সারদা কাণ্ড: সম্পূর্ণ সুস্থ রজত মজুমদার, আজ ফের জেরার মুখে তৃণমূল নেতা বুয়া সারদা কাণ্ড: সম্পূর্ণ সুস্থ রজত মজুমদার, আজ ফের জেরার মুখে তৃণমূল নেতা বুয়া

রজত মজুমদার সম্পূর্ণ সুস্থ। ডাক্তারি পরীক্ষায় কোনও অস্বাভাবিকতা ধরা না পড়ায় তাঁকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল NRS-এর মেডিক্যাল বোর্ড। সারদা কেলঙ্কারিতে মঙ্গলবার গ্রেফতারের পরেই বুকে ব্যথা অনুভব করেন  রজত মজুমদার। NRS হাসপাতালে তিনবার ECG করা হয়েছে তাঁর। সমস্ত রিপোর্টই নর্মাল। এছাড়াও রজত মজুমদারের সিটি স্ক্যান ও মস্তিষ্কের MRI করা হয়েছিল। সেইসব রিপোর্টও নর্মাল। যদিও, তাঁর মস্তিষ্কে কয়েকটি ছোট ছোট ব্লাড ক্লট ধরা পড়েছে। চিকিত্‍সকদের মতে সেইসব ক্লট বেশ পুরনো, এবং তার থেকে অসুস্থ হয়ে পড়ার সম্ভাবনা নেই। ভবিষ্যতে কোনও শারীরিক অসুবিধা হলে তাঁকে আউটডোরে দেখানোর পরামর্শ দিয়েছে মেডিক্যাল বোর্ড।   

আগামী সপ্তাহে মদন মিত্রকে ডাক পাঠাতে পারে সিবিআই আগামী সপ্তাহে মদন মিত্রকে ডাক পাঠাতে পারে সিবিআই

সারদা মামলায় এবার সিবিআইয়ের নজরে মন্ত্রী মদন মিত্র। আগামী সপ্তাহের যে কোনও দিন পরিবহণ মন্ত্রীকে সমন ধরাতে চলেছে সিবিআই। মন্ত্রীর আপ্ত  সহায়ক বাপি করিম ও সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেনকে জেরা করে  কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা জানতে পেরেছেন, সারদার মিডল্যান্ড পার্কের অফিসে প্রায়ই যেতেন মদন মিত্র।  এরপরই মদন মিত্রকে সমন পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিবিআই। একইসঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ মিঠুন চক্রবর্তীকে। মিঠুন-মদনের সঙ্গে আগামী সপ্তাহে ডাকা হতে পারে আরও তিন প্রভাবশালী ব্যক্তিকেও।

সারদা মামলার তদন্তের রিপোর্ট চাইল দিল্লির সিবিআই দফতর সারদা মামলার তদন্তের রিপোর্ট চাইল দিল্লির সিবিআই দফতর

সারদা মামলায় এখনও পর্যন্ত হওয়া তদন্তের ভিত্তিতে রিপোর্ট চেয়ে পাঠাল দিল্লির সিবিআই দফতর। মামলার তদন্তে আরও গতি আনার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এরপরই এই অন্তর্বর্তীকালীন রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে। ওই রিপোর্ট দেখে তদন্তের পরবর্তী পরিকল্পনা চূড়ান্ত করতে চলেছে সিবিআই সদর দফতর। আগামী সপ্তাহেই পাঠিয়ে দেওয়া হবে রিপোর্টটি।    কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশ, সারদা মামলার তদন্ত আরও দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছ থেকে সবুজ সঙ্কেত পেয়েই তদন্তের গতি আরও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে সিবিআই সূত্রে খবর। সেই কারণেই সারদা মামলায় এখনও পর্যন্ত হওয়া তদন্তের ভিত্তিতে একটি রিপোর্ট চেয়েছে দিল্লির সিবিআই দফতর। এর পাশাপাশি, সন্দেহভাজন হিসেবে কোন কোন প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতা এবং ব্যবসায়ীর নাম উঠে এসেছে তদন্তে, তারও একটি তালিকা পাঠানো হবে দিল্লিতে।