রাজবাড়িতে এল নতুন রাজকন্যা

রাজবাড়িতে এল নতুন রাজকন্যা

প্রতীক্ষা শেষ। এসে গেল রয়্যাল বেবি। শনিবার একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তানের জন্ম দিলেন রানির নাতবৌ ডাচেস অফ কেমব্রিজ কেট মিডলটন। ব্রিটিশ রাজপরিবারে গুরুত্বের তালিকায় তার স্থান এখন চতুর্থ।

টুইটারেই প্রথম প্রকাশ করা হবে 'রয়্যাল বেবি'র আগমনের খবর টুইটারেই প্রথম প্রকাশ করা হবে 'রয়্যাল বেবি'র আগমনের খবর

রাজবাড়ির প্রথা ভেঙে টুইটারেই প্রথম প্রকাশ করা হবে প্রিন্স উইলিয়াম, কেট মিডলটনের দ্বিতীয় সন্তানের জন্মের খবর। টুইটারে ঘোষাণার পাশাপাশি নবজাতকের অন্যান্য খবর যেমন, জন্মের সময়, লিঙ্গ সবকিছু প্রকাশ করা হবে বার্মিংহ্যাম প্যালেসের গেট অফ আইলের পিছনে। ঐতিহ্য ও আধুনিকতার মেলবন্ধনেই এইবার নবজাতককে আমন্ত্রণ জানাতে চলেছে ব্রিটেনের রাজ পরিবার।

রাজপরিবারে নতুন অতিথি, পুত্র সন্তানের জন্মদিলেন কেট

ব্রিটিশ রাজপরিবারে এল নতুন অতিথি। কাল স্থানীয় সময় বিকেল ৪টে ২৪ নাগাদ ডাচেস অফ কেমব্রিজ জন্ম দেন এক পুত্র সন্তানের। কেনসিংটন প্রাসাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পশ্চিম লন্ডনের প্যাডিংটনে সেন্ট মেরি হাসপাতালে জন্ম হয় ভাবী রাজপুত্রের। ডিউক অফ কেমব্রিজ স্বাভাবিক ভাবেই এই খবরে নিজের উচ্ছ্বাস চেপে রাখতে পারেননি।

হাসপাতালকে দুষেই আত্মঘাতী জাসিন্থা

ভারতীয় বংশোদ্ভূত নার্স জাসিন্থা সালডানহার ইনক্যোয়েস্টে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। নিজের প্রাণ নেওয়ার আগে

তিন তিনটি সুইসাইড নোট লিখে গিয়েছিলেন জাসিন্থা। তার মধ্যে একটিতে তাঁর সরাসরি অভিযোগ, সহযোগিতা নয়,

রেডিও জকিদের `প্র্যাঙ্ক কলের` পর থেকে সহকর্মীরা তাঁর প্রতি বিরূপ আচরণই করেছেন।

উড়ো ফোনে সাড়া দিয়ে আত্মঘাতী কেটের নার্স

প্রভাতী অসুস্থতার কারণে লন্ডনের কিং এডওয়ার্ড সেভেন হাসপাতালে ভর্তি হন গর্ভবতী কেট। বুধবার ভোর সাড়ে ৫টায় প্রিন্স চার্লস এবং স্বয়ং রানির নাম করে একটি ফোন আসে হাসপাতালে। ফোন ধরেন ৪৬ বছরের ভারতীয় বংশদ্ভূত নার্স জাসিনথা সালদানহা। অবলীলায় জানিয়ে দেন অসুস্থ কেটের হালহকিকৎ। তারপরেই জানা যায় ওটি আসলে উড়ো টেলিফোন। অস্ট্রেলিয়ার দুই রেডিও জকি মেল গ্রেগ মাইকেল ক্রিশ্চান সিডনি থেকে ওই কলটি করেন। বলাই বাহুল্য, রাজবাড়ির অন্দরমহল নিয়ে এহেন রসিকতা মোটেই রসবোধে গৃহীত হয়নি ব্রিটেনে। রাজবাড়ির তরফ থেকে কোনও দোষারোপ না করা হলেও সমালচনার ঝড় ওঠে দেশ জুড়ে। দায়ী করা হয় হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকেও। সূত্রে খবর, মানসিক ভাবে এই চাপে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ছিলেন জাসিনথা। এর পরে শুক্রবার তাঁর দেহ মেলে। প্রাথমিক ভাবে আত্মহত্যাই মনে করছে স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড।

মা হচ্ছেন কেট?

গত বছরের গোড়ার দিকে কেট-উইলিয়ামসের বিয়ের পর থেকেই রাজবাড়ির পঞ্চম প্রজন্মের আসার অপেক্ষায় দিন গুণছিল ব্রিটেন। এবারে বোধহয় সত্যিই আসতে চলেছে সেই খুশির খবর। রাজ পরিবারের বিশ্বস্ত সূত্রের খবর, কেট মা হতে চলেছেন। এই ডিসেম্বরেই আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণাও করবেন সেই খবর।

কেটকে ভেট কিমের

কিছুদিন আগেই নিজের বোন কোলে ও কোর্টনির সঙ্গে নতুন কালেকশন লঞ্চ করেছেন কিম কার্দাশিয়ান। কিমের ইচ্ছা আমেরিকার মতোই ব্রিটেনেও জনপ্রিয় হোক তাঁর পোষাক। আর ব্রিটেনে কিমের পোষাক প্রোমোট করার জন্য রাজবধূর থেকে ভাল পছন্দ আর কেই বা হতে পারতেন।

রাজতন্ত্রে লিঙ্গবৈষম্যের অবসান

ব্রিটেনে রাজপরিবারে কন্যাসন্তান পাবে রানি হওয়ার সমানাধিকার।