জেল ভাঙা সাজনার হাতে উঠল তালিবান প্রধানের ব্যাটন, নজিরবিহীন প্রতিশোধের প্রতিজ্ঞা সাজনার

Last Updated: Saturday, November 2, 2013 - 17:19

গত বছর যে কায়দায় ২০০ জন তালবানি বন্ধুদের জেল ভেঙে বের করে এনে ছিলেন, তারই পুরস্কার পেলেন খান সঈদ মসুদ। মার্কিন ড্রোন হামলায় হাকিমুল্লাহ মেহসুদের মৃত্যুর পর তালিবান প্রধান হচ্ছেন খান সঈদ মসুদ। ৩৬ বছরের এই নতুন তালিবানি প্রধানের ডাক নাম সাজনা।
২০১২ সালে এই সাজনাই একেবারে হলিউডি সিনেমার কায়দায় পাকিস্তানের বান্নুর এক কারাগার ভেঙে বের করে আনেন ২০০ জন তালিবান যোদ্ধাকে, এছাড়াও করাচি বিস্ফোরণেও তিনি ছিলেন প্রধান ষড়যন্ত্রী। হাকিমুল্লাহ মেহসুদের হত্যার নজিরবিহীন প্রতিষোধ নেওয়া হবে বলে হুঙ্কার দেন নতুন তালিবান প্রধান সঈদ।
হাকিমুল্লাহ মেহসুদের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়ার পরই গোপন বৈঠকে বসে সিদ্ধান্ত হয় তালিবানকে এগিয়ে নিয়ে যেতে দলের প্রধান করা হচ্ছে খান সঈদকে। সূত্রের খবর এই গোপন বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ৪৩ জন শীর্ষ তালিবান নেতা। ধুরন্ধর বুদ্ধি, দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতার জন্যই সঈদকে এই গুরু দায়িত্ব দেওয়া হল বলে তালিবান নেতারা জানিয়েছেন। যদিও আরও তিনজনের নাম আলোচনায় এসেছিল।
এদিকে পাকিস্তান বলেছে হাকিমুল্লাহ মেহসুদের হত্যার ফলে পরিকল্পিত শান্তি আলোচনা মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হবে। প্রসঙ্গত, পশ্চিম পাকিস্তানের ওয়াজিরিস্তানে শুক্রবার এক মার্কিন ড্রোন আক্রমণে তার দুই দেহরক্ষিসহ আরো চারজনের সাথে মেহসুদ নিহত হয়।



First Published: Saturday, November 2, 2013 - 17:19


comments powered by Disqus