বিয়ের প্রস্তাবে নারাজ, বিধাননগরে শ্লীলতাহানির শিকার কিশোরী বিয়ের প্রস্তাবে নারাজ, বিধাননগরে শ্লীলতাহানির শিকার কিশোরী

এবার খোদ বিধাননগরের বিডি ব্লকে আক্রান্ত কিশোরী। অভিযোগ, বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মারধর করে তার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে দুই যুবক। আহত অবস্থায় তাকে রাস্তাতেই ফেলে রেখে উধাও হয় হামলাকারীরা। কিশোরীর অভিযোগ, তার সাহায্যে এগিয়ে আসেননি কোনও পথচারী। ওই দুই যুবকের বিরুদ্ধে বিধাননগর উত্তর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে কিশোরীর পরিবার।শুক্রবার রাতে  কাজ  সেরে বাড়ি ফিরছিল বিধাননগরের বাসিন্দা  এক  কিশোরী।  বিডি ব্লকের কাছে হঠাত্‍ই তাঁর পথ আগলে দাঁড়ায় পাতিপুকুরের বাসিন্দা তপন সরকার। সঙ্গী ছিল আরও একজন। কিশোরীকে বিয়ের প্রস্তাব দেয় ওই যুবক।

'অপরাধ` মদ, জুয়ার আসরের প্রতিবাদ, পাঁশকুড়ায় আক্রান্ত শিক্ষিকা, শ্লীলতাহানির অভিযোগ

মদ জুয়ার আসরের প্রতিবাদ করায় পাশকুঁড়ায় আক্রান্ত হলেন এক শিক্ষিকা। বাড়ি ঢুকে তাঁকে রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করল দুষ্কৃতীরা। তাঁর শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ উঠেছে। গুরুতর জখম ওই শিক্ষিকার মাথায় চল্লিশটি সেলাই পড়েছে। ঘটনায় এপর্যন্ত ছজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। তবে মূল অভিযুক্তরা এখনও অধরা বলেই দাবি ওই শিক্ষিকার পরিবারের। দীর্ঘদিন ধরেই এলাকায় মদ জুয়ার আসরের প্রতিবাদ করে আসছিলেন পাঁশকুড়ার এক স্কুল শিক্ষিকা । তবে প্রতিবাদের মাসুলটা যে এত ভয়ানক হবে তা ভাবতেও পারেননি পাঁশকুড়ার আট নম্বর ওয়ার্ডের ওই বাসিন্দা। শুক্রবার সন্ধেয় হঠাত্ই বাড়িতে ঢুকে রড দিয়ে মারা হয় তাঁকে। মাথায় চল্লিশটি সেলাই নিয়ে তমলুক জেলা হাসপাতালে চিকিত্সাধীন ওই শিক্ষিকা। তাঁর শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ উঠেছে।