আতঙ্কের মহানগর: লাগাতার সহকর্মীদের হাতে গণধর্ষণের শিকার রেলকর্মী। চলেছে খুনের হুমকি, ব্ল্যাকমেলিং। নিষ্ক্রিয় পুলিস। চলছে নির্যাতিতার লড়াই

আতঙ্কের মহানগর: লাগাতার সহকর্মীদের হাতে গণধর্ষণের শিকার রেলকর্মী। চলেছে খুনের হুমকি, ব্ল্যাকমেলিং। নিষ্ক্রিয় পুলিস। চলছে নির্যাতিতার লড়াই

বর্বরতার চরম নিদর্শন খাস কলকাতায়। তিন বছর ধরে লাগাতার গণধর্ষণ, খুনের হুমকি।  চিতপুর রেল ইয়ার্ডের মধ্যেই মহিলা রেল কর্মীর  ওপর নির্যাতন।  অভিযোগ রেল কর্মীদের বিরুদ্ধেই। চব্বিশ ঘণ্টায় সুবিচারের দাবিতে মুখ খুললেন নির্যাতিতা।দুহাজার দশ সালের  আটাশে মে।  জ্ঞানেশ্বরী ট্রেন দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন  স্বামী। স্বামীর অকাল মৃত্যুতে চিতপুর রেল ইয়ার্ডে  সেই চাকরি পান তাঁর স্ত্রী।  রেলের চাকরিতে যোগ দিয়েই চরম বিপদের মুখোমুখি হতে হয় স্বামীহারা অসহায় মহিলাকে।

মালদায় রিজ কাণ্ডের ছায়া, পুলিসি হানায় ঘরছাড়া নবদম্পতি

ভালোবেসে বিয়ে করাটাই কাল হল। এখন পুলিসি হানায় ঘরছাড়া নবদম্পতি। মালদার মালতীপুরের এই ঘটনার নেপথ্যে এক আরএসপি বিধায়ক। মেয়ে বাড়ির অমতে বিয়ে করায় তিনি জামাইয়ের বাড়িতে রীতিমতো পুলিস লাগিয়ে হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ। পুলিস সুপারের দ্বারস্থ হয়েও লাভ হয়নি। উল্টে প্রাণ সংশয়ের আশঙ্কাও করছেন ওই যুবক-যুবতী।এ যেন আর এক রিজওয়ানুর কাণ্ডের ছায়া। মালতীপুরে স্কুলে পড়তে পড়তেই দুজনের আলাপ। আলাপ থেকে প্রেম। তারপর বিয়ে। এখানেই আপত্তি মেয়ের বাবা তথা মালতীপুরের আরএসপি বিধায়ক আবদুল রহিম বক্সির। বেয়াদপ মেয়ে-জামাইকে শায়েস্তা করতে তিনি মানিকচক ও রতুয়া থানার পুলিসকে কাজে লাগাচ্ছেন বলে অভিযোগ। পুলিস ওই যুবকের বাড়িতে তল্লাশির নামে নিয়মিত হানা দিচ্ছে। এমনকী একশ্রেণির দুষ্কৃতীও টেলিফোনে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ ওই দম্পতির।