বিজেপিকে রুখতে দেশজুড়ে বিরোধীদের একজোট করার চেষ্টায় তৃণমূল

বিজেপিকে রুখতে দেশজুড়ে বিরোধীদের একজোট করার চেষ্টায় তৃণমূল

বিজেপিকে রুখতে জাতীয় স্তরে বিরোধীদের একজোট করার চেষ্টা চালাচ্ছে তৃণমূল। তার জন্য বিভিন্ন বিরোধী দলের কর্মসূচিতে সামিল হতে চলেছেন রাজ্যের শাসকদলের নেতারা। দিল্লিতে কাল জনতা পরিবারের ধর্নামঞ্চে হাজির থাকবেন ডেরেক ও'ব্রায়েন। তামিলনাড়ুতে ভাইকোর ডাকা সমাবেশে অংশ নেবেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সারদা নিয়ে চাপে গোটা দল। রাজ্যে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত উদ্বেগ আরও বাড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে জাতীয় স্তরে বিরোধী ঐক্য গড়ে তুলতে তত্‍পর তৃণমূলনেত্রী। গত চোদ্দই নভেম্বর নেহরুর একশো পঁচিশতম জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠানে দিল্লিতে নেত্রীর গলায় শোনা গিয়েছিল, বিরোধী ঐক্য গড়ে তোলার ডাক।

ছবি প্রামাণ্য হলে সাহারা কেলেঙ্কারিতে গ্রেফতার করা হোক মোদীকে: মমতা ছবি প্রামাণ্য হলে সাহারা কেলেঙ্কারিতে গ্রেফতার করা হোক মোদীকে: মমতা

সারদার পালটা হিসাবে সেই সাহারাকেই বেছে নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সারদাকাণ্ডে পরিবহণমন্ত্রী মদন মিত্রের গ্রেফতারির প্রতিবাদ করে এবার সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধেই আক্রমণ হানলেন তিনি। আজ, গোষ্ঠপাল মূর্তির পাদদেশে তৃণমূলের প্রতিবাদী সভায় মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন ''যদি একটা ছবিই ষড়যন্ত্রের প্রমাণ হয় তাহলে সাহারা কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অপরাধে গ্রেফতার করা উচিৎ প্রধানমন্ত্রীকে।'' প্রসঙ্গত, সারদা অধিকর্তা সুদীপ্ত সেনের সঙ্গে একই মঞ্চে হাসিহাসি মুখে পরিবহণ মন্ত্রী মদন মিত্রের ছবি নিয়ে বহুদিন আগে থেকেই বিতর্ক শুরু হয়েছিল। তবে, আজ প্রথম নয়। কিছুদিন আগেই বিজেপির সঙ্গে সাহারা যোগ নিয়ে তৃণমূল সাংসদদের লোকসভার বাইরে  'লাল ডায়েরি' হাতে প্রতিবাদ করতে দেখা গিয়েছিল। যদিও, সেই ডায়েরিতে আসলে কী আছে সে বিষয়ে তাঁদের মধ্যে কেউই সুস্পষ্ট জবাব দিতে পারেননি।