'অপরাধ` মদ, জুয়ার আসরের প্রতিবাদ, পাঁশকুড়ায় আক্রান্ত শিক্ষিকা, শ্লীলতাহানির অভিযোগ

মদ জুয়ার আসরের প্রতিবাদ করায় পাশকুঁড়ায় আক্রান্ত হলেন এক শিক্ষিকা। বাড়ি ঢুকে তাঁকে রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করল দুষ্কৃতীরা। তাঁর শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ উঠেছে। গুরুতর জখম ওই শিক্ষিকার মাথায় চল্লিশটি সেলাই পড়েছে। ঘটনায় এপর্যন্ত ছজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। তবে মূল অভিযুক্তরা এখনও অধরা বলেই দাবি ওই শিক্ষিকার পরিবারের। দীর্ঘদিন ধরেই এলাকায় মদ জুয়ার আসরের প্রতিবাদ করে আসছিলেন পাঁশকুড়ার এক স্কুল শিক্ষিকা । তবে প্রতিবাদের মাসুলটা যে এত ভয়ানক হবে তা ভাবতেও পারেননি পাঁশকুড়ার আট নম্বর ওয়ার্ডের ওই বাসিন্দা। শুক্রবার সন্ধেয় হঠাত্ই বাড়িতে ঢুকে রড দিয়ে মারা হয় তাঁকে। মাথায় চল্লিশটি সেলাই নিয়ে তমলুক জেলা হাসপাতালে চিকিত্সাধীন ওই শিক্ষিকা। তাঁর শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ উঠেছে।

কসবায় শিক্ষিকার রহস্যজনক মৃত্যু

কসবার বেদিয়াডাঙায় ফ্ল্যাটের মধ্যে উদ্ধার হল এক শিক্ষিকার ক্ষতবিক্ষত দেহ। মৃত বাহাত্তর বছরের সুলোচনা চেরি একাই থাকতেন ওই ফ্ল্যাটে। লণ্ডভণ্ড ঘর দেখে পুলিসের প্রাথমিক অনুমান, লুঠপাটের উদ্দেশে এই খুন হয়ে থাকতে পারে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির পরিচারিকাকে আটক করা হয়েছে।  নিরাপত্তাহীনতার অভিযোগ ফের উসকে দিল কসবার বেদিয়াডাঙা সেকেন্ড লেনের লোকনাথ আবাসনে খুনের ঘটনা। চারতলার ফ্ল্যাটে একা থাকতেন বাহাত্তর বছরের সুলোচনা চেরি। ন্যাশনাল গার্লস স্কুলের প্রাক্তন ওই শিক্ষিকা ইদানিং বাড়িতেই টিউশন পড়াতেন। হাজরায় একটি কোচিং সেন্টারেও পড়াতে যেতেন নিয়মিত। রবিবার সকালে বেরোলেও দুপুরের মধ্যে বাড়ি ফিরে আসেন তিনি। বিকেলে ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় তাঁর ক্ষতবিক্ষত দেহ।