ভারত-পাক ক্রিকেট সিরিজের আর্জি নিয়ে ভারতে আসছে পিসিবি চেয়ারম্যান

ভারত-পাক ক্রিকেট সিরিজের আর্জি নিয়ে ভারতে আসছে পিসিবি চেয়ারম্যান

ভারত-পাক ক্রিকেট সিরিজ চালু করার আবেদন জানাতে ভারতে আসছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খান। এই সপ্তাহেই তিনি ভারতে আসছেন। পিসিবি চেয়ারম্যান ভারত সরকারকে অনুরোধ করবেন যাতে তারা এই সিরিজের জন্য সবুজ সংকেত দেয়। শাহরিয়ার খান জানিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে রাজি। তবে এব্যাপারে বাধা হয়েছে দাঁড়াচ্ছে ভারত সরকার। সরকারি ছাড়পত্র না পেলে বিসিসিআই-এর কিছু করার নেই। তাই তিনি নয়াদিল্লিতে এসে ভারত সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের সঙ্গে এব্যাপারে কথা বলতে চান। পাশাপাশি বিসিসিআই সভাপতি জগমোহন ডালমিয়ার সঙ্গেও দেখা করবেন। কলকাতায় এসে ডালমিয়ার সঙ্গে ভারত-পাক সিরিজের একটা রূপরেখা তৈরিরও কথা আছে। কারন পাকিস্তান ৩টি টেস্ট, ৫টি একদিনের ম্যাচ ও ২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সিরিজের আয়োজন করতে চায়।

জার্মান ভাষার বদলে সংস্কৃত ভাষাকে অগ্রাধিকার, ধর্মনিরপেক্ষতা অটুট থাকবে দাবি মোদীর জার্মান ভাষার বদলে সংস্কৃত ভাষাকে অগ্রাধিকার, ধর্মনিরপেক্ষতা অটুট থাকবে দাবি মোদীর

সংস্কৃত ভাষার জন্য ভারতের ধর্মনিরপেক্ষ পরিকাঠামো কোনওভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। বার্লিনে ভারতীয় দূতাবাসের উদ্যোগে প্রবাসীদের অনুষ্ঠানে একথা বললেন প্রধানমন্ত্রী  নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু, হঠাত্‍ করে কেন একথা বললেন প্রধানমন্ত্রী? রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এর পিছনে রয়েছে গত বছরের এক বিতর্কিত সিদ্ধান্ত। ২০১৪ তে দেশের ৫০০ টি স্কুলে জার্মান ভাষার জায়গায় সংস্কৃতকে তৃতীয় ভাষা করে মোদী সরকার। এতে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল জার্মানি। তখন এ নিয়ে জার্মান চ্যান্সেলর মর্কেলের সঙ্গে মোদীর কথাও হয়েছিল। সোমবার বার্লিনে মোদী বলেন, একসময় জার্মান রেডিওয় সংস্কৃত ভাষায় খবর পড়া হত। কিন্তু, ভারতে তা কখনই হয়নি। এজন্য জার্মানদের প্রশংসা প্রাপ্য। মোদীর দাবি, ভারতের ধর্ম নিরপেক্ষতা এত দুর্বল নয়, যে কোনও ভাষার জন্য তার ক্ষতিগ্রস্ত হবে।