আডবাণীর বিদ্রোহ সামাল দিতে আসরে বিজেপির তিন প্রাক্তন সভাপতি

আডবাণীর বিদ্রোহ সামাল দিতে আসরে বিজেপির তিন প্রাক্তন সভাপতি

বিহারে বিজেপির ধরাশায়ী হওয়ার পর থেকে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে দলীয় কোন্দল। দায় কার, তা নয়ে শুরু হয়েছে কাজিয়া। এই পরিস্থিতিতে ঘর সামলাতে আপাতত জোড়া কৌশল নিচ্ছে বিজেপি। একদিকে লালকৃষ্ণ আডবাণীর মত প্রবীণ নেতাদের বিদ্রোহ সামাল দিতে আসরে নামিয়েছেন তিন প্রাক্তন সভাপতিকে। প্রকাশ্য মুখ খোলায় মার্গদর্শকদের চলছে তীব্র আক্রমণ। অন্যদিকে আড়ালে প্রবীণ শিবিরকে বুঝিয়ে সুঝিয়ে পথে আনার চেষ্টা করছে মোদী শিবির। নরমে-গরমের এই কৌশলেই আডবাণীদের বিদ্রোহের মোকাবিলা করতে চাইছে মোদী শিবির।

জরুরি অবস্থার ৪০ বছর পূর্তির আগে আডবাণীর আশঙ্কা ওড়ালেন জেটলি জরুরি অবস্থার ৪০ বছর পূর্তির আগে আডবাণীর আশঙ্কা ওড়ালেন জেটলি

কাল জরুরি অবস্থার ৪০ বছর পূর্ণ হচ্ছে। তার আগে জরুরি অবস্থা নিয়ে লালকৃষ্ণ আডবাণীর আশঙ্কা উড়িয়ে দিলেন অরুণ জেটলি। এখন আর একনায়কতন্ত্র সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।   

বিজেপির প্রতিষ্ঠা দিবসে আমন্ত্রণ পেলেন না লৌহপুরুষ বিজেপির প্রতিষ্ঠা দিবসে আমন্ত্রণ পেলেন না লৌহপুরুষ

দলের প্রতিষ্ঠা দিবসে কার্যত উপেক্ষিত বিজেপির লৌহপুরুষ। আনুষ্ঠানিকভাবে আমন্ত্রণই পেলেন না অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য লালকৃষ্ণ আডবাণী। শুধুমাত্র একটি এসএমএসে দায় সেরেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। কিন্তু কেন?

পিকে এবার বিশ্ব হিন্দু পরিষদের রোষে পিকে এবার বিশ্ব হিন্দু পরিষদের রোষে

এবার পিকের বিরুদ্ধে হিন্দু ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ আনল বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। পিকের বেশ কিছু দৃশ্য নিয়ে আপত্তি জানিয়ে বিএইচপি সেন্সর বোর্ডে কাছে আবেদন জানিয়েছে এই ধরণের ছবির মুক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন জানিয়েছে বিএইচপি।

মন্ত্রিসভায় ঠাঁই হয়নি, এবার সংসদেও ঘরছাড়া আডবানী

মোদী মন্ত্রিসভায় জায়গা হয়নি তাঁর। এবার সংসদ ভবনে নিজের ঘরও হারালেন লালকৃষ্ণ আডবানী। বৃহস্পতিবার সংসদ অধিবেশনের দ্বিতীয় দিনে সংসদে পৌছে আডবানী দেখেন সরিয়ে ফেলা হয়েছে তাঁর ঘরের নেমপ্লেট। পঞ্চদশ লোকসভায় এনডিএ সভাপতি হিসেবে এই ঘরটি পেয়েছিলেন আডবানী।

নির্বাচনী প্রচারে এসে মমতা সম্পর্কে নীরব আডবানী

রাজ্যের নির্বাচনী সফরে এসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে নীরব থেকে গেলেন লালকৃষ্ণ আডবাণী। তার দীর্ঘ বক্তব্যে তৃণমূলের নাম পর্যন্ত উচ্চারণ করলেন না তিনি। একদা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বিজেপির এই বর্ষীয়ান নেতা ভবিষ্যতে সুসম্পর্কের দরজা খুলে রাখতেই এই পদক্ষেপ কীনা তা নিয়ে আবারও শুরু হয়ে গেল জল্পনা।

ভোপাল থেকেই লড়তে চান আডবানী, মানাতে মোদী

লালকৃষ্ণ আডবাণীর কেন্দ্র নিয়ে জটিলতা অব্যাহত। ভোপাল থেকে লড়তে চান প্রবীণ এই বিজেপি নেতা। কিন্তু গান্ধীনগর থেকে তাঁকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। সূত্রের খবর, ভোপাল থেকে লড়তে অনড় লালকৃষ্ণ আডবাণী। আজ সকালে আডবাণীর মান ভাঙাতে তাঁর বাড়িতে যান নরেন্দ্র মোদী। গতকাল থেকেই প্রবীণ এই শীর্ষনেতাকে বোঝাতে আসরে নেমেছেন রাজনাথ সিং, সুষমা স্বরাজরা। আজ মাঠে নামলেন মোদী।

ছত্তিশগড়ে মাওবাদী প্রভাবিত ১৮টি বিধানসভা কেন্দ্রে আজ ভোটগ্রহণ, আজকেই প্রথমবার ঐতিহাসিক `না` ভোটের অধিকার প্রয়োগ করবেন সাধারণ মানুষ

ছত্তিশগড়ের মাওবাদী প্রভাবিত ১৮টি বিধানসভা কেন্দ্রে আজ ভোটগ্রহণ। সবকটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রই মুড়ে ফেলা হয়েছে কড়া নিরাপত্তার চাদরে। সম্প্রতি, বস্তারে কংগ্রেস নেতাদের কনভয়ে মাওবাদীহামলার পর নিরাপত্তাব্যবস্থায় কোনও ফাঁক রাখতে চাইছে না প্রশাসন। নামানো হয়েছে আধা-সেনা।     

বিধানসভা ভোটের শেষবেলার প্রচারে ছত্তিসগড়ে হেভিওয়েটদের রাজনৈতিক তরজা, আডবাণীর নিশানায় প্রধানমন্ত্রী, মোদীর সমালোচনায় মনমোহন

বিধানসভা ভোটের শেষবেলার প্রচারে হেভিওয়েট সমাবেশ দেখলেন ছত্তিসগড়ের মানুষ। শুনলেন হেভিওয়েট রাজনৈতিক তরজা। প্রধানমন্ত্রীকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করলেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আডবাণী। প্রধানমন্ত্রী আবার নিশানা করলেন বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থীকে।

বিজেপির কার্যকর্তা মহাকুম্ভে একই মঞ্চে আডবাণী, মোদী

একই মঞ্চে লালকৃষ্ণ আডবাণী ও নরেন্দ্র মোদী। বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে মোদীর নাম ঘোষণার পর প্রথম একই মঞ্চে থাকছেন দুই নেতা। প্রথমে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রাথী হিসাবে মোদীর নাম ঘোষণায় আপত্তি থাকলেও পরে বরফ গলে। প্রকাশ্যে মোদীর হয়ে প্রশংসা করতে দেখা গেছে আডবাণীকে।

আডবাণীর আপত্তিকে পাত্তা না দিয়ে নরেন্দ্র মোদীই বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী

প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে সম্ভবত আজই নরেন্দ্র মোদীর নাম ঘোষণা করতে চলেছে বিজেপি। এনিয়ে আডবাণী শিবিরের আপত্তিকে কি আদৌ গুরুত্ব দেবে রাজনাথ সিং গোষ্ঠী? উত্তরটা লুকিয়ে রয়েছে আজ বিকেলে বিজেপির সংসদীয় বোর্ডের বৈঠকেই। মনে করা হচ্ছে এই বৈঠকের পরই মোদীর নাম ঘোষণা করে দেবে দল।

মোদীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীত্বের দৌড়ে আডবাণীও!

নরেন্দ্র মোদীর উত্থানের পরও কি প্রধানমন্ত্রিত্বের দৌড়ে রয়েছেন লালকৃষ্ণ আডবাণী ? দলের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে এই সম্ভাবনা উস্কে দিয়েছেন বিজেপি নেতা বিজয় গোয়েল। তাঁর মন্তব্য, আগামী লোকসভা নির্বাচনে আডবাণীর নেতৃত্বেই গঠিত হবে কেন্দ্রীয় সরকার। গোটা ঘটনায় বিজেপির অন্তর্দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে আসায় দলের সংসদীয় বোর্ডই প্রধানমন্ত্রী ঠিক করবে বলে  দায় এড়িয়েছেন রাজনাথ সিং।    

ইস্তফা দিচ্ছেন না গড়করি, পাশেই দল

দলের সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার প্রশ্নই নেই নিতিন গড়করির। শুক্রবার রাতে কোর কমিটির বৈঠকের পর একথা জানিয়ে দিলেন বিজেপি মুখপাত্র প্রকাশ

জাভরেকর। একই সঙ্গে তিনি বলেন, দুর্নীতি নিয়ে যেকোনওরকম তদন্তের জন্য তৈরি নিতিন গড়করি।

লোকসভা ভোট `অবৈধ` বলে বিতর্কে আডবাণী

নিজের ব্লগে ২০১৪ সালের আগামী লোকসভা নির্বাচনের পর অকংগ্রেস-অবিজেপি প্রধানমন্ত্রীর সম্ভাবনার কথা বলে গত সপ্তাহেই নিজের দল এবং সংঘ পরিবারের বিরাগভাজন হয়েছেন তিনি। এবার সংসদের বাদল অধিবেশনের সূচনাপর্বেই ২০০৯ সালের লোকসভা নির্বাচনকে `অবৈধ` বলে মন্তব্য করে শাসক জোটের নিশানা হলেন লালকৃষ্ণ আডবাণী।

অসম সফরে আডবাণী

অসমে অশান্তির মূল কারণ হল বাংলাদেশে থেকে অনুপ্রবেশ। আজ গুয়াহাটি এক সাংবাদিক বৈঠকে একথা বলেন বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আডবাণী। তাঁর অভিযোগ, অনুপ্রবেশকারীদের জন্যই শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে অসমে।

এনসিপি ছাড়লেন সাংমা, বৈঠক সুধীন্দ্রর সঙ্গে

শেষ পর্যন্ত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য এনসিপি থেকে পদত্যাগ করলেন পূর্ণ অ্যাজিটট সাংমা। আজ সুব্রহ্মণম স্বামীর সঙ্গে দেখা করে পদত্যাগের কথা জানিয়েছেন লোকসভার প্রাক্তন স্পিকার। এর ফলে তাঁর রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী হওয়া নিয়ে সংশয় অনেকটাই কেটে গেল বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসেবে লোকসভার প্রাক্তন স্পিকারকে সমর্থনের বিষয়ে প্রবল মতবিরোধ রয়েছে এনডিএ`তে।