মারধর করে বাড়িছাড়া করা হল পাকিস্তানের প্রথম শিখ পুলিস আধিকারিককে

গুলাব সিং সংবাদ মাধ্যমে অভি‌যোগ করেছেন, বাড়ি ছাড়ার জন্য ১০ মিনিটও সময় দেওয়া হয়নি তাঁদের। শুধু তাই নয়, তাঁকে পাগড়ি খুলতেও বাধ্য করা হয়েছে

Updated: Jul 11, 2018, 09:19 AM IST
মারধর করে বাড়িছাড়া করা হল পাকিস্তানের প্রথম শিখ পুলিস আধিকারিককে

নিজস্ব প্রতিবেদন: পাকিস্তানে হেনস্থার শিকার দেশের প্রথম শিখ পুলিস অফিসার। স্ত্রী, ছেলেমেয়ে সহ তাঁকে বাড়ি থেকে জোর করে বের করে দিল পাক পুলিস। শুধু তাই নয়, তাঁকে তাঁর পাগড়ি খুলতেও বাধ্য করা হয়েছে বলে অভি‌যোগ করেছেন গুলাব সিং নামে ওই পুলিস আধিকারিক।

আরও পড়ুন-অবশেষে স্বস্তি, গুহার গ্রাস থেকে মুক্ত ১৩ প্রাণ

লাহোরের ডেরা চাহালে থাকতেন গুলাব সিং। একটি সম্পত্তি নিয়ে বিবাদকে কেন্দ্র করে গোটা ঘটনার সূত্রপাত। ২০১১ সালে গুরুদ্বারের সম্পত্তি বিক্রি করে দেওয়ার অভি‌যোগ তিনি মামলা করেন প্রপার্টি ট্রাস্ট বোর্ডের তৎকালীন প্রধান সৈয়দ আসিফ আখতার হাসমির বিরুদ্ধে। ২০১৮ সালে পাক সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয় ওই সম্পত্তি বেআইনি ভাবে বিক্রি করা হয়েছে। মনে করা হচ্ছে সেই রাগেই গুলাব সিংয়ের সঙ্গে ওই ব্যবহার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন-পদত্যাগ করছেন যাদবপুরের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস এবং সহ উপাচার্য প্রদীপ ঘোষ

গুলাব সিং সংবাদ মাধ্যমে অভি‌যোগ করেছেন, প্রপার্টি ট্রাস্ট বোর্ডের সদস্য তারিক ওয়াজির তাঁকে মারধর করেছেন। বাড়ি ছাড়ার জন্য ১০ মিনিটও সময় দেওয়া হয়নি তাঁদের। শুধু তাই নয়, তাঁকে পাগড়ি খুলতেও বাধ্য করা হয়েছে। গুলাব সিং সংবাদ সংস্থাকে বলেন, ‘আমাকে ধর্মীয়ভাবে হেনস্থা করা হয়েছে। আমাকে পাগড়ি ও চুল খুলতে বাধ্য করা হয়েছে। বাড়ি ছাড়তে বললে একটা নোটিশ দিলেই হতো।’

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close