রাজ্যের একমাত্র জেলা, যেখানে প্রকাশ্য ধূমপান নিষিদ্ধ, ধরা পড়লে মোটা অঙ্কের জরিমানা

রাজ্যের একমাত্র জেলা, যেখানে প্রকাশ্য ধূমপান নিষিদ্ধ, ধরা পড়লে মোটা অঙ্কের জরিমানা

১ জুন থেকে ধূমপান নিষিদ্ধ হচ্ছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায়। নিষিদ্ধ হচ্ছে স্কুল কলেজের সামনে তামাকজাত দ্রব্যের বিক্রিও। রাজ্যের প্রথম জেলা হিসেবে দক্ষিণ দিনাজপুরেই নিষিদ্ধ হতে চলেছে প্রকাশ্যে ধূমপান। 

তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে চলল গুলি তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে চলল গুলি

দক্ষিণ দিনাজপুরে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জের। গুলি চলল দলের শ্রমিক সংগঠনের এক নেতার ওপর। নন্দনপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে INTTUC নেতা মজিরুদ্দিন মণ্ডলের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠেছে।

জেলাশহর কিংবা মহকুমাই নয়, কমিশনের নজরদারি এবার প্রত্যন্ত গ্রামেও জেলাশহর কিংবা মহকুমাই নয়, কমিশনের নজরদারি এবার প্রত্যন্ত গ্রামেও

জেলাশহর কিংবা মহকুমা শহরই শুধু নয়, কমিশনের নজরদারি এবার প্রত্যন্ত গ্রামেও। প্রতিটি এলাকার বৈশিষ্ট্য চিহ্নিত করে চলছে তল্লাসি। এমনকি ভোটদানের কম হার নিয়েও নজরদারি চালাচ্ছে কমিশন।

দক্ষিণ দিনাজপুরকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে গেছে রাজ্য সরকার দক্ষিণ দিনাজপুরকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে গেছে রাজ্য সরকার

গত পাঁচ বছরে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার রাস্তাঘাট নির্মাণ, কৃষকদের জন্য কিষাণমান্ডি নির্মাণ, কলেজ তৈরি, পানীয় জলের সরবরাহ, স্বাস্থ্য সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে বলে জেলা প্রশাসন দাবি করেছে। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, এই জেলার ৮ টি ব্লকের মধ্যে ৭ টি ব্লকেই কৃষকদের জন্য কিষাণমান্ডি নির্মাণ কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। হরিরামপুর ব্লকের কিষাণমান্ডির নির্মাণ কাজ অতি সম্প্রতি শুরু হয়েছে। জেলার হিলি, বালুরঘাট, কুমারগঞ্জ, তপন, গঙ্গারামপুর, কুশমন্ডি ও বংশীহাড়ি ব্লকের কিষাণমান্ডি ইতিমধ্যে চালুও হয়ে গিয়েছে। কিষাণমান্ডিতে পাইকারি বাজারও নিয়মিত বসছে।

এখন বিশ্বের দরবারে শীতলপাটি ও মুখোশশিল্প এখন বিশ্বের দরবারে শীতলপাটি ও মুখোশশিল্প

কোচবিহারের শীতলপাটি আর দক্ষিণ দিনাজপুরের কুশমুন্ডির কাঠের মুখোশ। বহু চর্চিত এই দুই হস্তশিল্প প্রায় সকলেরই চেনা। একটা সময়ে প্রায় হারিয়ে যেতে বসেছিল বাংলার প্রাচীন এই হস্তশিল্প। কিন্তু সরকারি উদ্যোগে ক্রাফট হাব গড়ে এখন বিশ্বের দরবারে শীতলপাটি ও মুখোশশিল্প। 

ফের চোরাকারবারিদের থেকে উদ্ধার বহুমূল্য সাপের বিষ ফের চোরাকারবারিদের থেকে উদ্ধার বহুমূল্য সাপের বিষ

ফের চোরাকারবারি থেকে বহু মূল্য সাপের বিষ উদ্ধার করল বন দফতর। গত কাল দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুরে হানা দেয় জলপাইগুড়ির বেলাকোবা রেঞ্জের আধিকারিকরা। তিনটি জার ভর্তি সাপের বিষের পাশাপাশি উদ্ধার হয়েছে একটি নাইন এমএম পিস্তল ও নয় রাউন্ড কার্তুজ। জুন মাসের শেষে বেলাকোবায় উদ্ধার হয়েছিল তিন জার ভর্তি সাপের বিষ। 

বন্যা মোকাবিলায় কতটা তৈরি উত্তর দিনাজপুর? ত্রাণশিবিরের বেহাল দশায় অশনি সঙ্কেত  বন্যা মোকাবিলায় কতটা তৈরি উত্তর দিনাজপুর? ত্রাণশিবিরের বেহাল দশায় অশনি সঙ্কেত

বানভাসি দক্ষিণবঙ্গ। ত্রাণ নিয়ে তীব্র হাহাকার। তবে উত্তর দিনাজপুরে সেই আশঙ্কা আপাতত নেই। কিন্তু প্রকৃতি যদি রুষ্ট হয়? প্রশাসন কি তৈরি? ত্রাণশিবিরের বেহাল দশা কিন্তু বলছে অন্য কথা।  

 স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ডাক্তারের অভাব, দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিত্সক ব্যস্ত প্রাইভেট প্র্যাকটিসে, ক্ষোভ রোগীদের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ডাক্তারের অভাব, দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিত্সক ব্যস্ত প্রাইভেট প্র্যাকটিসে, ক্ষোভ রোগীদের

ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে তাঁর অপেক্ষায় থিকথিকে ভিড় রোগীদের। অথচ দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিত্সক তখন  হাসপাতালের কোয়ার্টারে । শেষ পর্যন্ত রোগীর আত্মীয়দের চাপে পড়ে ফের হাসপাতালে গিয়ে রোগী দেখতে বাধ্য হলেন ওই চিকিত্সক। ঘটনা ঘিরে  ধুন্ধুমার কাণ্ড বেধে যায় উত্তর দিনাজপুরের চাকুলিয়া ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে।

নৈরাজ্যের স্বর্গে আক্রান্ত পুলিস নৈরাজ্যের স্বর্গে আক্রান্ত পুলিস

ফের আক্রান্ত পুলিস। বৃহস্পতিবার রাতে দুদল ব্যবসায়ীর সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে উত্তর দিনাজপুরের রামগঞ্জ ফাঁড়িতে আক্রান্ত হয় পুলিস।

তাদের পীরসাহেব শায়িত মাটির নিচে, তাই গোটা গ্রাম শোয় মাটির বিছানাতে তাদের পীরসাহেব শায়িত মাটির নিচে, তাই গোটা গ্রাম শোয় মাটির বিছানাতে

শুতে হবে মাটির বিছানাতেই। খাট-চৌকি চলবে না। কারণ গ্রামের আরাধ্য পীরসাহেবও যে ঘুমিয়ে আছেন মাটির নিচে। যুগ যুগ ধরে এই বিশ্বাসই আঁকড়ে চলেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের পীরপাল গ্রামের বাসিন্দারা। তাদের পীরসাহেব ইতিহাসখ্যাত  যোদ্ধা বখতিয়ার খিলজি।

স্বাধীনতার পর থেকে বাঁশের সেতুতেই ঝুলে রয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুরের অনিশ্চিত জীবন স্বাধীনতার পর থেকে বাঁশের সেতুতেই ঝুলে রয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুরের অনিশ্চিত জীবন

ভরসা যেখানে নড়বড়ে এক বাঁশের সেতু, সেখানে স্বাভাবিকভাবেই যাতায়াতে নিত্য সঙ্গী দুর্ভোগ। আজ থেকে নয়, এই সমস্যা দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকেই। দক্ষিণ দিনাজপুরের শুকদেবপুর ও জাহাঙ্গীরপুর গ্রামের মানুষের

ভিন রাজ্যে পড়তে গিয়ে নিখোঁজ যুবক, ১০ দিন ধরে আতঙ্কের প্রহর গুনছেন বাবা, মা ভিন রাজ্যে পড়তে গিয়ে নিখোঁজ যুবক, ১০ দিন ধরে আতঙ্কের প্রহর গুনছেন বাবা, মা

ভিন রাজ্যের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে পড়তে গিয়ে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ ছাত্র। ঘটনাটি দক্ষিণ দিনাজপুরের বংশিহারী থানার কুশখারি গ্রামের। দশ দিনে কেটে গেলেও ছেলের কোনও খবর না পেয়ে আতঙ্কে জাভেদ সরকারের বাবা-মা

৩ বছরের লড়াই, অবশেষে ক্রেতা সুরক্ষা আদালতের রায় ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন রোগী

তিনবছরের লড়াই শেষে মিলল বিচার। ক্রেতা সুরক্ষা আদালতের রায়ে পাঁচ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ পাবেন রোগী। দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটের কসবার বাসিন্দা তরুন মজুমদার পায়ে চোট নিয়ে দুহাজার এগারো সালে ভর্তি হয়েছিলেন স্থানীয় একটি নার্সিং হোমে। চিকিতসকের ভুল চিকিতসায় হাত অবশ হয়ে যায় তাঁর।

কুমারগঞ্জ ব্লকের বরাহর ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের দুরবস্থায় পরিষেবা থেকে বঞ্চিত গ্রামবাসীরা

নামেই স্বাস্থ্য কেন্দ্র। মেলে না অধিকাংশ পরিষেবাই। অধিকাংশ বিভাগেই চিকিৎসক নেই। নেই ল্যাবরেটরি পরিষেবা। পরিচর্যার অভাবে জীর্নপ্রায় হাসপাতালের ঘর। দক্ষিন দিনাজপুরের কুমারগঞ্জ ব্লকের বরাহর ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের এমনটাই দুরবস্থা। স্থানীয় বাসিন্দারা সরব হয়েছেন হাসপাতাল পরিকাঠামোর উন্নয়নে।