ধুপ হইতে সাবধান!!

সন্ধে হলেই কি বাড়িতে ধুপ জালান? প্রার্থনার সময় বা নেহাতই সুগন্ধের তাগিদে? মশা মাছি তাড়াবার উপায় হিসাবেও কি বেছে নিয়েছেন ধুপকেই? যদি এর উত্তর হয় হ্যাঁ, তাহলে যত শীঘ্র এই অভ্যাস বন্ধ করতে পারেন ততই মঙ্গল আপনার এবং আপনার পরিবারের পক্ষে। সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে ধুপে সুগন্ধি ধোঁইয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে অতন্ত ক্ষতিকর।

Updated: Aug 3, 2013, 04:38 PM IST

সন্ধে হলেই কি বাড়িতে ধুপ জালান? প্রার্থনার সময় বা নেহাতই সুগন্ধের তাগিদে? মশা মাছি তাড়াবার উপায় হিসাবেও কি বেছে নিয়েছেন ধুপকেই? যদি এর উত্তর হয় হ্যাঁ, তাহলে যত শীঘ্র এই অভ্যাস বন্ধ করতে পারেন ততই মঙ্গল আপনার এবং আপনার পরিবারের পক্ষে। সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে ধুপে সুগন্ধি ধোঁইয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে অতন্ত ক্ষতিকর।
উত্তর কারোলিনার একদল গবেষকে সাম্প্রতিক গবেষণায় উঠে এসেছে বাড়ির মধ্যে ধুপ বা ধুপের মত দাহ্য বস্তু চোখ, নাক, গলা চামড়ার বিবিধ সমস্যার কারণ। মাথা ধরা, হাঁপানির সঙ্গে সঙ্গেই হার্টের অসুখও হতে পারে ধুপ বা ধুপ জাতীয় বস্তু থেকে। এমনকি ধুপের ধোঁয়া বদলে দিতে পারে ফুসফুস কোষের স্বাভাবিক আকৃতিও।
ঘরের মধ্যে ধুপ বা ধুপ জাতীয় বস্তুকে যে পরিমাণ বায়ু দূষন হয় বর্তমানে সারা বিশ্ব জুড়েই তা চিন্তার বিষয়। কার্বন মনোক্সাইডের মত অত্যন্ত ক্ষতিকারক গ্যাস নির্গত হয় ধুপ জাতীয় বস্তুর দহনে।
গবেষকরা পরীক্ষাগারে মানুষের ফুসফুস কোষকে ২৪ ঘণ্টা ধুপের ধোঁয়ার মধ্যে রেখে দেখেছেন এর ফলাফল মারাত্মক। সিগারেটের ধোঁয়া থেকে ফুসফুস কোষ যেরকম ক্ষতিগ্রস্থ হয় ধুপের ধোঁয়াতেও ক্ষতির পরিমাণ একই।