''রবীন্দ্রনাথ ছিলেন ইংরেজদের হাতের পুতুল, নেতাজি জাপানিদের চর,'' বললেন কাটজু

''রবীন্দ্রনাথ ছিলেন ইংরেজদের হাতের পুতুল, নেতাজি জাপানিদের চর,'' বললেন কাটজু

বিতর্কিত মন্তব্যের নয়া নজির গড়লেন সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মার্কণ্ডেয় কাটজু। টুইটারে কাটজু লেখেন, 'রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন ব্রিটিশদের হাতের পুতুল, আর নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু ছিলেন জাপানিদের চর।

লাহোটিকে চ্যালেঞ্জ করে নিজের অভিযোগের সপক্ষে কাটজুর ৬ প্রশ্নবাণ লাহোটিকে চ্যালেঞ্জ করে নিজের অভিযোগের সপক্ষে কাটজুর ৬ প্রশ্নবাণ

গতকালই প্রথম ইউপিএ সরকারের আমলে সম্পূর্ণ অনৈতিকভাবে মাদ্রাজ হাইকোর্টের এক বিচারপতির চাকরির মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল বলে অভিযোগ করেছিলেন মার্কন্ডেও কাটজু। এই বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টেরই তিন প্রাক্তন বিচারপতি ওই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন কাটজু। তাঁর অভিযোগের তির ছিল তিন প্রাক্তন বিচারপতি আর সি লাহোটি,ওয়াই কে সবরওয়াল এবং কে জি বালকৃষ্ণনের দিকে।

ইউপিএ আমলে অনৈতিকভাবে বাড়ানো হয়েছিল মাদ্রাজ হাইকোর্টের বিচারপতির মেয়াদ, বিস্ফোরক অভিযোগ কাটজুর    ইউপিএ আমলে অনৈতিকভাবে বাড়ানো হয়েছিল মাদ্রাজ হাইকোর্টের বিচারপতির মেয়াদ, বিস্ফোরক অভিযোগ কাটজুর

ফের সংবাদ শিরোনামে মার্কণ্ডেয় কাটজু। তাঁর দাবি,সম্পূর্ণ অনৈতিকভাবে মাদ্রাজ হাইকোর্টের এক বিচারপতির চাকরির মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল প্রথম ইউপিএ সরকারের আমলে । সুপ্রিম কোর্টেরই তিন প্রাক্তন বিচারপতি ওই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান । কাটজুর দাবি,তামিলনাড়ুর এক শরিক দলের চাপেই মাদ্রাজ হাইকোর্টের ওই বিচারপতির চাকরির মেয়াদ বাড়ানো হয়   ।না হলে ,প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংকে সরকার ফেলে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন ওই দলের নেতারা ।

নিম্নমানের লেখক রুশদি, বললেন কাটজু

মাস কয়েক আগেই সাংবাদিকদের `জ্ঞান` এবং `শিক্ষা`র গভীরতা নিয়ে কটাক্ষ করে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন তিনি। এবার সলমন রুশদিকে `একজন খারাপ ও নিম্নমানের লেখক` বলে বর্ণনা করে নয়া বিতর্কের জন্ম দিলেন প্রেস কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া-র চেয়ারম্যান মার্কন্ডেয় কাটজু।