আজ রাজ্য কমিটির বৈঠকে বসছে আরএসপি আজ রাজ্য কমিটির বৈঠকে বসছে আরএসপি

বাম-কংগ্রেস জোটের আসন রফা নিয়ে আজ রাজ্য কমিটির বৈঠকে বসছে আরএসপি।  জোট নিয়ে সিপিএমের একতরফা সিদ্ধান্তের অভিযোগে  আগেই আপত্তি তুলেছে  আরএসপি। তাঁদের অভিযোগ, শরিক দলের সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা না করেই জোট নিয়ে একতরফা সিদ্ধান্ত নিচ্ছে আলিমুদ্দিন। আজকের আলোচনায় গুরুত্ব পাবে মুর্শিদাবাদের  আসন বন্টন। গতবারের বিধানসভা নির্বাচনে  ২৩টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল আরএসপি। আরএসপি সূত্রের খবর, বাম-কংগ্রেস জোট হলে এবার তারা ৩টি আসন  ছাড়তে পারে। তিনের বেশি আসন কোনওভাবেই ছাড়তে রাজি নয় বামেদের এই শরিক দল। মুর্শিদাবাদে বেশ কয়েকটি জায়গায় আরএসপিরও সংগঠন যথেষ্ঠই মজবুত। আজকের  বৈঠকে  আসন বন্টনের বিষয়টিই সবথেকে বেশি গুরুত্ব পাবে বলে জানা গেছে। জোট ইস্যুতে আগামিকাল ফরোয়ার্ড ব্লকও বৈঠকে বসছে।

শীতে জমজমাট পাহাড়ের রাজনীতি, কংগ্রেস বা বামেদের সঙ্গে জোট করতে পারে মোর্চা শীতে জমজমাট পাহাড়ের রাজনীতি, কংগ্রেস বা বামেদের সঙ্গে জোট করতে পারে মোর্চা

জমে গেল পাহাড়ের রাজনীতি। পাহাড় সফরে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইঙ্গিত দেন, পাহাড়ের বাকি সব দলগুলিকে জড়ো করে মোর্চার বিরুদ্ধে প্রার্থী দিতে পারে তৃণমূল। প্রার্থী হিসেবে বেছে নেওয়া হতে পারে একদা বিমল গুরুংয়ের কাছের কাউকে। আজ পাল্টা দিলেন বিমল গুরুং। বললেন, তৃণমূলের বিভাজনের রাজনীতির মোকাবিলায় কংগ্রেস বা বামেদের সঙ্গেও জোট করতে পারে মোর্চা। বস্তুত শুধু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন, এভাবে বিজেপিকেও বার্তা দিলেন মোর্চা সভাপতি। কারণ মোর্চা কংগ্রেস কিংবা বামেদের সঙ্গে জোট বাঁধলে পাহাড়ে ক্ষতি বিজেপিরই। একই সঙ্গে তাঁর অভিযোগ, জিটিএ আইন মানছে না রাজ্য সরকার নিজেই।