ঘুমের ওষুধ খাইয়ে সম্পত্তি হাতানোর চেষ্টা চলছিল, ব্যক্তিগত সহকারীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ মহাশ্বেতা দেবীর

ঘুমের ওষুধ খাইয়ে সম্পত্তি হাতানোর চেষ্টা চলছিল, ব্যক্তিগত সহকারীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ মহাশ্বেতা দেবীর

বেশি মাত্রায় ঘুমের ওষুধ খাইয়ে তাঁর সম্পত্তি হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছিল। দীর্ঘদিনের ব্যক্তিগত সহকারীর বিরুদ্ধে এমনই গুরুতর অভিযোগ আনলেন সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবী। তাঁর আরও অভিযোগ, পরিকল্পনামাফিক ওই ব্যক্তি সরকারের কাছে মিথ্যা হলফনামা জমা  দিয়েছিলেন। ছেলে নবারুণের সঙ্গে গণ্ডগোলের জন্যও ওই ব্যক্তিকেই কাঠগড়ায় তুললেন প্রবীণ সাহিত্যিক।  শেষ কয়েকবছর মহাশ্বেতাদেবী যখনই কিছু বলেছেন তাঁকে ঘিরে থাকতে দেখা গেছে অনুগামীদের।  শনিবার তাঁর নাতিকে পাশে বসিয়ে বেশকিছু গুরুতর অভিযোগ করতে শোনা গেল বিশিষ্ট সাহিত্যিককে।

প্রেসিডেন্সি হামলা: জোরালো তৃণমূলের যোগসাজশের তত্ত্ব

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যশালী বেকার ল্যাবে ভাঙচুরের ঘটনায় তৃণমূলের যোগাসাজশের অভিযোগ ফের জোরালো হল। মানবাধিকার কমিশনের কাছে জোড়াসাঁকো থানার পুলিসকর্মীরা যে সাক্ষ্য দিয়েছেন, তাতে ভাঙচুরের ঘটনায় তৃণমূলের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। 

প্রেসিডেন্সিতেও `সাজানো` ঘটনার তত্ত্বে শাসকের নিশানায় পাপ্পু

প্রেসিডেন্সি কাণ্ডেও সাজানো ঘটনার তত্ত্ব হাজির করল সরকার। শিল্পমন্ত্রীর মন্তব্য, পুরো ঘটনার পিছনে ষড়যন্ত্র আছে। শুক্রবারই, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তারক্ষী পাপ্পু সিংকে গ্রেফতারের দাবি করেন তিনি। রাতেই পাপ্পু সিংকে থানায় ডেকে পাঠানো হয়। যদিও, ছাত্র এবং কর্তৃপক্ষের আপত্তিতে রাতে তাঁকে থানায় যেতে হয়নি। গতকাল, জোড়াসাঁকো থানার পুলিস তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। তবে, পুলিস পাপ্পুকে গ্রেফতার না করায় ক্ষোভ গোপন করেননি শিল্পমন্ত্রী।

ক্যামেরায় প্রমাণ, হামলাকারীরা তৃণমূল কর্মী সমর্থক

শাসকদলের নেতামন্ত্রীদের দাবি, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস বা টিএমসিপির কেউ জড়িত নন। চব্বিশ ঘণ্টার হাতে আসা এক্সক্লুসিভ ছবি কিন্তু সেকথা বলছে না। বুধবার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলা। বৃহস্পতিবার আমরা দেখাই কারা যুক্ত ওই হামলার সঙ্গে। কারা ছিলেন তাদের কিছু পরিচয় পাওয়া গেছে।

প্রেসিডেন্সিতে হামলা, শাসকের নিশানায় উপাচার্য

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনায় অস্বস্তি এড়াতে উপাচার্যকেই নিশানায় করল শাসক দল। হামলা নিয়ে শাসক দলের দিকেই আঙুল তুলেছিলেন উপাচার্য মালবিকা সরকার। এবারে উপাচার্যের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে প্রশ্ন তুললেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়৷ বললেন, মালবিকা সরকারের ইতিহাস-ভূগোল আগে দেখা দরকার৷

প্রেসিডেন্সিতে হামলা, মৌন মিছিলে প্রতিবাদ রাজপথে

গতকাল প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃণমূল ছাত্রপরিষদের তাণ্ডবের প্রতিবাদে আজ মৌনমিছিলে পা মেলালেন ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরই বর্তমান, প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে অধ্যাপক-অধ্যাপিকারাও। বুধবারই প্রেসিডেন্সির বর্তমান ছাত্রছাত্রীরা বৃহস্পতিবারকে প্রতিবাদ দিবস হিসাবে ঘোষণা করেন। মাথায় কালো কাপড় বেঁধে আজ মিছিলে পা মেলালেন দলমত নির্বিশেষে সকলেই। কলেজ ক্যাম্পাস থেকে শুরু হওয়া এই মিছিল শেষ হওয়ার কথা ছিল রাজভবনের সামনে। কিন্তু রাণি রাসমনি অ্যাভেনিউতেই এই মিছিল থামিয়ে দিল পুলিস।  সেখানে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে ডেপুটেশন জমা দিতে রওনা দিয়েছেন ছাত্র-ছাত্রী, অধ্যাপকদের প্রতিনিধিদল। 

প্রেসিডেন্সিতে তাণ্ডব, রাজ্যের সমালোচনায় মহাশ্বেতা

প্রেসিডেন্সিতে তাণ্ডবের জেরে ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়নি রাজ্যের। আজ এমনই প্রতিক্রিয়া বিশিষ্ট সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবীর। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই হামলার তীব্র নিন্দা করে তিনি বলেন, এই ধরণের ঘটনা রুখতে আরও গঠনমূলক পদক্ষেপ নিতে হবে রাজনৈতিক দলগুলিকেই।

ফের জোটে মমতা-মহাশ্বেতা

দীর্ঘদিন পর ফের একমঞ্চে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও মহাশ্বেতা দেবী। পানাগড়ে মাটি উত্সবের সূচনা করে মহাশ্বেতা দেবীকে সংবর্ধনা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। পাল্টা সরকারের সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরে মুখ্যমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা শোনা গেল প্রবীণ সাহিত্যিকের গলায়।

মাওবাদী-প্রসঙ্গে চাপ বাড়ালেন মহাশ্বেতা দেবী

জঙ্গলমহলে যৌথ বাহিনী প্রত্যাহারের প্রশ্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপরে চাপ বাড়ালেন সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবী। প্রশ্ন তুললেন, রাজ্য সরকারের সদিচ্ছা নিয়ে।

মাওবাদী-প্রসঙ্গে চাপ বাড়ালেন মহাশ্বেতা দেবী

জঙ্গলমহলে যৌথ বাহিনী প্রত্যাহারের প্রশ্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপরে চাপ বাড়ালেন সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবী। প্রশ্ন তুললেন, রাজ্য সরকারের সদিচ্ছা নিয়ে।