পোষাক শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে উত্তাল বাংলাদেশ

মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে বাংলাদেশে পোষাক শ্রমিক বিক্ষোভ অব্যাহত। রাজধানী ঢাকা সহ দেশের অন্যান্য শহরেও বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ দেখান বস্ত্র শিল্পের সঙ্গে যুক্ত কয়েক হাজার কর্মী। বিক্ষোভ চলাকালীন পুলিসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। ২০ জন পুলিসকর্মী ও বেশকয়েকজন সাংবাদিকসহ হিংসায় আহত হন কমপক্ষে ৫০ জন বিক্ষোভকারী।

Updated: Sep 27, 2013, 12:29 PM IST

মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে বাংলাদেশে পোষাক শ্রমিক বিক্ষোভ অব্যাহত। রাজধানী ঢাকা সহ দেশের অন্যান্য শহরেও বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ দেখান বস্ত্র শিল্পের সঙ্গে যুক্ত কয়েক হাজার কর্মী। বিক্ষোভ চলাকালীন পুলিসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। ২০ জন পুলিসকর্মী ও বেশকয়েকজন সাংবাদিকসহ হিংসায় আহত হন কমপক্ষে ৫০ জন বিক্ষোভকারী।
বস্ত্রশিল্পের সঙ্গে জড়িত কর্মীদের নূন্যতম মজুরি ৮ হাজার করার দাবিতে গত কয়েকদিন ধরে উত্তাল বাংলাদেশ। শ্রমিক আন্দোলনের জেরে গত কয়েকদিন ধরে বহু কারখানাতেই বন্ধ রয়েছে উত্‍পাদন। ঢাকার পাশাপাশি পোষাক কর্মীদের আন্দোলন চলছে নারায়ণগঞ্জ, ফতুল্লা, গাজীপুর সহ বিভিন্ন জায়গায়। বৃহস্পতিবার বিক্ষোভের ষষ্ঠ দিন সকাল থেকে ফতুল্লার কাঠেরপুল অঞ্চলে পোষাক শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিসের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। আন্দোলনকারীরা ৩ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে  ঢাকা নারায়ণগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে। কুড়ি থেকে পঁচিশটি গাড়িতেও ভাঙচুর চালানো হয়। বাধা দিতে গেলে পুলিসকে লক্ষ্য করে ইঁটবৃষ্টি শুরু হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শতাধিক রাউন্ড কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিস। চলে শূন্যে কয়েক রাউন্ড গুলি। কয়েকটি কারখানার ভিতরেও ভাঙচুর করে বিক্ষোভকারীরা। সেখানে মোতায়েন করা হয় বিশাল পুলিস বাহিনী।
এছাড়া গাজীপুর অঞ্চলে ভাঙচুরের আশঙ্কায় বন্ধ রাখা হয় একাধিক পোষাক তৈরির কারখানা। এদিকে বন্ধ কারখানা খোলার দাবিতে ভাঙচুর চালানো হয় আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলের কয়েকটি পোষাক কারখানায়।