মরগ্যানের বিদায়ী ম্যাচে ডার্বি জয় উপহার দিতে মরিয়া লাল-হলুদ শিবির

আজ ডার্বি ম্যাচ দিয়ে শেষ হচ্ছে ফুটবল মরসুম। তার সঙ্গে আজই ইস্টবেঙ্গলে শেষ হচ্ছে ট্রেভর জেমস মরগ্যান জমানা। ডার্বি ম্যাচই ইস্টবেঙ্গল কোচ হিসাবে মরগ্যানের শেষ ম্যাচ। শেষ ম্যাচে মোহনবাগানকে হারিয়ে ঘরোয়া লিগ জয়ের হ্যাটট্রিকের সুযোগ মরগ্যানের দলের সামনে। লিগ খেতাব থেকে মাত্র এক পয়েন্ট দূরে লাল-হলুদ শিবির।

নির্বাসন পরবর্তী প্রথম জয়ে স্বস্তিতে মোহনবাগান

স্বস্তি ফিরল সবুজ-মেরুন শিবিরে। নির্বাসন উঠে যাওয়ার পর আই লিগে প্রথম জয় পেল মোহনবাগান। কল্যাণীতে সন্তোষ কাশ্যপের ওএনজিসিকে তিন-এক গোলে হারিয়ে দিলেন ওকেলি ওডাফারা। এই জয়ের পর মোহনবাগানের পয়েন্ট হল চার ম্যাচে পাঁচ। আই লিগে মোহনবাগানের পরের ম্যাচ চিরপ্রতিন্দন্দ্বী ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে।

ওডাফাতেই সালগাঁওকার জয়ের স্বপ্ন দেখছে পালতোলা নৌকা

সালগাঁওকর ম্যাচের আগে মোহনবাগানকে স্বস্তিতে রাখছে অধিনায়ক ওকেলি ওডাফার বাড়তি তাগিদ। ইউনাইটেড

সিকিমের বিরুদ্ধে র‌্যান্টি ৫ গোল করার পর থেকেই যেন নিজেকে বদলে ফেলেছেন নাইজেরীয় গোলমেশিন।অনুশীলনে

বাড়তি পরিশ্রম করছেন। এমনকি অনুশীলন শেষ হয়ে যাওয়ার পরও চলছে ওডাফার আলাদা অনুশীলন।সালগাঁওকর

ম্যাচের আগে আলাদা করে চলল ওডাফার শুটিং অনুশীলন।

টোলগে নিয়ে ধোঁয়াশার মেঘে আচ্ছন্ন মোহন শিবির

পরপর তিনটি জয় পেয়ে যদিও এখন কিছুটা স্বস্তিতে মোহন শিবির, তবুও টোলগে নিয়ে ধোঁয়াশা অব্যাহত। সেই ধোঁয়াশা আরও উস্কে দিলেন স্বয়ং মোহনবাগানের সহকারি

কোচ মৃদুল ব্যানার্জি। বুধবার অনুশীলনের পর মৃদুল ব্যানার্জি জানান,হাঁটুর অস্ত্রোপচার নয়,চোটের রিহ্যাব করতেই বাড়ি গেছেন অসি গোলমেশিন। তাছাড়া টোলগে মানসিক

দিক দিয়ে বিপর্যস্ত বলেও জানান তিনি।

সুখের সংসার নিয়েই কাল দিল্লি পাড়ি মোহন কোচের

মোহনবাগানের এখন সুখের সংসার। জয়ের হ্যাটট্রিকের পর নতুন উদ্দমে টগবগে পালতোলা নৌকা। মঙ্গলবার থেকেই

ওএনজিসি ম্যাচের প্রস্তুতি শুরু করে দিল সবুজ-মেরুন শিবির। পরপর তিনটি ম্যাচ জয়ের ধারাবাহিকতাই বজায়

রাখতে চাইছেন অস্থায়ী কোচ মৃদুল ব্যানার্জি। দলের অন্যতম সিনিয়র সদস্য দীপেন্দু বিশ্বাস বলছেন,আরও দুটো ম্যাচ

জিতে করিম আসার আগে আরও ভাল জায়গায় পৌঁছতে চান তারা।

পালতোলা নৌকায় টোলগে

অবশেষে প্রতীক্ষার অবসান। দীর্ঘ ৩ মাস বিতর্কের পর মঙ্গলবার বিকেলে পাকাপাকি ভাবে সবুজ মেরুন জার্সি গায়ে চাপালেন অসি স্ট্রাইকার

টোলগে ওজাবা। আইএফএ অফিসে গিয়ে মোহনবাগানে সই করেন টোলগে। এরপরই মোহনবাগান তাঁবুতে বসেই সাংবাদিক সম্মেলনে মনের সব

ক্ষোভ উগরে দিলেন এই অস্ট্রেলীয় গোল মেশিন। সঙ্গী ছিলেন মোহনবাগান কর্তারা।

আশাবাদী মরগ্যান

চলতি মরসুমে ইস্টবেঙ্গল দলে তারকার ছড়াছড়ি। সব বিভাগেই একাধিক ভাল মানের ফুটবলার। ৩২জনের দল থেকে সেরা এগারো বাছা রীতিমত চ্যালেঞ্জ ট্রেভর জেমস মরগ্যানের সামনে। মরসুমের একেবারে শুরুতেই সেকথা মানছেন লাল-হলুদ কোচ।

অনুশীলনে মরগ্যান, আজ বৈঠকে টোলগের সঙ্গে

বুধবার সকল থেকেই নতুন টিম নিয়ে অনুশীলনে নেমে পড়েছেন ইস্টবেঙ্গল কোচ ট্রেভর মরগ্যান। অন্যদিকে নির্ধারিত সূচি মেনেই এদিন যুবভারতীতে হচ্ছে টোলগে আর ইস্টবেঙ্গলের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক। টোলগের দেওয়া ৩টি শর্তের মধ্যে একটা মেনে নিয়েছে রাজ্য ফুটবল সংস্থা।

টোলগের বিরুদ্ধে মামলা ইস্টবেঙ্গলের

শেষ পর্যন্ত টোলগে ওজবের বিরুদ্ধে মামলা করল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব। মঙ্গলবার সিটি সিভিল কোর্টে দলত্যাগী অসি গোলমেশিনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে ক্লাবের তরফে। ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের অন্যতম শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার জানিয়েছেন, টোলগেকে দু-তিনবার ক্লাবে আসার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছিল।

ইস্টবেঙ্গলকে চ্যাম্পিয়ন করে ইস্তফা মরগ্যানের

ঘরোয়া লিগে ইস্টবেঙ্গলকে চ্যাম্পিয়ন করে কোচের পদ ছাড়লেন ট্রেভর মরগ্যান। যুবভারতীতে শেষ ম্যাচে মহমেডানকে ৬-০ গোলে পর্যুদস্ত করে খেতাব জিতে নেয় লাল-হলুদ ব্রিগেড। এই নিয়ে পরপর দু`বার ঘরোয়া লিগের খেতাব জিতল তারা। ইস্টবেঙ্গলের হয়ে হ্যাটট্রিক-সহ ৪ গোল করেন অসি গোলমেশিন টোলগে ওজবে। অন্য দু`টি গোল করেন লেন আর পেন।

এএফসি কাপে শূন্য পয়েন্টেই অভিযান শেষ ইস্টবেঙ্গলের

এএফসি কাপের গ্রুপ লিগে হারের ধারাবাহিকতা বজায় রাখল ইস্টবেঙ্গল। বুধবার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে কুয়েতের ক্লাব কাজমা এএফসি`র বিরুদ্ধে ১-২ গোলে হারল লাল-হলুদ ব্রিগেড। আর সেই সঙ্গেই এফসি কাপে কোনও পয়েন্ট না পেয়েই গ্রুপ লিগ থেকেই বিদায় নিল মর্গানের দল।

টোলগে মোহনবাগানে?

বৃহস্পতিবার মোহনবাগান কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক সারেন টোলগে-মরগ্যান। শোনা যাচ্ছে মোহনবাগান সচিবের বাড়িতেই নাকি টোলগের সঙ্গে চুক্তি চূড়ান্ত করে ফেলেছে মোহনবাগান।

এপ্রিলেই ইস্টবেঙ্গলে টোলগে?

১০ এপ্রিলই লাল-হলুদের চুক্তিপত্রে সই করতে চলেছেন টোলগে ওজবে। এমনটাই দাবি করেছেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। সেদিন ইরাকের ক্লাবের সঙ্গে এএফসি কাপের ম্যাচ রয়েছে লাল-হলুদের। সেই ম্যাচ খেলতে ইরাক যাচ্ছেন না অসি গোলমেশিন।

জিতে আই লিগের দ্বিতীয় স্থানে ইস্টবেঙ্গল

আই লিগে খেতাবি দৌড় অব্যাহত রাখল ইস্টবেঙ্গল। ঘরের মাঠে মুম্বই এফসি-কে ৩-১ গোলে হারিয়ে লিগ তালিকার দ্বিতীয় স্থানে উঠে এল ট্রেভর মরগ্যানের দল। খেলার ৩ মিনিটে নিকোলাসের গোলে পিছিয়ে পড়লেও, দমে যায়নি লাল-হলুদ শিবির।

সালগাঁওকরকে হারিয়ে দুইয়ে ইস্টবেঙ্গল

আইলিগে ঘরের মাঠে সালগাঁওকরের বিরুদ্ধে ১-০ গোলে জিতল ইস্টবেঙ্গল। প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি গোলের সহজ সুযোগ নষ্ট করে ইস্টবেঙ্গল। বলজিত ও টোলগে সহজ সুযোগ নষ্ট করায় প্রথমার্ধ গোলশূন্যভাবে শেষ হয়। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৫ মিনিটে রবিনের মাইনাস থেকে টোলগের দুরন্ত হেডে এগিয়ে যায় ইস্টবেঙ্গল। এরপর বেশ কয়েকবার চেষ্টা করলেও সমতা ফিরতে পারেননি চিডি-সুয়েকারা।

সম্ভবত ইস্টবেঙ্গলেই থাকছেন টোলগে

ট্রেভর জেমস মরগ্যানের পর অসি গোলমেশিন টোলগে ওজবেও সম্ভবত ইস্টবেঙ্গলেই থাকতে চলেছেন। পরের মরসুমের জন্য এখনও চুক্তি না করলেও, লাল-হলুদ কর্তাদের দাবি তারা টোলগেকে আশ্বস্ত করতে সক্ষম হয়েছেন।