন রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। কেন্দ্রীয় নগরোন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী দীপা দাশমুন্সিও রেহাই পেলেন না

চন্দ্রিমাদেবীর ব্যক্তিগত আক্রমণ থেকে। আগেই সিপিআইএম নেতাদের সঙ্গে ফের বিষধর সাপের তুলনা করেছিলেন

তৃণমূল সাংসদ শুভেন্দু অধিকারী।

মন্ত্রিসভায় বাংলা থেকে ক'জন?

চলতি  সপ্তাহেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার রদবদল করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। মঙ্গলবার দুপুরে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে একঘণ্টা বৈঠক করেন

প্রধানমন্ত্রী। বিকেলে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বৈঠক হয় কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীরও। এপর্যন্ত যা খবর বাংলা থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় জায়গা পেতে পারেন প্রদীপ ভট্টাচার্য,

দীপা দাশমুন্সি ও অধীর চৌধুরী।