৪০৯ ধারায় 'হ্যাঁ' বিচারকের, ক্ষীণ হল মদনের জামিনের আশা, বিশৃঙ্খলার অভিযোগ বার অ্যাসোসিয়েশনের বিপক্ষে ৪০৯ ধারায় 'হ্যাঁ' বিচারকের, ক্ষীণ হল মদনের জামিনের আশা, বিশৃঙ্খলার অভিযোগ বার অ্যাসোসিয়েশনের বিপক্ষে

আইনজীবীদের নজিরবিহীন বিশৃঙ্খলার সাক্ষী থাকল আলিপুর আদালত। মদন মিত্রের বিরুদ্ধে চারশ নয় ধারা প্রয়োগ আটকাতে সোমবার এজলাসে ব্যাপক বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টির অভিযোগ উঠল  তৃণমূলপন্থী আইনজীবীদের বিরুদ্ধে। টানা চারঘণ্টা ঘেরাও করে রাখা হয় বিচারককে। শেষ পর্যন্ত থেকে রাত  সাড়ে দশটায় সারদা রিয়েলটি মামলায়  চারশ নয় ধারা প্রয়োগের সম্মতি দেন বিচারক।বিচার ব্যবস্থার উপর  আইনজীবীদের চাপ সৃষ্টির নজিরবিহীন ঘটনার সাক্ষী থাকল আলিপুর আদালত। সারদা রিয়্যালিটি মামলায় চারশো নয় ধারা যোগ করতে সোমবার আলিপুর আদালতের দ্বারস্থ হয় সিবিআই। সোমবারই এই ধারা যোগ না হলে জামিন পেয়ে যেতে পারতেন  মদন মিত্র।  শুরুতেই এক আইনজীবীর মৃত্যুর কারণ দেখিয়ে শুনানি স্থগিতের আবেদন জানায় বার অ্যাসোসিয়েশন ।  অন্য দিন শুনানির  আবেদন জানান অভিযুক্তপক্ষের আইনজীবীরাও। তবে বিচারক হারাধন মুখার্জি জানান, ওই মামলার কোনওশুনানি হচ্ছে না।  টাইপিংয়ে  ভুলের জন্য মামলায় ৪০৯ ধারা যোগ হয়নি।  কগনিজেন্স অর্ডারে চারশো নয় ধারা যোগ করার জন্য তিনি স্বতঃপ্রণোদিত আদেশ দেবেন। এর পরেই, এজলাসে চলে আসেন অন্য আইনজীবীরা।  শুরু হয় চরম বাকবিতণ্ডা, বিশৃঙ্খলা।