রাজনাথ-পুত্রের পদপ্রাপ্তি ঘিরে উত্তরপ্রদেশ বিজেপিতে বিদ্রোহ

বছর কয়েক আগের কথা। বিজেপির সবর্ভারতীয় সভাপতি হিসেবে নিজের ছেলে পঙ্কজকে অখিল ভারতীয় যুব মোর্চার উত্তরপ্রদেশ শাখার সভাপতির পদ পাইয়ে দিয়েছিলেন রাজনাথ সিং। কিন্তু পরিণতি সুখের হয়নি। রাজ্যের বিজেপি নেতৃত্বের প্রবল বাধার মুখে পিছু হটতে বাধ্য হয়েছিলেন রাজনাথ। পদ পাওয়ার দিন কয়েকের মধ্যেই ইস্তফা দিতে বাধ্য হয়েছিলেন পঙ্কজ। এবার উত্তরপ্রদেশ বিধানসভার মুখে প্রভাবশালী ঠাকুর নেতার পুত্রস্নেহ একই ধরনের রাজনৈতিক অস্বস্তির মধ্যে ঠেলে দিল বিজেপিকে।

মায়াবতীর অভিযোগের জবাব দিলেন কুরেশি

রবিবার নিজের ৫৬ তম জন্মদিনে উত্তরপ্রদেশের আসন্ন বিধানসভা ভোটের দলীয় প্রার্থী-তালিকা প্রকাশ করতে গিয়ে নির্বাচন কমিশনকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেছিলেন মায়াবতী। বুধবার কড়া ভাষায় বহেনজির সেই অভিযোগের জবাব দিলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার শাহাবুদ্দিন ইয়াকুব কুরেশি।

দলে আসা দাগি নেতাদের টিকিট দেবেন না গডকড়ি

শেষ পর্যন্ত ঘরে-বাইরে প্রবল চাপের মুখে পিছু হঠতে বাধ্য হলেন বিজেপি সভাপতি নীতিন গডকড়ি। ঢাকঢোল পিটিয়ে দলে নেওয়ার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই মায়াবতী মন্ত্রিসভার বরখাস্ত সদস্য বাবু সিং কুশওয়াকে টিকিট না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল বিজেপি হাইকম্যান্ড।