যুদ্ধ বিরতির ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই আবার গুলি গাজা সীমান্তে

Last Updated: Saturday, November 24, 2012 - 12:07

গাজায় অস্ত্রবিরতির ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ফের সীমান্তে গুলি চলল। ইজরায়েলি সেনার গুলিতে মৃত্যু হয়েছে এক প্যালেস্তিনিয় নাগরিকের। ইজরায়েলের দাবি, সীমান্তে কাঁটাতার পেরিয়ে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করছিলেন এক দল প্যালেস্তিনিয়। সতর্ক করা সত্ত্বেও তারা না শোনায় পা লক্ষ করে গুলি চালানো হয়। ঘটনায় ক্ষুব্ধ হামাসের অভিযোগ, অস্ত্রবিরতির শর্ত ভেঙেছে ইজরায়েল। বুধবার থেকে অস্ত্রবিরতি জারি হয়েছিল দুই দেশের মধ্যে। তারপর থেকে থমথমে গাজা। শহরজুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে ইজরায়েলি হামলার অসংখ্য ক্ষত। কোথাও হাহাকার, কোথাও বা অন্ত্যেষ্টির মিছিল। তবে আকাশে ইজরায়েলি বিমান না থাকায় কিছুটা স্বস্তিও রয়েছে।
কিন্তু অস্ত্রবিরতির ৪৮ ঘণ্টা কাটার আগেই ফের গুলির শব্দ শুনল গাজার সীমান্ত। ঘটনাস্থল খান ইউনুস। শুক্রবার সীমান্তের বেড়ার কাছে একদল প্যালেস্তিনিয়কে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে ইজরায়েলি সেনা। ইজরায়েলের দাবি, প্রায় শতিনেক মানুষ সীমান্তের বেড়া পেরিয়ে গাজা থেকে ইজরায়েলে ঢোকার চেষ্টা করছিলেন। তাদের সতর্ক করতে শুণ্যে গুলি ছোড়া হয়। কিন্তু তাতেও ফল না হওয়ায় পা লক্ষ করে গুলি ছুঁড়তে বাধ্য হয় সেনা। ইজরায়েলি বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয়েছে বছর কুড়ির আনওয়ার কাদির। তার পরিবারের দাবি, সীমান্তে হামাসের পতাকা তুলতে গিয়েছিলেন কাদি। তাঁর মাথায় গুলি লেগেছিল। ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় ১৮ জন। ক্ষুব্দ হামাস নেতৃত্বের অভিযোগ, অস্ত্রবিরতির শর্ত ভেঙেছে ইজরায়েল। বিষয়টি মধ্যস্থতাকারী মিশরের নজরে আনা হবে বলেও জানিয়েছে তারা। ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না হয় তা নিয়েও সতর্ক করেছে হামাস। অন্যদিকে ইজরায়েলের দাবি, সীমান্ত পেরিয়ে ইজরায়েলে অনুপ্রবেশের চেষ্টা অস্ত্রবিরতি ভাঙারই সামিল। যদিও বিশেষজ্ঞদের মতে, ইজরায়েল-গাজা সীমান্তে গুলিচালনা নিয়মিত ব্যাপার। এর ফলে অস্ত্রবিরতি ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা কম। কিন্তু গত কয়েকদিনের হামলায় বিধ্বস্ত গাজা নতুন করে অশান্তির আশঙ্কায় ত্রস্ত।



First Published: Saturday, November 24, 2012 - 16:04


comments powered by Disqus