বেলের পাশে নেইমার বেলের পাশে নেইমার

মাঠে কট্টর প্রতিদ্বন্দ্বী তাঁরা। কিন্তু মাঠের বাইরে গ্যারেথ বেলকে পরামর্শ দিচ্ছেন নেইমার। বেলকে সমালোচনার সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে দ্বিতীয় মরসুমে কোনও চমকই দেখাতে পারেননি বেল। জুভেন্টাস ম্যাচের পর কড়া সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। নেইমারের মতে প্রত্যেক ক্রীড়াবিদকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। সমালোচনায় কান না দিয়ে বেলকে খেলার প্রতি ফোকাস ধরে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন নেইমার। পাশাপাশি লিওনেল মেসির প্রশংসায় পঞ্চমুখ তিনি। কোর্ডোবার বিরুদ্ধে ম্যাচে নিজে না মেরে নেইমারকে পেনাল্টি মারার সুযোগ দিয়েছিলেন তিনি। এজন্য মেসির কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকবেন বলে জানিয়েছেন নেইমার। অন্যদিকে বার্সেলোনা কর্তাদের কাছে ফ্রান্সের তারকা ফুটবলার পল পোগবাকে নেওয়ার জন্য দরবার করেছেন ব্রাজিলীয় তারকা।

র‍্যান্টিই কেবল থাকবেন, বাকি বিদেশীদের ছাঁটবে লাল-হলুদ র‍্যান্টিই কেবল থাকবেন, বাকি বিদেশীদের ছাঁটবে লাল-হলুদ

মরসুম শেষ হতে এখনও বেশ খানিকটা সময় বাকি। অঙ্কের বিচারে এখনও আই লিগে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ আছে লাল-হলুদের। তবে এখন থেকেই নতুন মরসুমের পরিকল্পনা শুরু করে দিয়েছে ইস্টবেঙ্গল। প্রাথমিকভাবে র‍্যান্টি মার্টিন্স ছাড়া বাকি সব বিদেশিকে ছেড়ে দিতে চলেছে লাল-হলুদ। মার্কি ফুটবলার লিও বার্তোসের সঙ্গে ২ বছরের চুক্তি থাকলেও, কিউই বিশ্বকাপারের সঙ্গে গোল্ডেন হ্যান্ডশেক করে নিতে চলেছে ইস্টবেঙ্গল। অসি ডিফেন্ডার মিলান সুসাককেও আর রাখবে না লাল-হলুদ। এমনকি বিদায় নিতে চলেছেন র‍্যান্টির স্ট্রাইকিং পার্টনার ডুডু। ভাল দল তৈরি করেও ঘরোয়া লিগ ছাড়া চলতি মরসুমে আর কিছুই জিততে পারেনি ইস্টবেঙ্গল। তাই আগামী মরসুমে বিদেশি বাছার ক্ষেত্রে আরও সাবধানী হতে চাইছে লাল-হলুদ কর্তারা।

ফেসবুকে এলকোর বিতর্কিত মন্তব্য,ছাড়ো ছাড়ো মনোভাব স্পষ্ট ফেসবুকে এলকোর বিতর্কিত মন্তব্য,ছাড়ো ছাড়ো মনোভাব স্পষ্ট

ইস্টবেঙ্গলের দায়িত্ব নেওয়ার দেড় মাসের মধ্যেই বিতর্কে জড়ালেন এলকো সাতোরি। রয়্যাল ওয়াইন্ডোর বিরুদ্ধে ম্যাচের একদিন আগে ফেসবুকে এলকোর একটি মন্তব্যে রীতিমত আলোড়ন সৃষ্টি হয়। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের মাধ্যমে মধ্যপ্রচ্যে যে কোনও দেশে কোচিং করানোর জন্য প্রস্তাব দেন একজন এজেন্ট। সঙ্গে সঙ্গে সেই এজেন্টকে মেলের মাধ্যমে তার সিভি পাঠাতে উতসাহী হয়ে পরেন এলকো। দায়িত্ব নেওয়ার দেড় মাসের মধ্যেই এলকোর এই কর্মকান্ডে নতুন করে বিতর্ক জন্ম দেয় ময়দানে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করে তবে কি অল্প কয়েকদিনেই ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে দুরত্ব শুরু হয়েছে ডাচ কোচের? তাই কি এখন থেকেই নতুন চাকরির খোঁজে নেমে পরলেন এলকো। লালহলুদ কর্তারা অস্বস্তিতে পরে যান।

অঁরির বদলে ব্রাজিলের কাউকে চাইছে গোয়া, হাবাস কে ছাঁটবে কলকাতা অঁরির বদলে ব্রাজিলের কাউকে চাইছে গোয়া, হাবাস কে ছাঁটবে কলকাতা

শেষ পর্যন্ত হয়তো দ্বিতীয় ইন্ডিয়ান সুপার লিগেও খেলতে দেখা যাবে না ফ্রান্সের প্রাক্তন তারকা ফুটবলার থিয়েরি অঁরিকে। গোয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি অঁরিকে তাদের মার্কি ফুটবলার হিসাবে পেতে ঝাঁপিয়েছিল প্রথমদিকে। তবে সেখান থেকে এখন পিছিয়ে এসেছে জিকোর দল। বর্তমানে ফুটবল বিশেষজ্ঞের ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে অঁরিকে। সেই চুক্তি থেকে বেড়িয়ে এসে অঁরির পক্ষে খেলাও বেশ কঠিন। তাই আপাতত অঁরিকে নিয়ে ভাবছে না গোয়া ফ্রাঞ্চাইজি। একই সঙ্গে ফ্রান্সের আরেক প্রাক্তন তারকা রবার্ট পিরেসের সঙ্গেও চুক্তি বাড়ানো হচ্ছে না। নতুন চমক হিসেবে আইএসএলে ব্রাজিলের নামকরা একজন ফুটবলারের সঙ্গে চুক্তি করতে মরিয়া এফসি গোয়া। জিকোর মাধ্যমেই সেই তারকা বিশ্বকাপারের  সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। তবে গোয়া ফ্রাঞ্চাইজি তাদের মার্কি ফুটবলারের নাম এই মুহূর্তে গোপন রাখছে।

ক্যাপ্টেন লুইস গার্সিয়াকে ছেঁটে ফেলল অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা    ক্যাপ্টেন লুইস গার্সিয়াকে ছেঁটে ফেলল অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা

মার্কি ফুটবলার লুই গার্সিয়াকে পাকাপাকিভাবে ছেঁটে ফেলতে চলেছে অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা। প্রাথমিকভাবে কলকাতা দল বিদেশিদের যে তালিকা জমা দিয়েছে,তাতে নাম নেই অ্যাটলেটিকো অধিনায়কের। অ্যাটলেটিকো সূত্রের খবর আগামী মরসুমে লিভারপুলের প্রাক্তন এই ফুটবলারের কলকাতায় আসার কোনও সম্ভাবনাই নেই। দিল্লি ম্যাচে হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পাওয়ার পর বেশ কয়েকটা ম্যাচে খেলতে পারেননি গার্সিয়া। পরের দিকে ফিট হয়ে মাঠে ফিরলেও নিয়মিতভাবে প্রথম একাদশে সুযোগও পেতেন না স্পেনের এই তারকা ফুটবলার। তাছাড়া বয়সও হয়েছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী এই ফুটবলারের। সব মিলিয়েই গার্সিয়াকে পাকাপাকিভাবে ছাঁটাই করে ফেলল এটিকে। আগামী মরসুমের জন্য তাঁকে যে আর রাখা হচ্ছে না সেটা লুই গার্সিয়াকে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে। গোটা ব্যাপারটাকে পেশাদারভাবেই নিয়েছেন তিনি। জুন মাস নাগাদ কলকাতা দলের জন্য নতুন মার্কি ফুটবলার ঠিক করতে চায় অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা।