মহাকাব্যিক মহাযুদ্ধে চির প্রতিদ্বন্দ্বী ফেড এক্সপ্রেসকে হারিয়ে এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুরের ফাইনালে নাদাল

থামানো যাচ্ছে না দুরন্ত গতির রাফাকে। এই বছর নিজের রূপকথার টেনিসের দুরন্ত গতি বজায় রেখে এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুরের ফাইনালে পৌঁছালেন তিনি। সেমিফাইনালে হারালেন `চির শত্রু` রজার ফেডেরারকে।টেনিস ইতিহাসের দুই জীবন্ত কিংবদন্তীর মহা সমরের সাক্ষী থাকল এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুর। টেনিস কোর্টের এই দুই `চির শত্রু`র খেলা মানেই রচিত হয় মহাকাব্য। আর এ বছরের দুরন্ত ফর্মের মর্যাদা রেখে এই মহাকাব্যের নায়ক সেই রাফায়েল নাদাল। রবিবার ফেড এক্সপ্রেসকে ৭-৫, ৬-৩ হারিয়ে এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুরের ফাইনালে উঠলেন রাফা। সোমবার ফাইনালে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী নোভাক জকোভিচ ও স্ট্যানিসলাস ওয়ারিঙ্কার মধ্যেকার যুদ্ধের বিজেতা।

সিনসিনাটি জয়ের পর র‍্যাঙ্কিংয়েও দু`নম্বরে উঠে এলেন রাফা

চোট সারিয়ে ফিরে কোর্টে ফিরে এসে ১২টা টুর্নামেন্টের ১১টারই ফাইনালে। তার মধ্যে মাত্র ২টোতে পরাজয়। হার্ড কোটে তিনি অচল, এই গুঞ্জনকে উড়িয়ে দিয়ে শেষ দুটি টুর্নামেন্টে হার্ডকোটেই ট্রফি জয়। রবিবার সিনসিনাটি ওপেনে জায়ান্ট কিলার জন ইসনারকে ৭-৬, ৭-৬ সেটে পরাজিত করার পর এটিপি র‍্যাঙ্কিংয়ে তাঁর উত্তরণটা শুধু সময়ের অপেক্ষা ছিল। হলও তাই। অ্যান্ডি মারেকে সরিয়ে পুরুষ বিভাগে বিশ্বের দু`নম্বর জায়গাটা চলে এল রাফায়েল নাদালের দখলে। হার্ড কোর্টে তাঁর ধারাবাহিক সাফল্যের পর তিনি প্রতিপক্ষদের বুঝিয়ে দিলেন, রাফা ফিরে এসেছেন। স্বমহিমাতেই।