মদন-হারের ময়নাতদন্তে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব

মদন-হারের ময়নাতদন্তে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব

মদন-হারের ময়নাতদন্তে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। কামারহাটিতে কেন হারলেন প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্র? জেলা নেতাদের কাছ থেকে তা জানতে চেয়েছেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব। জবাব তলব করা হয়েছে কামারহাটির স্থানীয় নেতাদের থেকেও। ৭ দিনের মধ্যে দিতে হবে রিপোর্ট।

মদন-হারের ময়নাতদন্তে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব মদন-হারের ময়নাতদন্তে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব

এবার মদন-হারের ময়নাতদন্তে নামল তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। কামারহাটিতে কেন হারলেন প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্র?  জেলা নেতৃত্বের কাছ থেকে সেই কারণ জানতে চেয়েছেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। জবাব তলব করা হয়েছে কামারহাটির স্থানীয় নেতাদের থেকেও। গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই মদন মিত্র হেরেছেন বলে দাবি মদন-অনুগামীদের। পুরসভার চেয়ারম্যান গোপাল সাহার বিরুদ্ধে অন্তর্ঘাতের অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা। গতকাল গোপাল সাহার বিরুদ্ধে অন্তর্ঘাতের অভিযোগে বিক্ষোভ দেখায় মদন ঘনিষ্ঠরা। গোপাল সাহার লোকজন আপত্তি জানালে শুরু হয়ে যায় মারামারি। অন্তর্ঘাতের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কামারহাটি পুরসভার চেয়ারম্যান গোপাল সাহা।

কামারহাটিতে মদন মিত্রর হারের জেরে শাসকদলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে হাতাহাতি কামারহাটিতে মদন মিত্রর হারের জেরে শাসকদলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে হাতাহাতি

কামারহাটিতে মদন মিত্রর হারের জেরে শাসকদলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বেধে গেল হাতাহাতি। আজ সকালে কামারহাটি পুরসভার চেয়ারম্যান গোপাল সাহার বিরুদ্ধে অন্তর্ঘাতের অভিযোগে বিক্ষোভ দেখায় এক গোষ্ঠী। অন্য পক্ষ আপত্তি জানালে শুরু হয়ে যায় মারামারি। অভিযোগ অস্বীকার করেছেন গোপাল সাহা। ঘটনার কথা জেনে ঘনিষ্ঠ মহলে মদন মিত্রর মন্তব্য, সিপিএম পিছন থেকে এলাকা অশান্ত করতে চাইছে।

মেজাজে মদন, দাবি করলেন ২০০-র বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় ফিরছে তৃণমূল মেজাজে মদন, দাবি করলেন ২০০-র বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় ফিরছে তৃণমূল

জোট নয়। সরকার গড়বে তৃণমূলই। আর সেই সরকারে আবার মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২৪ ঘণ্টাকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাতকারে মদন মিত্র দাবি করলেন, ২০০-র বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় ফিরছে তৃণমূল কংগ্রেস।

মদনে এবার আরও কঠোর কমিশন, হাসপাতালে থাকলেও কার্যত বন্দিই তিনি মদনে এবার আরও কঠোর কমিশন, হাসপাতালে থাকলেও কার্যত বন্দিই তিনি

মদনে এবার আরও কঠোর কমিশন। হাসপাতালেই নিষেধাজ্ঞার জালে বন্দি ভবানীপুরের বড়দা। পরিবারের সদস্যরা ছাড়া আর কেউ এসএসকেএমে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না। মোবাইল ফোনও ব্যবহার করতে পারবেন না মদন মিত্র। আজ থেকেই লাগু এই নিয়ম-নিষেধাজ্ঞা।   

মদন মিত্রের চিকিত্সায় মেডিক্যাল বোর্ড গঠন এসএসকেএমের, শ্বাসকষ্ট থাকায় তাঁকে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে মদন মিত্রের চিকিত্সায় মেডিক্যাল বোর্ড গঠন এসএসকেএমের, শ্বাসকষ্ট থাকায় তাঁকে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে

মদন মিত্রের চিকিত্‍সার জন্য মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করল এসএসকেএম। মেডিক্যাল বোর্ডের তত্ত্বাবধানে মদন মিত্রের কয়েকটি ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে। এখনও শ্বাসকষ্ট থাকায় তাঁকে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে।

শ্বাসকষ্টের কারণে এসএসকেএমে ভর্তি করা হল মদন মিত্রকে শ্বাসকষ্টের কারণে এসএসকেএমে ভর্তি করা হল মদন মিত্রকে

ভোটের পরদিনই হঠাত্‌ বুকে ব্যথা মদন মিত্রের। সঙ্গে শ্বাসকষ্ট। তড়িঘড়ি তাঁকে আনা হল এস এস কে এমে। আলিপুর সেন্ট্রাল জেল থেকে তাঁকে সঙ্গে সঙ্গে ভর্তি করা হল পিজিতে। গতকাল দিনভর জেলের ভিতর নজরবন্দি ছিলেন কামারহাটির হেভিওয়েট তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র। সেলের ভিতরে দিনভর তাঁর পিছু ছাড়েননি ডেপুটি জেলর এবং দুজন সিপাই। দিনভর মনমরা ছিলেন তিনি। টিভিতে মাঝেমধ্যেই ভোটের খবর দেখেছেন। কিন্তু চিন্তায় মুখে তোলেননি তেমন কিছুই। বাবার অনুপস্থিতিতে গড় সামলান ছেলে শুভরূপ মিত্র। তারপর আজ হঠাত্‌ই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

বাবার অনুপস্তিতিতে ময়দান সামলালেন ছেলে বাবার অনুপস্তিতিতে ময়দান সামলালেন ছেলে

সারদা কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত বাবা। নভেম্বর ২০১৫ থেকে জেলই ঠিকানা মদন মিত্রের। মাঝে একদিনের জন্য জামিনে মুক্ত হলেও ফের তাঁকে ফিরতে হয় জেলে। তবে জেলে থাকলেও তাঁর প্রার্থী হওয়া আটকায়নি। ২০১৬ বিধানসভা নির্বাচনেও কামারহাটিতে মদন মিত্রের উপর আস্থা রাখেন নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু গোদের উপর বিষফোঁড়ার মত ভোটের আগে উদয় হয় নারদ পর্ব। সারদা কাণ্ডের পর এবার ঘুষকাণ্ডে নাম জড়ায় প্রাক্তন মন্ত্রীর।

হেভিওয়েট প্রার্থী মদন মিত্র হেভিওয়েট প্রার্থী মদন মিত্র

প্রার্থীর নাম- মদন মিত্র

মদন মিত্রকে হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন নেই, জানালেন চিকিত্‌সকেরা মদন মিত্রকে হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন নেই, জানালেন চিকিত্‌সকেরা

অসুস্থ মদন মিত্র। ভোটের আগের দিন অসুস্থ হয়ে পড়লেন কামারহাটির তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী। কিন্তু মদনকে হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন নেই। জানিয়ে দিলেন এসএসকেএম হাসপাতালের চিকিত্‌সকেরা। মদনের শারীরিক অবস্থা পরীক্ষার পর সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। আগামীকালই কামারহাটি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোট। সারদা কেলেঙ্কারিতে অভিযু্ক্ত মদন মিত্র বর্তমানে আলিপুর সেন্ট্রাল জেলে রয়েছেন।

প্রচারে বেরোতে চান, প্যারোলের আবেদন মদনের প্রচারে বেরোতে চান, প্যারোলের আবেদন মদনের

নিজের কেন্দ্রে নির্বাচনী প্রচারের জন্য ভোটের আগে প্যারোল চান কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র। কারা দফতরের কাছে আবেদনও জানিয়েছেন তিনি। মদন মিত্রের প্যারোলের সেই আবেদন নির্বাচন কমিশনের কাছে বিবেচনার জন্য পৌছে দিয়েছেন কারা দফতরের কর্তারা। কমিশন চাইলেই মদন মিত্র প্যারোল পেতে পারেন।

হ্যান্ড সাইরেন বাজিয়ে মদন মিত্রকে আদালতে হাজির করল পুলিস

হ্যান্ড সাইরেন বাজিয়ে মদন মিত্রকে আদালতে হাজির করল পুলিস। সাংবাদিকরা মদনের উদ্দেশে কিছু বলার চেষ্টা করলেও সাইরেনের শব্দে শোনা যায়নি কিছুই। নারদ অস্বস্তির হাত থেকে মদন মিত্রকে বাঁচাতেই কি পুলিসের এই অতি সক্রিয়তা? প্রশ্ন উঠছে।

কামারহাটিতে হঠাত্ই হাজির তৃণমূলের দাপুটে নেতা মদন মিত্র! কামারহাটিতে হঠাত্ই হাজির তৃণমূলের দাপুটে নেতা মদন মিত্র!

তিনি জেলে। কিন্তু কামারহাটিতে হঠাত্‍ই হাজির তিনি। তৃণমূলের দাপুটে নেতা মদন মিত্রকে দেখা গেল কামারহাটির রাস্তায়।

প্রার্থী হয়েই কনফিডেন্ট মদন মিত্র প্রার্থী হয়েই কনফিডেন্ট মদন মিত্র

ভোটে প্রার্থী হয়েই অন্য মুডে মদন মিত্র। প্রচারে নামতে ছটফট করছেন। তাই আদালতে গিয়ে আজ সিবিআইয়ের আইনজীবীকেই বলেন, তাঁর মুক্তির জন্য কিছু করতে। সিবিআই আইনজীবী অবশ্য তাঁকে আশ্বাস দিতে পারেননি। তবে জেলবন্দি হলেও যে কুছ পরোয়া নেহি, তা আজ হাবেভাবে, কথায় স্পষ্টই বুঝিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী।

 জেলের ভিতর থেকেই ভোটে লড়বেন মদন মিত্র জেলের ভিতর থেকেই ভোটে লড়বেন মদন মিত্র

জেলের ভিতর থেকেই ভোটে লড়বেন মদন মিত্র। প্রচারের জন্য প্যারোলের আবেদন করবেন না। মনোনয়নও জমা দেবেন জেলের ভিতর থেকেই। বিতর্ক এড়াতে সিদ্ধান্ত কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থীর। এরাজ্যে বিচারাধীন বন্দির ক্ষেত্রে প্যারোল মঞ্জুর হয় না। তাই, আদালতে প্যারোলের আবেদন করবেন না মদন মিত্র। সামনেই বিধানসভা ভোট। তার আগে কোনওরকম বিতর্কে জড়াতে চান না কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থী।  সেজন্যই এইমুহুর্তে জামিনের আবেদনও করতে চান না মদন মিত্র।

জেলে থেকেই ভোটে লড়বেন মদন জেলে থেকেই ভোটে লড়বেন মদন

নেতা জেলে তাতে কী? প্রার্থী হিসাবে মদন মিত্রর নাম ঘোষণা হতেই কামারহাটিতে প্রচারে নেমে পড়লেন তৃণমূল কর্মীরা।