হুমায়ুন কবীরকে তীব্র ভর্ৎসনা হাইকোর্টের

মুর্শিদাবাদের পুলিস সুপার হুমায়ুন কবীরকে তীব্র ভর্ত্সনা করল কলকাতা হাইকোর্ট। অপহৃত নাবালিকা সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন মুর্শিদাবাদের পুলিস সুপার। সম্প্রতি খরজুনা কাণ্ডেও সহবাস তত্ত্ব খাড়া করে ধর্ষণের ঘটনা আড়াল করার অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। গত বছর নভেম্বরে মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জ থেকে অপহৃত হয়  মালদার সুজাপুরের বাসিন্দা ওই নাবালিকা।

মহিলাকে অশ্রাব্য গালিগালাজ মুর্শিদাবাদের তৃণমূল নেতার

সরকারি আধিকারিককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও কটূক্তি করলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা আবু আয়েশ মণ্ডল। তিনি সংখ্যালঘু উন্নয়ন বিত্তনিগমের চেয়ারম্যান। নিজের দফতরের এক মহিলা কর্মীকে অশ্রাব্য ভাষায় ফোনে গালিগালাজ করেন তিনি। 

নিজেকে বাঁচাতে ২৪ ঘণ্টাকে কাঠগোড়ায় তুললেন হুমায়ুন কবীর

তাঁর বক্তব্য কাট-পেস্ট করে বদলে ফেলা হয়েছে। খরজুনা কাণ্ডে এভাবেই নিজের সাফাই দিলেন মুর্শিদাবাদের পুলিস সুপার হুমায়ুন কবীর। শুধু তাই নয়, উল্টে যাবতীয় দায় চাপিয়েছেন সংবাদমাধ্যমের একাংশের ওপরে।  সহবাস তত্ত্ব আড়াল করতে এবার কার্যত চব্বিশ ঘণ্টাকেই কাঠগড়ায় তুললেন মুর্শিদাবাদের পুলিস সুপার।

`অক্সিজেনের` উপনির্বাচনে অস্বস্তি উপহার পেল তৃণমূল

তিনটির মধ্যে দুটিতেই তিন নম্বরে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী। তাঁদের মধ্যে একজন আবার রাজ্যের মন্ত্রী। শাসক দলের কাছে আজকের দিনটা মোটেই সুখের হল না। মহানগরের পুলিস কর্মী খুনে শীর্ষস্থানীয় নেতা-মন্ত্রীদের জড়িয়ে পড়া, রাজ্যে একের পর এক নারী নির্যাতনের ঘটনা, ভাঙর থেকে সিঙ্গুরে অরাজকতা, প্রকাশ্যে দলীয় নেতাদের কোন্দল, সমাজের বিভিন্ন স্তর থেকে স্বেচ্ছাচারের অভিযোগে জর্জরিত, ক্রমশ কোণঠাসা তৃণমূল কংগ্রেসের পাখির চোখ ছিল তিন কেন্দ্রের উপনির্বাচন। তিন কেন্দ্রে জয় পেয়ে তৃণমূল প্রমাণ করতে চেয়েছিল রাজ্যে সাম্প্রতিক ঘটনার কোনও প্রভাবই রাজ্যের ভোটারদের মনে পড়েনি। এমনকি পঞ্চায়েত ভোটের ঠিক আগে দলীয় কর্মীদের মনোবল বাড়ানোর জন্যও উপনির্বাচনেকে কাজে লাগাতে চেয়েছিল তৃণমূল। কিন্তু দিনের শেষে সরকারের ভাঁড়ে যথার্থই মা ভবানী।