মনোজ তিওয়ারিকে মারতে দৌড়ে এলেন গৌতম গম্ভীর!

মনোজ তিওয়ারিকে মারতে দৌড়ে এলেন গৌতম গম্ভীর!

মাঠের মধ্যে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে বিতর্কে মনোজ তিওয়ারি ও গৌতম গম্ভীর। ফিরোজ শা কোটলায় দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামেন বাংলার অধিনায়ক মনোজ তিওয়ারি। সেই সময় উল্টোদিকে বোলার ছিলেন দিল্লির মনন শর্মা।

ক্রিকেট জীবনে ডেড লাইন ঘোষণা বীরুর, দলে ফেরার লড়াইয়ে মজলেন গোতি

সঙ্গী বীরেন্দ্র সেওয়াগ যখন ক্রিকেটজীবনের ডেডলাইন ঘোষণা করে দিয়েছেন । তখন গৌতম গম্ভীর মনঃসংযোগ করছেন জাতীয় দলে কামব্যাক করার। শিখর ধাওয়ান-রোহিত শর্মার ওপেনিং জুটির জমানায় গম্ভীরের কামব্যাকের সম্ভাবণা কতটা?পরের পর ম্যাচে রোহিত ফ্লপ করছে । এটাই যেন তাতিয়ে চলছে গম্ভীরকে।

অবসরের পর আইপিএলে দর বাড়বে কেপির, দাবি ললিত মোদীর, অন্যদিকে গম্ভীর নারিনকে ছাড়া সবাইকে নিলামে ছাড়ছে কেকেআর

কেভিন পিটারসন ইসিবির আচরণে অপমানিত হয়ে কেভিন পিটারসন অবসর নিয়েছেন। আর এই সিদ্ধান্ত নাকি তাঁর কাছে শাপে বর হতে চলেছে । দাবি প্রাক্তন আইপিএল চেয়ারম্যান ললিত মোদির।

পাঠানের ব্যাট জাগল দেরিতে, নাইটদের প্লেঅফের স্বপ্ন এখনও অলীক

শুক্রবার ইডেনে কলকাতা নাইট রাইডার্স খুব সহজে জয় ছিনিয়ে নিল রাজস্থানের কাছ থেকে। রাজস্থানের বিরুদ্ধে দূরন্ত জয়ের পর নাইট সমর্থকদের মধ্যে এখন একটাই আপসোস। ঘুম ভাঙতে দেরী হয়ে গেল না তো! কুম্ভকর্ণের ঘুম ভাঙতে লাগত ছ`মাস। শুক্রবার রাতে গম্ভীরের দেখে মনে হল ঘুম ভাঙল এগারো ম্যাচ পর। এই যে ইউসুফ পাঠান নাইট জার্সিতে সর্বোচ্চ রান করলেন, কালিসকে দেখে মনে হল, এইতো সেই মিস্টার স্পেশাল কিংবা দলের ফিলডিং দেখে মনে হল করার.. লড়ার... জেতার ইচ্ছা আছে। এই সবই মনে হল ১১ ম্যাচ পর। দুর্গা প্রতিমাকে দশমীতে সিঁদুর রাঙানোর পর যখন বিসর্জনের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়, তখন যদি কেউ অষ্টমীর পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্র পড়ে, এই অবস্থাই হয়েছে নাইটদের। এখন নাইটদের সেই দশা। বাকি পাঁচটা ম্যাচে সবকটা জিতলেও প্লে অফে ওঠা নিশ্চিত নয়। নাইটদের ভাগ্য পুরোটাই এখন নির্ভর করছে অন্যদের খারাপ খেলার উপর।

এবার ঘুরে দাঁড়াতেই হবে, বলছেন গম্ভীর

একের পর এক ম্যাচ হেরে কেকেআর-এর অবস্থা এখন কেকেহার। লিগ তালিকায় নাইটরা এখন সাত নম্বরে। আগামি তিন চারটে ম্যাচ পরপর জিততে না পারলে এখন থেকেই প্লে অফে ওঠার স্বপ্ন প্রায় মুছে যাবে। আর তাই কলকাতা নাইট রাইডার্স অধিনায়ক গৌতম গম্বীর বলছেন, `এবার আমাদের ঘুরে দাঁড়াতেই হবে`।

আজ নাইটদের গম্ভীর লড়াইয়ে `দেওয়াল` নিয়েই চিন্তা

রাহুল দ্রাবিড় বনাম গৌতম গম্ভীর নয়। সোয়াই মান সিং স্টেডিয়ামের ম্যাচটিকে দুটি দলের লড়াই বলেই মনে করেন নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর। প্রথম ম্যাচে ঘরের মাঠে সহজ জয় পেয়েছেন নাইটরা। কিন্তু জয়পুরের আবহাওয়া সম্পূর্ন আলাদা। আর এটাই ভাবাচ্ছে গম্ভীরকে। বিশেষ করে শিশির একটা বড় ফ্যাক্টর হবে বলে মনে করেন তিনি।

আইপিএলকেই ফেরার মঞ্চ বানাতে চান গম্ভীর

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দেশের মাটিতে টেস্ট সিরিজে বাদ পড়েন গৌতম গম্ভীর। তাঁর পরিবর্তে দলে সুযোগ পাওয়া মুরলি বিজয় এই সিরিজে অনবদ্য ব্যাটিং করেন। এরপরই গম্ভীরের কামব্যাক নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। বেশ কিছু প্রাক্তন ক্রিকেটার বলেই ফেলেছেন জাতীয় দলে গম্ভীরের কামব্যাক করা প্রায় অসম্ভব। তবে সমালোচনায় বিদ্ধ গম্ভীর কিন্তু জানিয়ে দিলেন তিনি দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেই জাতীয় দলে কামব্যাক করতে মরিয়া। তিনি সবসময় বিদেশের মাটিতে সিরিজ জেতাকে বেশি গুরুত্ব দেন।

অসিদের বিরুদ্ধে দল থেকে বাদ গতি, ফিরলেন ভাজ্জি, বিরু

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম দুই টেস্টের জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা করল সন্দীপ পাটিলের নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই-এর নির্বাচক কমিটি। দল থেকে বাদ পড়লেন গৌতম গম্ভীর। দলে ফিরে এলেন অভিজ্ঞ অফস্পিনার হরভজন সিং। বিরু-গতি জুটির গতি বাদ পড়লেও দলে ফিরলেন `বিরু` বীরেন্দ্র সেওয়াগ।

ঈশ্বরের হাতেই দলের ভাগ্যকে সঁপলেন বীরু

``শুধুমাত্র ঈশ্বরই এই মূহুর্তে আমদের রক্ষা করতে পারেন।`` ইডেন টেস্টে ভারতীয়দের শোচনীয় প্যারফর্মেন্সের পর এ সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানালেন বীরেন্দ্র সেওয়াগ। অবশ্য বোর্ড প্রেসিডেন্ট বা ক্যাপ্টেনের মত ইডেনের পিচকে মোটেও ভিলেনের আসনে বসালেন না বীরু। তার বদলে নিজেদের ব্যাটিং ব্যার্থতার কথা কার্যত স্বীকার করে নিলেন তিনি।

সৌরভ কে দল থেকে বাদ দিয়ে অনুতপ্ত নই: শাহরুখ

সৌরভ-শাহরুখ বিতর্ক যেন `শেষ হইয়াও হইল না শেষ`। শুক্রবার নতুন দিল্লিতে ``হিন্দুস্তান লিডারশিপ সামিট ২০১২``তে কেকেআরের মালিক পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন

আইপিএলে তাঁর টিম থেকে সৌরভকে ছেঁটে ফেলা নিয়ে তাঁর বিন্দুমাত্র আফসোস নেই। তাঁর সঙ্গে অবশ্য কিং খান এও জানিয়েছেন কলকাতার টিম থেকে সৌরভকে বাদ

দেওয়ার সিদ্ধান্ত তাঁদের জন্য যথেষ্ট `চ্যালেঞ্জিং` ছিল।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২৩ তম জন্মদিনটা ভাল গেল না সচিনের

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২৩ বছর পূর্ণ করলেন সচিন তেন্ডুলকর। মোতেরায় ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট ম্যাচ মাঠে নেমে এই কৃতিত্ব অর্জন করলেন মাস্টার ব্লাস্টার। ১৯৮৯ সালে আজকের দিন, মানে ১৫ নভেম্বর করাচিতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্টে অভিষেক হয়েছিল তাঁর। সেই ম্যাচে ১৫ রান করেছিলেন সচিন। এখন পর্যন্ত ১৯০ টেস্টে ১৫,৫৩৩ রান করেছেন তিনি। ৪৬৩টি একদিনের ম্যাচে ১৮,৪২৬ রান করেছেন সচিন। 

'বীরেন্দ্র' বিক্রমে সেওয়াগের শতরান

মোতেরা তাঁকে শূন্য হাতে ফেরায় না। বৃহস্পতিবার আরও একবার তারই প্রমাণ মিলল। রানের খরা কাটিয়ে ফেলে আবার স্বমহিমায় হাজির বীরেন্দ্র সহবাগ। ইংল্যন্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে প্রথম দিনই সেরে ফেললেন নিজের ২৩ তম শতরান। কাকতালীয় ভাবে মোতেরার এই মাঠেই বিরু শেষ শতরান করে ছিলেন। সেই ২০১০-এ। সেদিন প্রতিপক্ষ ছিল নিউজিল্যান্ড। আজ ইংল্যান্ড। সেঞ্চুরি করতে তিনি নিলেন মাত্র ৯০ টা বল। রাজকীয় ভঙ্গিমায় চার মেরে পেরিয়ে গেলেন কাঙ্ক্ষিত ১০০ রানের চৌকাঠ।  প্রতীক্ষিত  ভারত-ইংল্যন্ড প্রথম টেস্ট শুরু হয়ে গেল। আহমেদাবাদে আজ টসে জিতে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। দিনের শুরু থেকেই মোতেরার ব্যাটিং সহায়ক পিচে বীরু-গোতি ম্যাজিক। ভারতীয় ইনিংসের যথাযত সূচনা করলেন এই দুজন। এই দুই মহারথীর ব্যাটে ভর করে মধ্যাহ্ন ভোজনের আগে টিম ইন্ডিয়ার স্কোর ছিল বিনা উইকেটে ১২০।  লাঞ্চের পরে আবার শুরু বিরু জাদু। ব্যক্তিগত ৪৫ রানের মাথায় সোয়ানের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান গম্ভীর। কিন্তু জুরিদার চলে গেলেও থেমে থাকেনি সহবাগের ব্যাট।

বীরু-গোতি জাদুতে লাঞ্চের আগে ভারতের স্কোর ১২০/০

বহু প্রতীক্ষিত ভারত-ইংল্যন্ড প্রথম টেস্ট শুরু হয়ে গেল। আহমেদাবাদে আজ টসে জিতে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। দিনের শুরু থেকেই মোতেরার ব্যাটিং সহায়ক পিচে বীরু-গোতি ম্যাজিক। ভারতীয় ইনিংসের যথাযত সূচনা করলেন এই দুজন। এই দুই মহারথীর ব্যাটে ভর করে মধ্যাহ্ন ভোজনের আগে টিম ইন্ডিয়ার স্কোর বিনা উইকেটে ১২০।

বীরু-গোতি জাদুতে লাঞ্চের আগে ভারতের স্কোর ১২০/০

বহু প্রতীক্ষিত ভারত-ইংল্যন্ড প্রথম টেস্ট শুরু হয়ে গেল। আহমেদাবাদে আজ টসে জিতে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। দিনের শুরু থেকেই

মোতেরার ব্যাটিং সহায়ক পিচে বীরু-গোতি ম্যাজিক। ভারতীয় ইনিংসের যথাযত সূচনা করলেন এই দুজন। এই দুই মহারথীর ব্যাটে ভর করে মধ্যাহ্ন ভোজনের আগে টিম

ইন্ডিয়ার স্কোর বিনা উইকেটে ১২০।

পদ্মভূষণের জন্য মনোনীত দ্রাবিড়, গম্ভীর পদ্মশ্রী

পদ্মভূষণের জন্য রাহুল দ্রাবিড়ের নাম প্রস্তাব করল ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। ভারতীয় ক্রিকেটে দ্রাবিড়ের অবদানের কথা মাথায় রেখে তাঁকে এই সম্মান দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রককে অনুরোধ করেছে বিসিসিআই। এর আগে ৯ জন ক্রিকেটার এই সম্মান পেয়েছেন।

নাইটদের ফাইনালে তুলেই ক্ষোভ উগরে দিলেন লক্ষ্মী

কেকেআরের আইপিএল ফাইনালে ওঠার অন্যতম কান্ডারী তিনি। তাঁর ১১ বলে ২৪ রানের ইনিংসে প্রসস্ত হয় প্রথম বারের জন্য নাইটদের আইপিএল ফাইনালে ওঠার পথ। কলকাতাকে ফাইনালে তুলেই নিজের ক্ষোভ উগরে দিলেন লক্ষ্মীরতন শুক্লা। মুখ খোলার জন্য সঠিক সময়ের অপেক্ষাতেই যেন ছিলেন তিনি।