প্রেসিডেন্সির মেন্টর গ্রুপে ফিরছেন মালবিকা সরকার

মেন্টর গ্রুপের সদস্য হিসেবে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরতে চলেছেন মালবিকা সরকার। ইতিমধ্যেই কাউন্সিল তাঁকে পরিচালন সমিতির সদস্যও মনোনীত করেছে। উপাচার্য হিসেবে মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই গত মে মাসে তাঁকে দায়িত্ব হস্তান্তর করতে হয়। দায়িত্ব হস্তান্তরের বিষয়টি আগে থেকে না জানানোয় সরকার ও রাজ্যপালের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিতর্কে জড়ান তিনি। তাঁকে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। অথচ তাঁকেই জানানো হয়নি। সরকার এবং খোদ রাজ্যপালের সৌজন্যবোধ নিয়ে প্রশ্ন তুলে শেষ বেলায় রীতিমত হইচই ফেলে দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্কালীন উপাচার্য মালবিকা সরকার।

`কবে দায়িত্ব ছাড়তে হবে, লিখিত ভাবে জানানো হয়নি`

দায়িত্ব ছাড়ার দিনে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন প্রেসিডেন্সির বিদায়ী উপাচার্য মালবিকা সরকার। নতুন উপাচার্যকে পাশে বসিয়েই বললেন, কবে দায়িত্ব ছাড়তে হবে একথা লিখিতভাবে জানানোই হয়নি তাঁকে। সবটাই তিনি জেনেছেন সংবাদমাধ্যম থেকে। তাঁর অভিযোগের আঙুল ছিল আচার্য এবং রাজ্য সরকারের দিকে । তুলেছেন রুচিবোধের প্রশ্নও।

প্রেসিডেন্সিতে হামলা, শাসকের নিশানায় উপাচার্য

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনায় অস্বস্তি এড়াতে উপাচার্যকেই নিশানায় করল শাসক দল। হামলা নিয়ে শাসক দলের দিকেই আঙুল তুলেছিলেন উপাচার্য মালবিকা সরকার। এবারে উপাচার্যের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে প্রশ্ন তুললেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়৷ বললেন, মালবিকা সরকারের ইতিহাস-ভূগোল আগে দেখা দরকার৷

টালমাটাল প্রেসিডেন্সিতে উত্‍সাহ নেই অধ্যাপকদের

অন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রেসিডেন্সিকে আলাদা করে বিশেষ স্ট্যাটাস দিতে হবে। এমনটাই নিজেদের সুপারিশে লিখেছিল মেন্টর গ্রুপ। মনে করা হয়েছিল বিশেষ তকমা দিলেই দেশবিদেশের নামীদামী প্রফেসররা প্রেসিডেন্সিতে আসবেন পড়াতে।

প্রেসিডেন্সিতে উপাচার্য মেন্টর গ্রুপের বৈঠক

মুখ্যমন্ত্রীর কাছে দ্বিতীয় দফার রিপোর্ট পেশের আগে আজ প্রেসিডেন্সির নতুন উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠক করলেন মেন্টর গ্রুপের সদস্যরা। আগামী জানুয়ারি মাসে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে দ্বিতীয় দফার রিপোর্ট জমা দেবে মেন্টর গ্রুপ।

নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে আগামী মাসেই বৈঠক প্রেসিডেন্সিতে

জানুয়ারি মাস থেকেই প্রায় দুশোটিরও বেশি শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু করবে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালযের উপাচার্য মালবিকা সরকার জানিয়েছেন, নিয়োগের পদ্ধতি নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামী মাসেই বৈঠকে বসবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাউন্সিল।

ঘেরাও প্রেসিডেন্সির উপাচার্য

ছাত্রদের দাবি সরকারের কাছে জানানো নিয়ে উপাচার্যের আশ্বাস পাওয়ার পরই ঘেরাও উঠল প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে। শিক্ষা অর্ডিনান্সে ছাত্রদের প্রতিনিধিত্ব রাখার দাবিতে আজ প্রেসিডেন্সির বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে ঘেরাও করে আইসির ছাত্ররা।

প্রেসিডেন্সিতে উপাচার্য-মেন্টর গ্রুপের বৈঠক

শুধমাত্র মানোন্নয়নই নয়, গবেষণাধর্মী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসাবেও প্রেসিডেন্সিকে গড়ে তোলা হবে। আজ উপাচার্য মালবিকা সরকারের সঙ্গে বৈঠকের পর একথা জানান মেন্টর গ্রুপের সদস্যেরা। বিদেশের নামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত অনেকেই প্রেসিডেন্সিতে পড়ানো ও গবেষণার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বলে জানান উপাচার্য।

দায়িত্ব নিলেন নতুন উপাচার্য

বাস্তব ও প্রত্যাশার মধ্যেও ফারাক থাকা সত্ত্বেও প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়কে সেন্টার ফর এক্সেলেন্সে পরিণত করা সম্ভব।