হুগলি জেলার ফল

হুগলি জেলার ফল

জেলা হুগলি  - 

এই জেলায় বামফ্রন্ট যে আসনটি পেয়েছে সেটি হল, পাণ্ডুয়া

নজিরবিহীন নিরাপত্তায় ভোটারদের আস্থা বাড়াতে বদ্ধপরিকর কমিশন নজিরবিহীন নিরাপত্তায় ভোটারদের আস্থা বাড়াতে বদ্ধপরিকর কমিশন

কলকাতার ৪টি সহ কাল দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা ও হুগলির উনপঞ্চাশ আসনে ভোট। নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে দুটি জেলাই। টহল দিচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। চলছে নাকা চেকিং। ভোটারদের আস্থা বাড়ানোর চেষ্টা করছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। পঞ্চম দফার ভোটের সাফল্যকেই হাতিয়ার করছে কমিশন। ষষ্ঠ দফাতেও অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোট করানোই এখন চ্যালেঞ্জ। টার্গেট অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন। এই লক্ষ্যেই টহলদারিতে ব্যস্ত কেন্দ্রীয় বাহিনী। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বিভিন্ন এলাকায় চলছে রুট মার্চ, এরিয়া ডমিনেশন। গাড়ি আটকে চলছে নাকা চেকিং। ভোটারদের আশ্বস্ত করার চেষ্ট করছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা।

জেলাশহর কিংবা মহকুমাই নয়, কমিশনের নজরদারি এবার প্রত্যন্ত গ্রামেও জেলাশহর কিংবা মহকুমাই নয়, কমিশনের নজরদারি এবার প্রত্যন্ত গ্রামেও

জেলাশহর কিংবা মহকুমা শহরই শুধু নয়, কমিশনের নজরদারি এবার প্রত্যন্ত গ্রামেও। প্রতিটি এলাকার বৈশিষ্ট্য চিহ্নিত করে চলছে তল্লাসি। এমনকি ভোটদানের কম হার নিয়েও নজরদারি চালাচ্ছে কমিশন।

 পান্ডুয়ার রামেশ্বরপুরে দুষ্কৃতীদের গুলিতে মৃত্যু হল ঠিকাদারের গাড়ির চালকের পান্ডুয়ার রামেশ্বরপুরে দুষ্কৃতীদের গুলিতে মৃত্যু হল ঠিকাদারের গাড়ির চালকের

ফের অবাধ দুষ্কৃতীরাজ। এবার হুগলি। পান্ডুয়ার রামেশ্বরপুরে দুষ্কৃতীদের গুলিতে মৃত্যু হল ঠিকাদারের  গাড়ির চালকের। গতরাতে অফিস থেকে বাড়ি ফেরার পথে হামলা।  মাঝপথে বস্তা ফেলে ঠিকাদার আরাফিল হোসেনের গাড়ি আটকায় ছয় দুষ্কৃতী।  এরপরেই আরাফিলকে বন্দুক  দেখায় দুষ্কৃতীরা।  তখনই গাড়ি থেকে নেমে পালাতে যায় ঠিকাদার। শুরু হয় বেধড়ক মারধর।   পর দুবার গুলিও করে দুষ্কৃতীরা। গুলি ঠিকাদারের না লেগে ছিটকে গিয়ে লাগে গাড়িতে বসে থাকা চালক  নমান বাউল দাসের গায়ে। দুটি গুলিতে গাড়িতেই প্রাণ হারান তিনি।  । গুলি চালিয়ে ধীরেসুস্থে লুঠপাটও চালায় দুষ্কৃতীরা। অবাধেই ঠিকাদারের সঙ্গে থাকা বেশ কয়েক হাজার টাকা ছিনতাই করে চম্পট দেয় ছজনই। জখম ঠিকাদার তখন রাস্তাতেই পড়ে।  পরে উদ্ধার করে আহত ঠিকাদারকে ভর্তি করা হয়েছে  চুঁচুড়া ইমামবাড়া হাসপাতালে। এখনও ফেরার ছয় দুষ্কৃতীই।  

শ্রীরামপুরে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে না পেরে  স্কুলেই ভাঙচুর চালাল পরীক্ষার্থীরা শ্রীরামপুরে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে না পেরে স্কুলেই ভাঙচুর চালাল পরীক্ষার্থীরা

হুগলির শ্রীরামপুরে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে না পেরে  স্কুলেই ভাঙচুর চালাল পরীক্ষার্থীরা। হাত মেলালেন অভিভাবকরাও। তবে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে প্রাণে বেঁচেছেন স্কুলের মালিক তথা প্রধানশিক্ষক। সব কিছু মিটে যাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পৌছয় পুলিস। অ্যাডমিট কার্ড দিতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।  মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসতেই পারলনা বেসরকারি হিন্দি স্কুল শ্রীরামপুর বিদ্যাপীঠের তেইশ জন পরীক্ষার্থী। অ্যাডমিট কার্ড পেতে পরীক্ষার্থীরা স্থানীয় কাউন্সিলর থেকে মুখ্যমন্ত্রী, এমনকি বিজেপি রাজ্য নেতৃত্ব, সবার কাছেই দরবার করেছে। রবিবার গভীর রাত পর্যন্ত চলেছে চেষ্টা। কিন্তু সোমবারও মেলেনি অ্যডমিট কার্ড। তাই যখন অন্যরা  মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে রওনা হয়েছে তখন শ্রীরামপুর বিদ্যাপিঠের তেইশ জন পরীক্ষার্থী  ভাঙচুর চালিয়েছে স্কুলে গিয়ে।

আগামিকাল শীত আরও বাড়বে! আগামিকাল শীত আরও বাড়বে!

আগামিকাল শীত আরও বাড়বে। তবে শীতের মেয়াদ বেশি দিনের নয়, একেবারে বিজ্ঞানের শর্ত অনুসরণ করে না বললেও, পাঁচিশে জানুয়ারির পরই রাজ্যে শীতের বিদায়। তবে যাওয়ার আগে শীতের  শেষ কামড়ে জবুথুবু দশা রাজ্যের উত্তর থেকে দক্ষিণ। এবার তেমন শীত নেই, এই ধরনের হা-হুতাশ নয়, এবছর শীতই পড়েনি।  গোটা পৌষ গেছে বসন্তের  উষ্ণতায়। মাঘের শীতে বাঘ পালায়, একথাও সত্যি মনে হচ্ছিল না মাঘের প্রথম দিকে ।  

অসময়ে বিশ্বকর্মা, ভাদ্রের পরিবর্তে মাঘেই বিশ্বকর্মা পুজো অসময়ে বিশ্বকর্মা, ভাদ্রের পরিবর্তে মাঘেই বিশ্বকর্মা পুজো

অসময়ে বিশ্বকর্মা। ভাদ্রের পরিবর্তে মাঘে বিশ্বকর্মা পুজো হয় হুগলির বেগমপুরে। জমিয়ে মেলা বসে। বেগমপুরের তাঁতিদের অসময়ের পুজো দেখতে ভিড় জমে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে।

হুগলিতে আগুনে ভস্মীভূত ভেষজ তেলের কারখানা হুগলিতে আগুনে ভস্মীভূত ভেষজ তেলের কারখানা

হুগলিতে আগুনে ভস্মীভূত ভেষজ তেলের কারখানা। কাকভোরে চণ্ডীতলার কলাছড়ায় ডালডা কারখানায় বড়সড় আগুন। তেল কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের জেরে মুহূর্তে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়।  স্থানীয় বাসিন্দারাই তড়িঘড়ি খবর দেন দমকলে।  ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করে  দমকলের আটটি ইঞ্জিন। এখনও আগুনের কারণ সঠিক ভাবে বলতে পারছে না দমকলের আধিকারিকরা। তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন  গত  মাসের ষোলো তারিখও আগুন লেগে যায় ওই কারখানায়। কেন একই কারখানায় বারবার আগুন খতিয়ে দেখছে দমকল। পাশাপাশি কারখানায় যথেষ্ট অগ্নি নির্বাপক ব্যবস্থা আছে কিনা, খতিয়ে দেখা হচ্ছে তাও।

 প্রায় ৪ মাস বন্ধ থাকার পর খুলে গেল চন্দননগরের গোন্দলপাড়া জুটমিল প্রায় ৪ মাস বন্ধ থাকার পর খুলে গেল চন্দননগরের গোন্দলপাড়া জুটমিল

প্রায় চার মাস বন্ধ থাকার পর, খুলে গেল হুগলির চন্দননগরের গোন্দলপাড়া জুটমিল। রক্ষণাবেক্ষণ বিভাগের শ'খানেক শ্রমিক আজ কাজে যোগ দিলেন। কয়েক দিনের মধ্যেই পুরোদমে উত্‍পাদন শুরু হবে বলে জানিয়েছে মিল কর্তৃপক্ষ। মিল খোলায় কাজ ফিরে পাচ্ছেন প্রায় পাঁচ হাজার শ্রমিক। গতকাল শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটকের সঙ্গে এই প্রসঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক হয় এগারটি ইউনিয়নের প্রতিনিধি এবং মিল মালিক সঞ্জয় কাজোরিয়ার। এরপরই জুটমিল খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। রাজ্যে যেখানে একের পর এক কলকারখানা হঠাত্‍ করে বন্ধ হয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া যায়। সেখানে নতুন উদ্যোমে জুট মিল খুলছে, এটা অবশ্যই ভালো লক্ষণ বলে মনে করছেন অনেকে।

হুগলির আদিসপ্তগ্রামে শুরু হয়েছে মাছের মেলা হুগলির আদিসপ্তগ্রামে শুরু হয়েছে মাছের মেলা

হুগলির আদিসপ্তগ্রামে শুরু হয়েছে মাছের মেলা। প্রতিবছর পয়লা মাঘ মেলা বসে  কৃষ্ণপুরে । রুই, কাতলা, ভেটকি, শোলসহ নানা মাছের পসরা সাজিয়ে বসেছেন ব্যবসায়ীরা। মেলায় এসে মাছ কিনে রান্না করে খাচ্ছেন সকলে। মাছের মেলা। না, মেলা না বলে বরং মাছ মেলার পিকনিক বললেও বাড়িয়ে বলা হয়না। আদিসপ্তগ্রামের কৃষ্ণপুরে মাঘ মাসের প্রথম দিনটিতে তাই সকাল থেকেই হরেক রকম মাছের পসরা নিয়ে হাজির মাছ ব্যবসায়ীরা। সপরিবারে মেলায় এসে পছন্দসই মাছ কিনছেন মানুষ। এরপর মেলা থেকেই  সরঞ্জাম কিনে স্থানীয় বাগানে চলে রান্নার প্রস্তুতি।

 জলের অভাবে চাষ প্রায় ধ্বংসের মুখে হুগলির গোঘাটের কৃষকদের জলের অভাবে চাষ প্রায় ধ্বংসের মুখে হুগলির গোঘাটের কৃষকদের

বড়দিন কিংবা বর্ষবরণের উত্‍সবে সামিল হতে পারছেন না হুগলির গোঘাটের কৃষকেরা। কারণ জলের অভাবে তাঁদের চাষ প্রায় ধ্বংসের মুখে। সেচের জন্য সরকারের তরফে ভাবে মিনি ডিপ টিউবওয়েল বসানো হলেও দীর্ঘদিন তা বিকল। প্রশাসন থেকে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব, বারবার আবেদন জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। প্রতিবাদে ক্ষোভে ফেটে পড়লেন হুগলির গোঘাটের কাঁঠালি এলাকার কৃষকেরা। প্রশাসনের তরফে অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে  আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন তাঁরা। কৃষকদের অভিযোগ, সরকারি ভাবে যেখানে একর প্রতি তিনশো টাকার বিনিময়ে জল পাওয়া যায়, সেখানে বেসরকারিভাবে একর প্রতি সাড়ে সাত হাজার টাকা দিয়ে চাষের জন্য জল কিনতে বাধ্য হচ্ছেন তাঁরা। সব মিলিয়ে ঋণের বোঝা এতোটাই যে প্রশাসনিক সাহায্য না পেলে আরও সঙ্কটে পড়তে হবে কৃষকদের।

প্রকাশ্যে গুলি, খুনে আতঙ্কে হুগলির বাসিন্দা, নির্বিকার প্রশাসন প্রকাশ্যে গুলি, খুনে আতঙ্কে হুগলির বাসিন্দা, নির্বিকার প্রশাসন

হুগলিতে গুণ্ডারাজ। শহরের বুকে পরপর তিনদিন দুষ্কৃতী তাণ্ডব। আজ প্রকাশ্য রাস্তায় গুলি চালিয়ে এক ব্যবসায়ীকে খুন। দুদিন আগেও গ্যাংওয়ার। আতঙ্কে এলাকার বাসিন্দারা।

পশু-পাখিদের নিয়ে মনস্তত্ত্ব পড়াতে মজার কর্মশালা হুগলীর স্কুলে পশু-পাখিদের নিয়ে মনস্তত্ত্ব পড়াতে মজার কর্মশালা হুগলীর স্কুলে

বনের পশু বনেই সুন্দর। কিন্তু বাস্তবে তা হয়না। আমদের ইচ্ছা, বাসনা, ভালোলাগার মাসুল দিতে হয় বনের পশুপাখিকে। কখনও সারা জীবন খাঁচায় বন্দি থেকে। আবার মানুষের ভোজনালয়ে দারুন রেসিপির স্বাদে। কিন্তু বনের পশু-পাখিদের সঙ্গে মানুষের সহবাসের সচেতন আনতে  মজার এক কর্মশালা করল হুগলির স্কুলে।

শনিবার রাহুল শ্রমিকের দুর্দশার কথা সংসদে তোলার আশ্বাস দিলেন, রবিবার বন্ধ হল একদিনে তিনটি জুটমিল শনিবার রাহুল শ্রমিকের দুর্দশার কথা সংসদে তোলার আশ্বাস দিলেন, রবিবার বন্ধ হল একদিনে তিনটি জুটমিল

একদিনে বন্ধ হয়ে গেল হুগলির তিনটি জুটমিল। কাজ হারালেন প্রায় বারো হাজার শ্রমিক। কাঁচামালের অভাব, উত্পাদন কমের কারণ দেখিয়ে সাসপেনশন অফ ওয়ার্কের নোটিস ঝোলাল কর্তৃপক্ষ। মানতে নারাজ শ্রমিকেরা।

উত্তরপাড়ায় যুবকের রহস্যমৃত্যু, ত্রিকোণ প্রেমের জের, দাবি পরিবারের উত্তরপাড়ায় যুবকের রহস্যমৃত্যু, ত্রিকোণ প্রেমের জের, দাবি পরিবারের

উত্তরপাড়ায় যুবকের মৃত্যু ঘিরে রহস্য দানা বাঁধছে। যুবকের পরিবারের অভিযোগ, ত্রিকোণ প্রেমের জেরে খুন করা হয়েছে ওই ছাত্রকে। ঘটনায় পুলিস এক তরুণী সহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে।