প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে অশান্ত মিশর, সংঘর্ষে মৃত ১১

Last Updated: Thursday, May 3, 2012 - 12:49

ফের অশান্ত মিশর। এবার সামরিক শাসনের অবসান চেয়ে। গতকাল কায়রোয় প্রতিরক্ষা দফতরের সামনে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে অজ্ঞাতপরিচয় কিছু ব্যক্তির সংঘর্ষে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন ১৬০ও বেশি।
হোসনি মুবারক জমানার অবসানের পর সাময়িকভাবে দায়িত্ব নেওয়া সামরিক শাসনের হাত ধরে গণতন্ত্রের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলেন মিশরের মানুষ। কিন্তু মাসখানেকের মধ্যেই এই সামরিক শাসনের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ দানা বাঁধতে শুরু করে। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রাক্কালে যা চরম আকার নেয়। বুধবার দুই মুসলিম প্রার্থীকে সাসপেন্ড করার প্রতিবাদে রাজধানী কায়রোর আব্বাসিয়া জেলায় প্রতিরক্ষা দফতরের সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন প্রায় শ`খানেক সালাফি মুসলিম। আচমকাই সশস্ত্র অবস্থায় তাদের ওপর হামলা চালায় অজ্ঞাতপরিচয় কিছু ব্যক্তি। মুহূর্তেই দুদলের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় গোটা এলাকা।
বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, সেনা এবং সরকারি নিরাপত্তাবাহিনীর প্ররোচনাতেই হামলাকারীরা সশস্ত্র অবস্থায় শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ আন্দোলনে হামলা চালিয়েছে। হাসপাতাল ও নিরাপত্তাবাহিনীর দেওয়া তথ্য বলছে সংঘর্ষে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত ১৬০ জনেরও বেশি। বিক্ষোভ দমনে অতিরিক্ত বাহিনীও পাঠায় সেনা। যদিও সেনা সরকারের তরফে বিক্ষোভ দমনের জন্য বাহিনী পাঠানোর কথা অস্বীকার করা হয়েছে। 
মে মাসের শেষে ২৩ ও ২৪ তারিখ মিশরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। তার আগে বড়সড় ধাক্কা খেল গণতন্ত্র প্রত্যাশী মিশরবাসীর স্বপ্ন।



First Published: Thursday, May 3, 2012 - 14:23


comments powered by Disqus