সাইবার মান`ডে-তে জমিয়ে কেনাকাটায় ব্যস্ত মার্কিন মুলুক

Last Updated: Tuesday, December 3, 2013 - 11:44

মা দিবস, বাবা দিবস, প্রেম দিবস, হাসি দিবস, ব্ল্যাক ফ্রাইডে দিবস যেমন হয় তেমনই আজ `সাইবার সোমবার দিবস`। পরিভাষায় যাকে বলে সাইবার মান`ডে। মার্কিন মুলুকে যে দিনটা একেবারে হুড়হুড়ি করে পালন হচ্ছে। আজ খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্ট যে দিনটা পালন করতে মাতলেন।

আজ মার্কিন মুলুকে একটাই কথা, সাইবার মান`ডে- তে কী কিনলে? তবে শুধু মার্কিন মুলুক কেন জার্মানি, রাশিয়া, কানাডা, চিন সবর্ত্রই সেই এক ছবি। কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ট্যাব, বা মোবাইলের মাধ্যমে ডট কম-এর দুনিয়া থেকে জিনিস কেনা। আজ আর শপিং মল, শো রুম কিংবা বাজার থেকে নয় সাইবার মানডে-তে জিনিস কেনা শুধু ওয়েবসাইট কিংবা ওয়েব পোর্টাল থেকে। ভুড়িভুড়ি ডিসকাউন্ট, অনেকটা জলের দরে নিজের পছন্দ মত জিনিস কেনা, জিনিস উপহার, ঘুরতে যাওয়ার টিকিট, হোটেল বুক সব, সব কিছু আজ মার্কিন মুলুকের বাসিন্দারা করছেন অনলাইনে।

সাইবার মান ডে পালন করা হয় থ্যাঙ্কংস গিভিং ডে (প্রত্যেক বছরের নভেম্বর মাসের ৪র্থ বৃহস্পতিবারে আমেরিকায় পালিত হয়)-এর পরের সোমবার। এই দিনটা পালন করা উদ্দেশ্য হল - থ্যাঙ্কংস গিভিং ডে-এর পর বন্ধু-আত্মীয়দের সঙ্গে মজা করে আজ থেকেই দারুণভাবে কাজে মেতে যায় গোটা আমেরিকা। তাই মন খারাপ কাটাতে আজ কম্পিউটারে কাজের ফাঁকে জিনিস কিনে মন ভাল করতে। সঙ্গে মানুষ যাতে e বাজার সম্পর্কে আরও বেশি উত্‍সাহিত হয় সেই ব্যাপারটাও থাকে।

আজকের দিনে যত টাকার বিকিকিন ইউরোপ আর মার্কিন মুলুকের লোকেরা অনলাইনে করে থাকেন সেটা শুধু আকাশছোঁয়া বললেও কম বলা হবে। ২০০৫ সাল থেকে সাইবার মান-ডে পালন করা হচ্ছে। হিসাব বলছে আমেরিকার মানুষ সবচেয়ে বেশি কেনাকাটা আজকের দিনেই করেন। এক সমীক্ষা অনুযায়ী ২০১০ সালে সাইবার মান-ডেতে অনলাইনে আমেরিকা আর ইউরোপে দেড় লক্ষ কোটি টাকারও বেশি কেনাকাটা হয়েছিল (ট্রাভেলিং ছাড়া)। ২০১১ সালে সেটা দেড়গুন হয়ে যায়। গতবছর সেটা দ্বিগুন হয়। আর এ বার থ্যাঙ্কংস গিভিং মান ডে- প্রথম তিন ঘণ্টাতেই সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। এমন একটা দিন হলে হয়তো কলকাতাবাসীকে আর শপিং করতে গিয়ে পার্কিংয়ের সমস্যা, আর পায়ে ব্যথার কথা নিয়ে মাথা ঘামাতে হত না।

আসলে সাইবার দুনিয়া তো আর কোনও দেশে সীমাবদ্ধ থাকে না, তাই আজকের দিনটায় সবাই কম দামে জিনিস কিনতে অনলাইন মুখো হয়ে পড়ছেন বিশ্ববাসী। প্রতিটি অনলাইন মার্কেটিং সাইটে ডিসকাউন্টের ছড়াছড়ি। তবে আমাদের দেশে ব্যাপরটা এখনও সেভাবে দানা বাঁধেনি বলে হতাশা প্রকাশ করলেন এক ই কমার্স কোম্পানির মালিক। এমনিতে ভারতে ই কমার্স এই ক বছরে দারুণভাবে জনপ্রিয় হয়েছে। ওয়েবসাইট-ওয়েবপোর্টাল, কিংবা সরাসরি ই কমার্স সাইটে ঢুকে জিনিস কেনার চাহিদা একেবারে আকাশ ছুঁয়েছে ভারতে। কিন্তু সাইবার মান ডে-র কথা অনেকের অজানা।

ওদের হ্যালোইন উত্‍সবের জবাবটা আমরা দিই ভূত চতুর্দশী দিয়ে। আমাদের হোলি-দোলির জবাবটা ওরা দেয় `টমেটোনা` ফস্টিভ্যালের মাধ্যমে। কিন্তু হায় রে সাইবার মান ডে-র টক্কর দেওয়ার দিন এখনও এ দেশে হল না।



First Published: Monday, December 2, 2013 - 16:43
comments powered by Disqus