অর্থনীতির তত্ত্বকে চ্যালেঞ্জ করছে ইলিশ

অর্থনীতির তত্ত্বকে চ্যালেঞ্জ করছে ইলিশ

 অর্থনীতির যোগান-চাহিদা তত্ত্বকে প্রশ্নের মুখে ফেলেছে রাজ্যের ইলিশ বাজার। এই বর্ষায় রাজ্যের ইলিশ বাজারে যোগানের অভাব নেই। চাহিদা কম, এমনটাও বলা ভুল। তবু, যোগান বেশি এই আহ্লাদেই, কম দামে ইলিশ খাওয়ার আশা করতেই পারে বাঙালি। কিন্তু সেই সাধ পূরণ হচ্ছে না। দর বড় বেশি। কারণটাও বোঝা দায়।

চামড়ার গুঁড়ো খেয়ে বড় হচ্ছে ভেড়ির মাছ! দেখা দিচ্ছে ক্যানসারের আশঙ্কা চামড়ার গুঁড়ো খেয়ে বড় হচ্ছে ভেড়ির মাছ! দেখা দিচ্ছে ক্যানসারের আশঙ্কা

চামড়ার গুঁড়ো খেয়ে বড় হচ্ছে ভেড়ির মাছ। ফলে শরীরে ঢুকছে বিষাক্ত শিশা। প্রোটিনের পরিমাণ বেড়ে মাছের শরীরে তৈরি হচ্ছে ক্রোমিয়াম। ঝালে-ঝোলে সেই বিষ ঢুকছে মানুষের শরীরে। বাড়ছে চামড়ার রোগ। দেখা দিচ্ছে ক্যানসারের আশঙ্কাও।

পরিবেশে 'বিষ'! মাছের মড়ক রবীন্দ্র সরোবরে পরিবেশে 'বিষ'! মাছের মড়ক রবীন্দ্র সরোবরে

  শয়ে শয়ে মৃত মাছের ঝাঁক ভেসে উঠল রবীন্দ্র সরোবরে। ঘটনায় চাঞ্চল্য চরমে।

অনেকটা ইলিশের মতনই, নতুন মাছ আসতে চলেছে বাঙালির পাতে! অনেকটা ইলিশের মতনই, নতুন মাছ আসতে চলেছে বাঙালির পাতে!

  জামাই ষষ্ঠিতে হল না তো কী হয়েছে?  বাঙালির শ্রেষ্ঠ উত্‍সব শারোদত্‍সব এখনও বাকি আছে। সেই পুজোর আগেই এবার বাঙালির পাতে পড়তে চলেছে নতুন মাছ। সৌজন্যে রাজ্যের মত্‍স উন্নয়ন নিগম।

যৌনতার এত সুবিধা আর কারও নেই! আপনি যদি পেতেন যৌনতার এত সুবিধা আর কারও নেই! আপনি যদি পেতেন

যৌনতা ছাড়া জীবন হয় নাকি! মানুষ কেন শুধু, পৃথিবীর সব প্রাণীরই অন্তত বংশবৃদ্ধির জন্য তো যৌনতা লাগবেই। কিন্তু সব প্রাণীরই যৌনতার জন্য একজন বিপরীত লিঙ্গের সঙ্গীর প্রয়োজন হয়। তেমনটা না পেলে, সে যৌনতার স্বাদ পাবে কীভাবে, অন্তত বংশবৃদ্ধির ক্ষেত্রে।

হলফ করে বলতে পারি এমন মাছ আপনি দেখেননি! হলফ করে বলতে পারি এমন মাছ আপনি দেখেননি!

আমরা সাধারণত জানি মাছের চোখের পাতা নেই, তারা জলের নিচেও চোখ খুলে সাঁতার কাটতে পারে। কিন্তু এটা কি জানেন অনেক মাছের আবার চোখও নেই। অথচ তারা শুধু জলে সাঁতার কাটাই নয়, দেওয়াল বেয়েও উঠতে পারে!

আজব মাছ বৃষ্টি! আজব মাছ বৃষ্টি!

বৃষ্টি হলে ছেলেবেলায় আমরা সবাই মজা করেছি। বৃষ্টিতে ভেজা, কাদা মাখা, মাছ ধরা এরকম অনেক কাজই আমরা সবাই ছেলেবেলায় করেছি। এরকম বৃষ্টিতে ভিজে মজা করার দৃশ্য দেখা গেল কুইন্সল্যান্ডে।

বড় জলাধারের সংখ্যা বাড়ায় বাড়ছে মাছের উৎপাদন বড় জলাধারের সংখ্যা বাড়ায় বাড়ছে মাছের উৎপাদন

রাজ্যে একসময় মাছ চাষের কোনও বড় জলাশয় ছিল না। ফলে সমস্যায় পড়তে হত মাছ চাষীদের। কিন্তু গত চার বছরে সেই সমস্যার সমাধান হয়েছে। এছাড়া সরকার থেকে মাছের পোনা বিতরণ করায় বেড়েছে মাছের উৎপাদনও।

মানুষের কাছে খাবার চাইতে এলো মাছ!!! মানুষের কাছে খাবার চাইতে এলো মাছ!!!

খিদে পেলে মানুষ কিনা করে, আর জন্তু করলেই দোষ? তারও তো খিদে পায়। তাই এবার মাছ খাবার চাইতে উঠে এলো ডাঙায়!!

 জিরো ফিগারে পৌছতে চান? তাহলে কী খাবেন আর কী খাবেন না? জিরো ফিগারে পৌছতে চান? তাহলে কী খাবেন আর কী খাবেন না?

ওয়েব ডেস্ক: স্লিম অ্যান্ড ট্রিম। এখন এটাই তো ফ্যাশন। জিরো ফিগারে পৌছতে চান? তাহলে কী খাবেন আর কী খাবেন না? আসুন দেখে নেওয়া যাক।

রাজ্যে আদিবাসী প্রধান এলাকাগুলির উন্নয়নে উদ্যোগী রাজ্য রাজ্যে আদিবাসী প্রধান এলাকাগুলির উন্নয়নে উদ্যোগী রাজ্য

রাজ্যে আদিবাসী প্রধান এলাকাগুলির উন্নয়নে উদ্যোগী রাজ্য। তফশিলি উপজাতিভুক্ত ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য স্কলারশিপের ব্যবস্থা সহ একাধিক প্রকল্প চালু করেছে সরকার। শুরু হয়েছে শিক্ষাশ্রী প্রকল্প।

গত চার বছরে রাজ্যে তৈরি হয়েছে ১৫টি নতুন বিশ্ববিদ্যালয়, ৪৬টি নতুন কলেজ গত চার বছরে রাজ্যে তৈরি হয়েছে ১৫টি নতুন বিশ্ববিদ্যালয়, ৪৬টি নতুন কলেজ

উচ্চশিক্ষা কি শুধুই থাকবে নির্দিষ্ট কিছু মানুষের মধ্যে? নাকি এটা ছড়িয়ে দিতে হবে সকলের মধ্যে। গত কয়েক দশকে এ প্রশ্ন মাঝে মাঝেই মাথা চাড়া দিয়ে উঠছে। হাতে গোনা কয়েকটা বিশ্ববিদ্যালয়, আর সেখানেই পড়ার জন্য ভিড়, চান্স না পাওয়ার আক্ষেপ। এই সবকিছু কাটাতে তাই শুরু থেকেই নতুন বিশ্ববিদ্যালয় গড়ার তাগিদ বড় হয়ে ওঠে সরকারের কাছে। যার ফসল, গত চার বছরে ১৫টি নতুন বিশ্ববিদ্যালয়, ৪৬টি নতুন কলেজ।

মাছ চাষে বাংলাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সরকারের উদ্যোগ মাছ চাষে বাংলাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সরকারের উদ্যোগ

মৎস্য মারিব, খাইব সুখে। এই প্রবাদটা বোধহয় মাছে -ভাতে বাঙালির অজানা নয়।  নদী-নালা-পুকুরের অভাব নেই এরাজ্যে। আর তাই বাঙালির পাতে মাছের টুকরোও রোজকারের বিষয়। মাছ চাষে এগিয়ে রয়েছে এরাজ্য। কিন্তু মৎস্য চাষকে আরও জনপ্রিয় করতে এবং মাছ চাষীদের জন্য বেশকিছু উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে রাজ্যের তরফে।

হুগলির আদিসপ্তগ্রামে শুরু হয়েছে মাছের মেলা হুগলির আদিসপ্তগ্রামে শুরু হয়েছে মাছের মেলা

হুগলির আদিসপ্তগ্রামে শুরু হয়েছে মাছের মেলা। প্রতিবছর পয়লা মাঘ মেলা বসে  কৃষ্ণপুরে । রুই, কাতলা, ভেটকি, শোলসহ নানা মাছের পসরা সাজিয়ে বসেছেন ব্যবসায়ীরা। মেলায় এসে মাছ কিনে রান্না করে খাচ্ছেন সকলে। মাছের মেলা। না, মেলা না বলে বরং মাছ মেলার পিকনিক বললেও বাড়িয়ে বলা হয়না। আদিসপ্তগ্রামের কৃষ্ণপুরে মাঘ মাসের প্রথম দিনটিতে তাই সকাল থেকেই হরেক রকম মাছের পসরা নিয়ে হাজির মাছ ব্যবসায়ীরা। সপরিবারে মেলায় এসে পছন্দসই মাছ কিনছেন মানুষ। এরপর মেলা থেকেই  সরঞ্জাম কিনে স্থানীয় বাগানে চলে রান্নার প্রস্তুতি।

১৫ হাজার বছর আগে জন্ম হয়েছিল কুকুরের ১৫ হাজার বছর আগে জন্ম হয়েছিল কুকুরের

কুকুরদের পূর্বপুরুষ হল নেকড়ে। ইউরোপ, পূর্ব সাইবেরিয়া এবং দক্ষিণ চিন থেকে একটি গবেষণার মাধ্যমে এই তথ্য পেয়েছেন গবেষকরা।

কালনায় অবাধে পুকুর বোজাচ্ছে প্রোমোটার চক্র কালনায় অবাধে পুকুর বোজাচ্ছে প্রোমোটার চক্র

মজে যাচ্ছে কালনার  তিরিশটি পুকুর। মাছ চাষ হয় না। জলও ব্যবহারের যোগ্য নয়। জঞ্জাল ফেলে পুকুরগুলি দখল করে নিচ্ছে অসাধু ব্যবসায়ীরা।  কালনা পুরসভা যখন বামেদের ছিল তখন শহরে ছিল প্রায় চল্লিশটি পুকুর। কিন্তু পুরবোর্ডে কংগ্রেস এবং তৃণমূল জোট ক্ষমতায় আসার পর, শহরের প্রায় তিরিশটি পুকুরে মাছ চাষ বন্ধ হয়ে যায় বলে অভিযোগ। পুকুরগুলি হয়ে ওঠে মশাদের মুক্তাঞ্চল। ভরে ওঠে আগাছায়  ।  জল ধারণ ক্ষমতাও নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ফলে অল্প বৃষ্টিতেই শহরের নানা রাস্তায় জল জমে।  অভিযোগ পুরকর্মীরাই এখন জঞ্জাল ফেলেন এই পুকুরে।