পাঁচজন নেতামন্ত্রী রয়েছেন CBI-এর স্ক্যানারে, লক্ষ্যস্থির করে দিয়েছে খোদ প্রধানমন্ত্রীর দফতর

পাঁচজন নেতামন্ত্রী রয়েছেন CBI-এর স্ক্যানারে, লক্ষ্যস্থির করে দিয়েছে খোদ প্রধানমন্ত্রীর দফতর

চিটফান্ড কাণ্ডে তৃণমূলের কোন কোন নেতার বিরুদ্ধে তদন্ত করতে হবে? তা স্থির করে দিয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর দফতর। দেড় বছরের পুরনো এক চিঠিতে প্রকাশ্যে এল এই চাঞ্চল্যকর তথ্য। CBI ডিরেক্টরকে চিঠিটি লেখেন PMO-

বড়দিনের আগে বড় স্বস্তিতে মদন মিত্র

বড়দিনের আগে বড় স্বস্তিতে মদন মিত্র

পুজোর ঠিক আগেই সবচেয়ে বড় স্বস্তি পান মদন মিত্র। ২ বছর পর জেল থেকে ছাড়া পান। এবার বড়দিনের আগে মিলল আরও স্বস্তি। পুজোর আগে ছাড়া পেলেও ভবানীপুর থানা এলাকার বাইরে বেরোনোর অনুমতি ছিল না। বাড়ি যেতে

পুজোয় ঠাকুর দেখতে পারবেন মদন মিত্র!

পুজোয় ঠাকুর দেখতে পারবেন মদন মিত্র!

  ওয়েব ডেস্ক: পুজোয় স্বস্তিতে মদন মিত্র। তাঁকে বাড়িতে নজরবন্দি রাখার আর্জি খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

গলায় গামছা, মদন মিত্র এখন 'অভাবশালী', পুজোয় নাকি কেবলই কচুরি খাবেন!

গলায় গামছা, মদন মিত্র এখন 'অভাবশালী', পুজোয় নাকি কেবলই কচুরি খাবেন!

একদা মন্ত্রী। তবে এখন আর তিনি কেউ নন। সেটাই প্রমাণ করতে স্টাইল করে ভবানীপুরের রাস্তায় ঘুরলেন মদন মিত্র। তবে পা সামলেই চষছেন তিনি, পাছে পা না চলে যায় কালীঘাটে। 

 প্রভাবশালী তকমা ঘোঁচাতে মরিয়া মদন মিত্র কী করলেন!

প্রভাবশালী তকমা ঘোঁচাতে মরিয়া মদন মিত্র কী করলেন!

তিনি জেল থেকে ছাড়া পেয়েছেন।কিন্তু প্রভাবশালী তকমা ঘোঁচাতে মরিয়া মদন মিত্র গলায় গামছা দিয়ে বাজার ঘুরলেন। বাজারও করলেন একেবারে আম আদমির মত। সকালে ভাবনীপুরের ভাড়া বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর পাঁচটা

নাতির সঙ্গে খেললেন মদন

আদালতের নির্দেশ ভবানীপুরের বাইরে যাওয়া চলবে না। তাই এখন ভবানীপুরের একটি ভাড়া বাড়িতেই থাকছেন মদন মিত্র। আজ সেখানে থেকেই সোজা চলে গেলেন নর্দান পার্কের পুজো মণ্ডপে। সঙ্গে স্ত্রী, পুত্রবধূ। আর

ফের মদন মামলার শুনানি হাইকোর্টে

ফের মদন মামলার শুনানি হাইকোর্টে

সারদা চিটফান্ড মামলায় প্রভাবশালী তত্বে ২১ মাস জেলে থাকার পর গত ৯ সেপ্টেম্বর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মদন মিত্র। তবে, ছাড়া পাওয়ার পর আইনি গেরোয় তিনি

ভবানীপুরের বাইরে পা রাখতে পারবেন না, জামিনের গেরোয় মদন মিত্র

ভবানীপুরের বাইরে পা রাখতে পারবেন না, জামিনের গেরোয় মদন মিত্র

জামিনের গেরোয় মদন মিত্র। সারদা রিয়েলটি মামলায় আলিপুর আদালতে আজ মদন মিত্রের শুনানি। কিন্তু, আদালতে হাজির হতে পারবেন কি না, তা নিয়ে সন্দিহান মদন শিবির। কারণ, জামিনে শর্ত রয়েছে ভবানীপুর থানা এলাকার

মদনের জামিনের বিরোধিতায় হাইকোর্টে CBI, অস্ত্র সেই প্রভাবশালী তত্ত্ব

মদনের জামিনের বিরোধিতায় হাইকোর্টে CBI, অস্ত্র সেই প্রভাবশালী তত্ত্ব

মদন মিত্রের জামিনের বিরোধিতায় হাইকোর্টে যাচ্ছে CBI। ফের দ্রুত শুনানির আবেদন জানানো হবে। আবেদন জানাবেন স্বয়ং রাঘবচারুলু। 

মদনের সারাদিন

মদনের সারাদিন

দুপুরে সিবিআই অফিসে হাজিরা। সন্ধেয় ভবানীপুর থানায় রিপোর্টিং। দিনভর খবরে মদন মিত্র। যতবারই সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হলেন ততবারই বোঝানোর আপ্রাণ চেষ্টা করলেন, এখন আর তাঁকে প্রভাবশালী বলা চলে না।

ভবানীপুরের বাইরে যেতে পারবেন মদন মিত্র? আলিপুর আদালতে আজ ফের আবেদন জানাবেন তাঁর আইনজীবীরা

ভবানীপুরের বাইরে যেতে পারবেন মদন মিত্র? আলিপুর আদালতে আজ ফের আবেদন জানাবেন তাঁর আইনজীবীরা

মদন মিত্র জামিন পাওয়ার পর থেকে চলছে আইনি গেরোর গল্প! তিনি বাড়িতেই থাকতে পারলেন না, ঠিকানা ভুল লেখায়! এবার আইনি গেরোয় গতকাল CBI দফতরে হাজিরা দিতে পারেননি মদন মিত্র। আদৌ কি তিনি হাজিরা দিতে

মুখ্যমন্ত্রী মমতায় 'হতাশ' মদন অনুগামীরা

মুখ্যমন্ত্রী মমতায় 'হতাশ' মদন অনুগামীরা

আইনি গেরোয় ভবানীপুরের হোটেলে আটকে মদন মিত্র। হোটেল থেকেই সিঙ্গুরে চোখ রেখেছিলেন মমতার সিঙ্গুর আন্দোলনের সঙ্গী রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী। কিন্তু সিঙ্গুরের মঞ্চ থেকে একবারের জন্যও মদন মিত্রের নাম মুখে

অনুগামীদের বাধার মুখে মদনের হোটেলে নথি না দিয়েই ফিরল সিবিআই

অনুগামীদের বাধার মুখে মদনের হোটেলে নথি না দিয়েই ফিরল সিবিআই

হাইকোর্টে জামিন খারিজের আর্জি। মামলার নথি দিতে মদনের হোটেলে সিবিআই। সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গে মদন অনুগামীদের তর্কাতর্কি। বাধার মুখে নথি না দিয়েই ফিরতে হল সিবিআইকে।

হনুমানজির মন্দিরে পুজো দিয়ে মদন মিত্র বললেন, 'আমি এখন অভাবশালী'!

হনুমানজির মন্দিরে পুজো দিয়ে মদন মিত্র বললেন, 'আমি এখন অভাবশালী'!

মদন মিত্রর জামিন খারিজের জন্য কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করল সিবিআই। একই দিনে হনুমানজির মন্দিরে পুজো দিয়ে মদন বললেন, "তিনি প্রভাবশালী নন। তিনি এখন অভাবশালী। কমন ম্যান।"

মদন মিত্রের জামিন খারিজের দাবিতে আজই আদালতে যাচ্ছে সিবিআই

মদন মিত্রের জামিন খারিজের দাবিতে আজই আদালতে যাচ্ছে সিবিআই

মদন মিত্রর জামিনে খুব খুশি তিনি নিজে, তাঁর পরিবার, তাঁর দল এবং তাঁর অনুরাগীরা। কিন্তু তাঁর প্রায় দু’বছরের মাথায় জামিন পাওয়া এখনও মেনে নিতে পারছে না সিবিআই। তাই সিবিআই ফের কোমর বেঁধেই নামছে এবার। মদন

বাড়ির কাছে এসেও বাড়ি থেকে দূরে মদন মিত্র, কিন্তু হঠাত্‍ কেন এই সিদ্ধান্ত বদল?

বাড়ির কাছে এসেও বাড়ি থেকে দূরে মদন মিত্র, কিন্তু হঠাত্‍ কেন এই সিদ্ধান্ত বদল?

থানার জুরিসডিকশন মানচিত্র যে কত নির্মম হতে পারে, মদন গোপাল মিত্রই বোধহয় এখন সেটা সবচেয়ে ভাল জানেন। ভবানীপুরের বড়দা। এতদিন যে তকমাটা আত্মতৃপ্তি এনে দিত, এখন সেটাই যেন সবচেয়ে বড় আপদ হয়ে দাঁড়িয়েছে।