তীর্থযাত্রী কাণ্ডে ভারতকে পাল্টা কটাক্ষ ইসলামাবাদের

গত ১২ এপ্রিল পাকিস্তানে গুরুদ্বারে তীর্থ করতে গিয়েছিলেন ১৮০০ শিখ ভারতীয়। সেখানে পাকিস্তানের ভারতীয় হাইকমিশনার এবং কূটনীতিকরা সাক্ষাত্ করতে এসেছিলেন তাঁদের সঙ্গে

Updated: Apr 16, 2018, 05:11 PM IST
তীর্থযাত্রী কাণ্ডে ভারতকে পাল্টা কটাক্ষ ইসলামাবাদের

নিজস্ব প্রতিবেদন: তীর্থযাত্রী ইস্যু নিয়ে ভারতকে পাল্টা চাপে রাখার চেষ্টা করল ইসলামাবাদ। পাক বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র মহম্মদ ফয়জল জানিয়েছেন, ভারত সরকারই ১৯৭৪- প্রোটোকল লঙ্ঘন করে পাক তীর্থযাত্রীদের ভিসা অনুমতি দেয়নি । একবার নয় এক বছরে দু’বার এই কাজ করেছে নয়া দিল্লি। তাদের এই সমালোচনা হাস্যকর।

আরও পড়ুন- আলোচনাই ভারত-পাক সংঘাত মেটানোর একমাত্র রাস্তা, সুর বদল পাক সেনা প্রধানের

প্রসঙ্গত, গত ১২ এপ্রিল পাকিস্তানে গুরুদ্বারে তীর্থ করতে গিয়েছিলেন ১৮০০ শিখ ভারতীয়। সেখানে পাকিস্তানের ভারতীয় হাইকমিশনার এবং কূটনীতিকরা সাক্ষাত্ করতে এসেছিলেন তাঁদের সঙ্গে। কিন্তু পাক বিদেশমন্ত্রক অনুমতি দেয়নি বলে অভিযোগ ওঠে। খালি হাতে ফিরতে হয় ভারতীয় কূটনীতিকদের। তবে, নিরাপত্তা খাতিরে তাঁদের অনুমতি দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছে পাক বিদেশমন্ত্রক তরফে। মন্ত্রকের আরও বক্তব্য, অকারণে শিখ তীর্থযাত্রীদের নিয়ে জলঘোলা করছে ভারত। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নষ্ট করছে তারা।

আরও পড়ুন- ‘অপহরণের’ চেষ্টা, জরুরি অবতরণ করতে বাধ্য হল এয়ার চায়নার বিমান

পাক বিদেশমন্ত্রকের আরও অভিযোগ, দিল্লির নিজামুদ্দিন দরগা এবং আজমের শরিফে পাক তীর্থযাত্রীদের দু’দুবার ভিসা দিতে অস্বীকার করে ভারত।