জামাত-বিএনপিকে ঠেকাতে ময়দানে আওয়ামি লিগ

Last Updated: Saturday, March 9, 2013 - 21:22

এবার রাজনৈতিকভাবে জামাত ও বিরোধী শিবির বিএনপি-র তাণ্ডবের মোকাবিলা সিদ্ধান্ত নিল আওয়ামি লিগ। দলের তরফে আগামি ১৮ তারিখ ঢাকায় বড় সমাবেশের ডাক দেওয়া হয়েছে। সমাবেশে ভাষণ দেবেন  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অন্যদিকে, আজও যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা চালায় কট্টরপন্থীরা। মতিঝিলে একটি মিছিলের ওপর হাত বোমা ছোঁড়া হয়।
গণজাগরণ মঞ্চের উদ্যোক্তা রফিউর রাব্বির ছেলে তানভির মহম্মদ তক্বির হত্যার প্রতিবাদে শনিবার নারায়ণগঞ্জে হরতালের ডাক দিয়েছিল জেলা সাংস্কৃতিক জোট। ভোর থেকে হরতলের সমর্থনে শহরের চাষাড়া এলাকায় মিছিল বের করেন হরতাল সমর্থকরা। রাস্তায় টায়ার জ্বালানোর পাশপাশি, ভাঙচুর চালানো হয় দুটি গাড়িতেও। অবরোধ করা হয় ট্রেন লাইনও। ত্বকির হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করেছে পুলিস। গোটা ঘটনায় কট্টরপন্থীদের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ আওয়ামি লিগের।
 
প্রশাসনিক পদক্ষেপের পাশপাশি, এবার রাজনৈতিকভাবে কট্টরপন্থীদের মোকাবিলায় প্রস্তুত হচ্ছে আওয়ামি লিগ। আগামি আঠারো তারিখ ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনের মাঠে বড় সমাবেশের ডাক দেওয়া হয়েছে আওয়ামি লিগের তরফে। সেখানে বক্তব্য রাখবেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামি লিগ নেত্রী শেখ হাসিনা। পাশপাশি, জামাত শিবিরের হিংসার শিকার সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকাগুলি পরিদর্শন করবেন আওয়ামি লিগ ও ১৪ দলের প্রতিনিধিরা। দলের দেওয়া রিপোর্টের ভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্ত সংখ্যালঘু পরিবারগুলির পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করবে সরকার। যুদ্ধাপরাধীদের চরম শাস্তির দাবিতে শনিবারও উত্তপ্ত ছিল বাংলাদেশ। মতিঝিলে একটি মিছিলের ওপর হাত বোমা বিস্ফোরণ ঘটায় জামাতপন্থীরা।
 



First Published: Saturday, March 9, 2013 - 21:22


comments powered by Disqus