ভাঙড়ে সভা করল আন্দোলনকারী জমি-জীবিকা বাস্তুতন্ত্র বাঁচাও কমিটি

ভাঙড়ে সভা করল আন্দোলনকারী জমি-জীবিকা বাস্তুতন্ত্র বাঁচাও কমিটি

ভাঙড়ে সভা করল আন্দোলনকারী জমি-জীবিকা বাস্তুতন্ত্র বাঁচাও কমিটি। রাজ্য সরকার আগেই ঘোষণা করেছে, ভাঙড়ে পাওয়ার গ্রিড হবে না। আন্দোলনকারীদের দাবি, বিজ্ঞপ্তি দিয়ে সরকারকে এই ঘোষণা করতে হবে।

'ভাঙড়ে সাব-স্টেশন হলে বদলে যেত দক্ষিণবঙ্গে বিদ্যুত সরবরাহের চিত্র'

'ভাঙড়ে সাব-স্টেশন হলে বদলে যেত দক্ষিণবঙ্গে বিদ্যুত সরবরাহের চিত্র'

ভাঙড়ে সাব-স্টেশন কাজ শুরু করলে বদলে যেত দক্ষিণবঙ্গে বিদ্যুত সরবরাহের চিত্র। বিদ্যুত চাহিদা বাড়লেও ভবিষ্যতে লোডশেডিংয়ের আশঙ্কা কমত। বলছেন বিশেষজ্ঞরা। ন্যাশনাল গ্রিডে বাড়তি বিদ্যুত বেচে রাজ্যের

স্বাভাবিক হচ্ছে বিদ্যুত্‍ পরিষেবা, সুর নরম কেন্দ্রের

নজিরবিহীন বিদ্যুত্‍ বিপর্যয়ের পর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে পরিষেবা। দিল্লি সমেত উত্তর ভারতের ৮০ শতাংশ অংশে বিদ্যুত্‍ সংযোগ ফের স্থাপন করা গিয়েছে। অন্যদিকে গ্রিড বিপর্যয় নিয়ে প্রবল চাপানউতোরের মাঝেই

বিদ্যুত্‍ বিপর্যয়ের উদাহরণ রয়েছে উন্নত বিশ্বেও!

জাতীয় স্তরে একাধিক গ্রিড বিকল হয়ে অন্ধকারে ডুবেছে ভারতের উত্তর, পূর্ব এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। বিদ্যুত্‍ বিপর্যয়ের কবলে পড়েছেন দেশের প্রায় ৬২ কোটি মানুষ। তবে ভারতের ইতিহাসে এই বিপর্যয়