ল্যাপটপ ব্যবহারে কমছে প্রজনন ক্ষমতা! মিলল প্রমাণ

Last Updated: Tuesday, November 6, 2012 - 20:57

চুটিয়ে ফেসবুক করছেন‌! কাজের চাপে ল্যাপটপটা ঘন্টার পর ঘন্টা কোলে তুলে রাখছেন! তাহলে সাবধান। কেন? তাহলে শুনুন ইংল্যান্ডের রিড দম্পতির কাহিনি।
ইংল্যান্ডের বাসিন্দা স্কট রিড ও তাঁর স্ত্রী লোরা-ও একইভাবে হতভম্ব। ৩০ বছরে ইলেকট্রিসিয়ান স্কট রিড অবসর সময়ে কোলে ল্যাপটপ নিয়ে খুব জোর দুই-আড়াই ঘণ্টা কাজ করতেন। কখনো ফেসবুক অথবা হাল্কা ছোটোখাটো কাজ। কিন্তু এরজন্য তাঁকে পুরুষত্বহীনতায় ভুগতে হবে এটা স্বপ্নেও ভাবতে পারেননি এই দম্পতিরা। লোরা জানিয়েছেন, তাঁর প্রথম সন্তান হওয়ার তিন মাস পর থেকেই রিড টেবলের পরিবর্তে কোলে ল্যাপটপ ব্যবহার করতে শুরু করেন। তার কারণেই প্রজনন ক্ষমতা কমে যাবে এমন তাঁদের ধারণা ছিল না।
তিনি সন্তান সম্ভবা হওয়ার জন্য ডাক্তারের সঙ্গে নিয়মিত কথা বলছেন। এরপরই রিডের বীর্য পরীক্ষা করা হয়। দেখা যায় ল্যাপটপের অতিরিক্ত তাপে রিডের প্রত্যেকটি শুক্রাণু নষ্ট হয়ে গিয়েছে। কুইন অ্যালেকজান্ডার হসপিটালের বায়োমেডিক্যাল এ্যান্ড্রোলজিস্ট সুই কেনওয়রথি এই কথা জানিয়ে বলেন, রিডের শুক্রাণুর পরিমান প্রজনন ক্ষমতার জন্য সঠিক থাকলেও প্রত্যেকটি শুক্রাণু ল্যাপটপের অতিরিক্ত তাপে নষ্ট হয়ে গেছে। শুক্রাণুর লেজগুলি তার মাথার সাথে কুণ্ডুলি হয়ে থাকার জন্য গর্ভাশয়ের ডিম্বাণুর দিকে ছুটে যেতে অক্ষম হয়ে পড়ে। তার কারণেই রিড বাবা হতে পারছেন না। তিনি আরও জানিয়েছেন, যাঁরা আগুনের তাপে অনবরত কাজ করে থাকেন তাঁদের ক্ষেত্রেও এই সমস্যা দেখা দিতে পারে।



First Published: Tuesday, November 6, 2012 - 20:57


comments powered by Disqus