লাভপুর গণধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত ১৩ জনকে দোষী সব্যস্ত করল আদালত

লাভপুর গণধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত ১৩ জনকে দোষী সব্যস্ত করল আদালত

অবশেষে বিচার পেলেন নির্যাতিতা। লাভপুর গণধর্ষণকাণ্ডে তেরো জনকে দোষী সাব্যস্ত করল বোলপুর আদালত। কাল এই মামলায় সাজা ঘোষণা হতে পারে।  

লাভপুর কাণ্ডে সিবিআই তদন্তে কেন রাজি নয় সরকার, হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের

লাভপুর কাণ্ডের সিবিআই তদন্তে কেন সরকার রাজি নয়, তা হলফনামা দিয়ে জানানোর নির্দেশ দিল হাইকোর্ট। পয়লা অগাস্ট হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রুদ্ধদ্বার শুনানিতে এদিন মামলার তদন্তকারী অফিসারকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেন বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত। প্রশ্ন ওঠে পুলিসের ভূমিকা নিয়ে।

বিচার চাইতে রাষ্ট্রপতির কাছে যাচ্ছেন জারিনা বিবি

কামদুনি, খরজুনার পর এবার লাভপুর। সুবিচারের দাবি নিয়ে এবার রাষ্ট্রপতির কাছে যাচ্ছেন জারিনা বিবি। রাষ্ট্রপতির কাছে নিয়ে যাওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। জারিনা বিবির সঙ্গে দেখা করার পর পরিবারের নিরাপত্তা নিয়ে জেলা পুলিস সুপারের সঙ্গে কথা বলেন অধীর চৌধুরী।

গণধর্ষণ ঢাকতে ফের ফতোয়া সালিসি সভা

বীরভূমের লাভপুরের ছায়া এবার মহম্মদ বাজারে। গণধর্ষণ ঢাকতে ফের ফতোয়া সালিসি সভার। বীরভূমের মহম্মদ বাজারের চম্বুরায় ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে গতকাল ধর্ষণ করে গ্রামেরই কয়েকজন যুবক। গ্রামের মোড়লদের ঘটনাটি জানায় নির্যাতিতার পরিবার। বসে সালিসি সভা। অভিযুক্ত তিন যুবককে চিহ্নিতও করা হয়।

আজ লাভপুর কাণ্ডের শুনানি, মনিরুল দিকেই সবার নজর

হাইকোর্টে আজ লাভপুর কাণ্ডের শুনানি। ২০১০ সালে লাভপুরের সালিশি সভায় তিন ভাইকে খুনের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত তৃণমূল বিধায়ক মনিরুল ইসলাম। আজ লাভপুর থানার ওসিকে কেস ডায়রি-সহ আদালতে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি। এই মামলার তদন্তের পদ্ধতি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন হাই কোর্টের বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত।

আজ লাভপুরে যাচ্ছে মহিলা কমিশনের প্রতিনিধি দল

সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আজ বীরভূমের লাভপুর যাচ্ছে রাজ্য মহিলা কমিশনের প্রতিনিধি দল। এর আগে সিউড়িতে নির্যাতিতা তরুণীর সঙ্গে কথা বলবেন তাঁরা। লাভপুরের ঘটনার পর এই প্রথম সেখানে যাচ্ছে রাজ্য মহিলা কমিশন। গতকালই হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে লাভপুরের নির্যাতিতা তরুণীকে। সিউড়িতে পুলিসি নিরাপত্তায় রাখা হয়েছে তাঁদের। এদিকে লাভপুর কাণ্ডে আজ সিউড়িতে প্রতিবাদ কর্মসূচি নিয়েছে জেলার বামপন্থী মহিলা সংগঠনগুলি।

লাভপুরে সালিসি সভা বসেছিল তৃণমূল পঞ্চায়েতের নেতৃত্বেই

লাভপুর তৃণমূলের পঞ্চায়েতের নেতৃত্বেই সেদিন লাভপুরে সালিসি সভা বসেছিল। চিঠিতে অজয় মণ্ডলের সই তারই প্রমাণ। মোড়লকে ঢাল করে শাসকদলের কর্মীদের আড়ালের চেষ্টা চলছে। আজ এমনই অভিযোগ করল কলকাতা আদিবাসী ইয়ুথ অ্যাসোসিয়েশন, মাঝি মাড়োয়া পরগনা সহ বেশকয়েকটি আদিবাসী সংগঠন।

ভাল আছে লাভপুরের নির্যাতিতা, রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব সুপ্রিম কোর্টের

সাতদিন পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া হল লাভপুরের নির্যাতিতা কিশোরীকে। তাঁর শারীরিক অবস্থা আপাতত সঙ্কটমুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিত্‍সকেরা। গতকালই বোলপুর আদালতে গোপন জবানবন্দি নেওয়া হয় ওই কিশোরীর। তিন ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে কিশোরীর সঙ্গে কথা বলেন বিচারক সুতপা মল্লিক। পাশের গ্রামের যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক থাকায় সালিশি সভায় তরুণীর গণধর্ষণের নিধান দেন গ্রামের মাতব্বররা।২১ জানুয়ারি রাতে গণধর্ষণ করা হয় ওই তরুণীকে।

লাভপুর কাণ্ড: রাজ্য প্রশাসনের ওপর আস্থা না রেখে বিচারবিভাগীয় তদন্তের রিপোর্ট চাইল শীর্ষ আদালত, ধৃত ১৩ জনের পুলিসি হেফাজত।

লাভপুরকাণ্ডে ধৃত তেরো জনের এবার পুলিসি হেফাজতের নির্দেশ দিল আদালত। অভিযুক্তদের ছয়ই ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুলিস হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রবল চাপের মুখে পড়ে আজ ধৃতদের নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আর্জি জানায় পুলিস। গতকাল কিন্তু ধৃতদের নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আর্জি জানায়নি পুলিস। ফলে অভিযুক্তদের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত। পুলিসের এই ভূমিকার নিন্দার ঝড় ওঠে বিভিন্ন মহলে। তড়িঘড়ি হস্তক্ষেপ করেন ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী। জেলা পুলিস সুপারকে সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশের পরেই নড়েচড়ে বসেন পুলিসকর্তারা।

লাভপুর ধর্ষণ কাণ্ডে ধৃতদের ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুলিস হেফাজতের নির্দেশ

লাভপুরকাণ্ডে চাপের মুখে শেষপর্যন্ত ধৃতদের নিজেদের হেফাজতে নিল পুলিস। অথচ গতকাল ধৃতদের পুলিসি হেফাজতে নেওয়ার কোনও আবেদন জানানো হয়নি। পুলিসের এই ভূমিকায় নিন্দার ঝড় ওঠে বিভিন্ন মহলে। আজ আদালতে নতুন করে পুলিসি হেফাজতের আবেদন জানানো হয়। অভিযুক্ত ১৩ জনকে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুলিস হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

লাভুপুরের ঘটনায় মুখর গোটা বিশ্ব, চুপ শুধু রাজ্য মানবাধিকার কমিশন

লাভপুরের এক তরুণীর উপর বর্বরোচিত ঘটনার পরও নজির বিহীন ভাবে চুপ রাজ্য মানবাধিকরার কমিশন। ঘটনায় হস্তক্ষেপ করেছে দেশের শীর্ষ আদালত। দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে বিদেশের সংবাদ পত্রের শিরোনামে উঠে এসেছে লাভপুর। প্রশ্ন উঠছে কী কারণে মুখ বন্ধ রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের?

লাভপুরে তৃণমূল বনাম তৃণমূল লড়াইয়ে খুন

তৃণমূলের গোষ্ঠীসংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল বীরভূমের লাভপুর। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হল একজনের। অভিযোগ, গতকাল রাতে স্থানীয় বিধায়ক মণিরুল ইসলামের অনুগামীরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বিরোধী গোষ্ঠীর ওপর হামলা চালায়। প্রতিবাদে পথ অবরোধ করেন বিরোধী গোষ্ঠীর লোকজন। অবরোধ তুলতে গেলে বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয় পুলিসকে। ভাঙচুর হয় পুলিসের গাড়ি।