কারগিল শহিদ ক্যাপ্টেন কণাদ ভট্টাচার্যকে শ্রদ্ধা জানাতে ভুলেই গেল সরকার

কারগিল শহিদ ক্যাপ্টেন কণাদ ভট্টাচার্যকে শ্রদ্ধা জানাতে ভুলেই গেল সরকার

কারগিল যুদ্ধের শহিদের আবক্ষ মূর্তিতে জুটল না একটা মালাও। কারগিল যুদ্ধে শহিদ ক্যাপ্টেন কণাদ ভট্টাচার্য। টালাপার্কের পাশে রয়েছে তাঁর মূর্তিও। কিন্তু গোটা দেশ জুড়ে কারগিল দিবস পালন করা হলেও ব্রাত্যই রয়ে গেলেন এই শহিদ। তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে ভুলে গেল সরকারও।

কার্গিল দিবসে ইন্ডিয়া গেটে শহীদ সেনাদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করলেন অরুণ জেটলি কার্গিল দিবসে ইন্ডিয়া গেটে শহীদ সেনাদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করলেন অরুণ জেটলি

১৫ বছর আগে কার্গিলে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে রক্তক্ষয়ী সংগ্রামে দেশের জন্য প্রাণ বিসর্জন করেছিলেন ভারতীয় সেনারা। তাঁদের সৌর্য্যের কাছে পরাজিত হয়ে শেষ পর্যন্ত পিছু হটতে বাধ্য হয় শত্রু বাহিনী। আজ ২৬ জুলাই কার্গিল দিবসে, ইন্ডিয়া গেটে দেশের সেই বীর সন্তান শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করলেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ও ভারতীয় সেনা প্রধানরা।

মুশারফের বিরুদ্ধে অনুপ্রবেশের অভিযোগ প্রাক্তন সহকর্মীর

উনিশশো নিরানব্বই সালের মার্চে নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করেছিলেন পরভেজ মুশারফ। তত্‍কালীন পাক সেনাপ্রধানের বিরুদ্ধে এই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুলেছেন পাক সেনার অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল আশফাক হুসেন। তাঁর লেখা বই `উইটনেস টু ব্লান্ডার`-এ কার্গিল যুদ্ধের জন্যও পরভেজ মুশারফকে দায়ী করেছেন তিনি। কার্গিল নিয়ে প্রাক্তন আইএসআই কর্তার পর আশফাক হুসেনের এই অভিযোগে চাপে পরভেজ মুশারফ। একই সঙ্গে এই ইস্যুতে ইসলামাবাদও প্রবল অস্বস্তিতে।

কার্গিল যুদ্ধকে পাকিস্তানের সাফল্য বলে দাবি মুশারফের

কার্গিল যুদ্ধ নিয়ে ইসলামাবাদের অস্বস্তি বাড়িয়ে দিলেন পারভেজ মুশারফ। এবারে প্রকাশ্যেই কার্গিল যুদ্ধকে পাকিস্তান সেনার বড়সর সাফল্য বলে দাবি করে বসেছেন প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট। তাঁর বিরুদ্ধে প্রাক্তন লেফটেন্যান্ট জেনারেলের তোলা অভিযোগ খণ্ডন করে কার্গিলের পরাজয়ের জন্য মুশারফ সরাসরি দায়ি করেছেন ততকালীন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে। মুশারফের দাবি, নওয়াজ শরিফ সেই সময় মার্কিন সফরে না গেলে ভারতীয় ভূখণ্ডের তিনশো বর্গমাইল এলাকার দখল নিতে পারত পাক সেনারা।

``কারগিল যুদ্ধ পাক সেনার অপরিণত পরিকল্পনা``

কারগিল যুদ্ধ পাক সেনার অপরিণত পরিকল্পনা ও অপরিনামদর্শীতার ফসল। যুদ্ধের পিছনে জঙ্গিদের কোনও হাত ছিল না। পারভেজ মুশারফের দাবি উড়িয়ে দিতে এমনই চাঞ্চল্যকর দাবি করলেন পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই-এর অ্যানালিস্ট উইংয়ের প্রাক্তন প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল শাহিদ আজিজ।