ডিমাপুরে এখনও ইন্টারনেট ও মোবাইল পরিষেবার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি, অভিযুক্ত ধর্ষককে গণপিটুনিতে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার ২২ ডিমাপুরে এখনও ইন্টারনেট ও মোবাইল পরিষেবার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি, অভিযুক্ত ধর্ষককে গণপিটুনিতে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার ২২

আস্তে আস্তে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছে নাগাল্যান্ডের শহর ডিমাপুর। বৃহস্পতিবার ধর্ষণে অভিযুক্ত এক ব্যক্তির গণপিটুনিতে মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ভারতের উত্তর-পূর্বের এই রাজ্য। হাজার হাজার উন্মত্ত জনতা জেল ভেঙে ওই ব্যক্তিকে প্রকাশ্য রাস্তায় নিয়ে এসে নৃশংসভাবে খুন করে। এর পরেই ডিমাপুরে জারি হয় কারফিউ। পুলিসের গুলিতে মারা যায় ঘটনার সঙ্গে জড়িত এক ব্যক্তিও। আহত হয় আরও ৫। এই ঘটনায় প্রত্যক্ষ জড়িত সন্দেহে এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার হয়েছে ২২জন। তবে, অভিযুক্ত ধর্ষক অসমের বাসিন্দা হওয়ায় এই মুহূর্তে প্রতিবেশী এই দুই রাজ্যের সরকারের মধ্যে রাজনৈতিক টানাপোড়েন তুঙ্গে।

মেঘালয়ে মসনদ কায়েম থাকলেও নাগাল্যান্ডে ভরাডুবি কংগ্রেসের

নাগাল্যান্ডে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় থেকে গেল শাসক দল নাগাল্যান্ড পিপলস ফ্রন্ট। এবারের বিধানসভা নির্বাচনের ৫৯টি আসনের মধ্যে ৩৯ টিতে বিজয়ী হয়েছেন এনপিএফ প্রার্থীরা। এই নিয়ে পরপর তিনিবার নাগাল্যান্ডের বিধানসভা এনপিএফের দখলে থাকল। ভারতের উত্তরপূর্বের এই রাজ্যটিতে কার্যত ভরাডুবি হয়েছে কংগ্রেসের। কংগ্রেসের দখলে মাত্র আটটি আসন। গতবারের তুলনায় ১৪টি আসন কমেছে কংগ্রেসের। এনসিপি পেয়েছে ৪টি আসন। নাগাল্যান্ডে ভরাডুবি হলেও উত্তরপূর্বের আর এক রাজ্য মেঘালয়ে মসনদ কায়েম রাখার পথে কংগ্রেস। ষাট সদস্যের বিধানসভায় ঘোষিত ২৯টি আসনে বিজয়ী তারা। এগিয়ে ১টিতে।