''মুখ্যমন্ত্রী বিভাজনের রাজনীতি করছেন''

ক্রমেই তীব্র আকার নিচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী-মোর্চা বিবাদ। একদিকে শিলিগুড়িতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় জানালেন জিটিএ `চুক্তি` অনুযায়ী তাঁরা লেপচা উন্নয়ন পর্ষদ তৈরি করবেন। অন্যদিকে তাঁর এই দাবি নস্যাৎ করে মোর্চার তরফ থেকে জানানো হয়েছে জিটিএ চুক্তিতে এই রকম কোনও কিছুরই উল্লেখ নেই। মোর্চা নেতা রোশন গিরি সরাসরি জানালেন বিভাজনের রাজনীতি করছেন মুখ্যমন্ত্রী। অপর মোর্চা নেতা বিনয় তামাং আরও আক্রমণত্মক ভঙ্গিতে জানিয়েছেন পাহাড়ে ধর্মীয় বিভাজনের চেষ্টা হচ্ছে। এতে গোর্খাল্যান্ডের সম্প্রীতি নষ্ট হবে। গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে তাঁদের আন্দোলন যে তীব্রতর হবে তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন মোর্চা নেতৃত্ব।

ফের জিটিএ ইস্যুতে সুর চড়াল মোর্চা

এর আগে প্রাক্তন বিচারপতি শ্যামল সেনের হাই পাওয়ার্ড কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী মাত্র পাঁচটি মৌজা তাঁদের দেওয়া হয়েছে। সেই সিদ্ধান্তে ক্ষোভ চরমে উঠলে শ্যামল সেন কমিটির সুপারিশ খতিয়ে দেখার জন্য তিন সদস্যের কমিটি গঠিত হয়। সেই কমিটির কাছে পনেরো দিনের মধ্যে মোর্চার পক্ষ থেকে লিখিত দাবিও পেশ করা হবে বলে মোর্চা নেতারা জানিয়েছেন। তাঁদের আরও অভিযোগ, যে সরকারি দফতরগুলি মৌজাকে হস্তান্তর করার কথা ছিল, সেই কাজ খুব আস্তে চলছে এবং পূর্ণ স্বায়ত্তশাসন দেওয়া হচ্ছে না। তাই দফতরের দ্রুত হস্তান্তরের কথা বলে পূর্ণ স্বায়ত্তশাসনের দাবি জানিয়েছেন মোর্চা নেতৃত্ব।