গণশক্তিকে বিজ্ঞাপন দাও, রাজ্য কে কড়া ভাষায় নিন্দা আদালতের

গণশক্তিকে বিজ্ঞাপন দাও, রাজ্য কে কড়া ভাষায় নিন্দা আদালতের

গণশক্তির বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত মামলায় আদালতে ধাক্কা খেল রাজ্য। যে মাপকাঠিতে অন্য সংবাদপত্রকে বিজ্ঞাপন, সে মাপকাঠিতেই গণশক্তিকে বিজ্ঞাপন দিতে রাজ্যকে নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। বিজ্ঞাপন না দিলে আদালতের কাছে ব্যাখ্যা দিতে হবে রাজ্যকে।  

শাসকের সন্ত্রাস থেকে রেহাই পাচ্ছে না বিরোধী দলের মুখপত্রও, অভিযোগ বাম নেতাদের

গণশক্তির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সরব হলেন সিপিআইএম নেতারা। উঠে এল কামদুনি থেকে মধ্যমগ্রামকাণ্ড। এমনকী শাসক দলের হাত থেকে নিস্তার নেই বিরোধী দলের মুখপত্রের। অভিযোগ সিপিআইএম নেতৃত্বের।

টিএমসিপির উপচার্য ঘেরাও আর কিছু প্রশ্ন

গণশক্তিকে শতবার্ষিকী হল ভাড়া  দিয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পক্ষপাতিত্ব করেছে। এই অভিযোগ তুলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারকে সোমবার ঘেরাও করে  টিএমসিপি সমর্থকেরা। অবস্থান-বিক্ষোভ  চলে উপাচার্যের ঘরের  সামনেও। কিন্তু টিএমসিপির এই অভিযোগ কতটা যথার্থ? তথ্য  বলছে ওই একই হলে একটি অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন তৃণমূল নেত্রী দোলা সেন। তাও বেশি দিন আগে নয়।

রাজ্যে গণতন্ত্র খর্ব হচ্ছে, সরব বুদ্ধ-বিমান

রাজ্যে গণতন্ত্র খর্ব হচ্ছে। আঘাত নেমে আসছে সাধারণ মানুষের অধিকারের ওপর। গণশক্তি পত্রিকার ৪৭ তম প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে এমনই উদ্বেগ প্রকাশ করলেন সিপিআইএম নেতৃত্ব। সিপিআইএমের রাজ্য সম্পাদক বিমান বসু থেকে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, প্রত্যেকেরই অভিযোগ, সব বিষয়েই চরম অসহিষ্ণুতার মনোভাব দেখাচ্ছে রাজ্য সরকার। প্রতিহিংসার রাজনীতির বাড়বাড়ন্তের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর মানসিকতাকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন তাঁরা। সিপিআইএমের দলীয় মুখপত্র গণশক্তির ৪৭ তম প্রতিষ্ঠা দিবসের মঞ্চ থেকে রাজ্য সরকারের কড়া সমালোচনা করলেন সিপিআইএম নেতৃত্ব।

গণশক্তির জন্য অর্থসংগ্রহ

সিপিআইএমের মুখপত্র গণশক্তির জন্য তহবিল সংগ্রহে আজ কলকাতায় পথে নামছেন দলের রাজ্য সম্পাদক বিমান বসু। সিপিআইএমের অভিযোগ, রাজ্যে রাজনৈতিক পালাবদলের পর উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে রাজ্য সরকার গণশক্তি পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে।